ঢাকা মঙ্গলবার, ২১ মে, ২০১৯, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

এটা বাংলাদেশ নয়, আবেদন করবেন তো আউট


গো নিউজ২৪ | স্পোর্টস ডেস্ক প্রকাশিত: মার্চ ১১, ২০১৯, ১২:৫৪ পিএম
এটা বাংলাদেশ নয়, আবেদন করবেন তো আউট

গতকাল এক নাটকীয়তার জম্ম দিয়ে নিজেদের ওয়ানডে ইতিহাসের সবচেয় বড় লক্ষ্য ৩৫৯ রান তাড়া করে জয় পেয়েছে অস্ট্রেলিয়া।ম্যাচ শেষে হারের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে ভারত ক্যাপ্টেন দায় দেন রাতের শিশির, নিজেদের ফিল্ডিংকে এবং ডিআরএস নিয়ে। তবে অ্যাশটন টার্নারই যে সব হিসেব পাল্টে দিলেন, তা স্বীকার করে নিলেন তিনি। মোহালিতে ৩৫৮ রান তুলেও অস্ট্রেলিয়ার কাছে চার উইকেটে হেরেছে বিরাট কোহলির দল।

অস্ট্রেলিয়ার শেষ দশ ওভারে জেতার জন্য প্রয়োজন ছিল ৯৮ রান। এই অবস্থা থেকে টার্নার ৪৩ বলে ৮৪ রান করে ১৩ বল বাকি থাকতেই দলকে লক্ষ্যে পৌঁছে দেন। ২৬ বছরের এই আগ্রাসী ব্যাটসম্যানের ইনিংসের প্রশংসা করে বিরাট বলেন, ‘হ্যান্ডসকম্ব ও খোয়াজা খুব ভাল ব্যাটিং করেছে। কিন্তু অ্যাশটনের বিধ্বংসী ইনিংসে ম্যাচ বেরিয়ে গেল।’

ডিআরএস নিয়ে বেশ বিরক্ত ভারত ক্যাপ্টেন। যদিও তার দাবিটা একেবারেই অনর্থক।হয়ত বাংলাদেশের সাথে এমন হলে আউট দিয়ে দিতেন আম্পায়াররা।অস্ট্রেলিয়া থাকায় হয়ত এমন সুযোগ পাননি কোহলিরা।এশিয়া কাপে ফাইনালী লড়াইয়ে বাংলাদেশকে এই ডিআরএস দিয়েই হারিয়েছে ভারত।

কোহলির দাবি বলটি টার্নারের ব্যাটের কানা ছুঁয়ে পন্থের গ্লাভসে গিয়ে জমা হয়েছে। কিন্তু ভারত রিভিউ চাইলে সেখানে দেখা যায় টার্নারের ব্যাটে লাগেনি।কিন্তু এটা মানতে পারছেন না কোহলি।ভারত ক্যাপ্টেন বলেন, ‘ওই ঘটনাটা আমাদের সবাইকে বেশ অবাক করে দেয়। প্রতি ম্যাচে এমন হচ্ছে। ডিআরএস তেমন ধারাবাহিক নয় বোধহয়। ওখানেই ম্যাচের ছবিটা পাল্টে যায়।’

এখন প্রশ্ন হলো নিজেদের পক্ষে সিদ্ধান্ত না গেলেই বুঝি ডিআরএসে সমস্যা? 

উল্লেখ্য, পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ইতিমধ্যে ২-২ সমতায় দুই দল।

গোনিউজ২৪/এএস

খেলা বিভাগের আরো খবর
বিশ্বকাপের ম্যাচ দেখা যাবে যেসব চ্যানেলে

বিশ্বকাপের ম্যাচ দেখা যাবে যেসব চ্যানেলে

ক্রিকেটের ঘৃণিত একাদশে মুশফিক, বাদ যাননি পন্টিংও

ক্রিকেটের ঘৃণিত একাদশে মুশফিক, বাদ যাননি পন্টিংও

এমবাপ্পের পিএসজি ছাড়ার ইঙ্গিত

এমবাপ্পের পিএসজি ছাড়ার ইঙ্গিত

নেইমারের সঙ্গে আলোচনায় বসছেন তিতে

নেইমারের সঙ্গে আলোচনায় বসছেন তিতে

পাকিস্তান গর্ব করবে: আমির

পাকিস্তান গর্ব করবে: আমির

মাশরাফি আদর্শ নেতা: অনিল কুম্বলে

মাশরাফি আদর্শ নেতা: অনিল কুম্বলে