ঢাকা রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮, ৮ আশ্বিন ১৪২৫
Sharp AC

জুভেন্টাসে পা দিতেই বড়সড় বিপদে রোনালদো!


গো নিউজ২৪ | স্পোর্টস ডেস্ক প্রকাশিত: জুলাই ১২, ২০১৮, ০৯:৩২ এএম
জুভেন্টাসে পা দিতেই বড়সড় বিপদে রোনালদো!
Sharp AC

১২০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে রিয়াল ছেড়ে ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসে পা দিয়েছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। আর ক্লাবটিতে পা না দিতেই বড়সড় বিক্ষোভের সম্মুখীন হচ্ছেন এই তাকরা। এমনটাই খবর চাউর হয়েছে বিশ্বমিডিয়ায়।

ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর জুভেন্টাসে আগমণে বেজায় ক্ষুব্ধ ফিয়াট সংস্থার কর্মীরা। মূলত তারাই বিক্ষোভের ডাক দিয়েছেন।

কিন্তু কথা হচ্ছে, পর্তুগিজ তারকার সঙ্গে ফিয়াট সংস্থার কর্মীদের সম্পর্ক কি! বলা হচ্ছে, রোনালদোকে আনতে জুভেন্টাসের খরচ হয়েছে ১২০ মিলিয়ন ইউরো। বার্ষিক চুক্তিতে ৩০ মিলিয়ন পাবেন তা। করের হিসেব করলে রোনালদোর ক্ষেত্রে জুভেন্টাসের আর্থিক খরচ পড়েবে ২৪০ মিলিয়ন ইউরো। ইতালিয়ান সংবাদমাধ্যমের দাবি, এই অর্থের অর্ধেক অর্থই বহন করবে ফিয়াট।

এখানেই আপত্তি ফিয়াট সংস্থার কর্মরত শ্রমিকদের। আসলে জুভেন্টাস ও ফিয়াটের মালিকানা স্বত্ত্বের বেশিরভাগটাই আগনেল্লি পরিবারের। রিয়াল থেকে জুভেন্টাসে রোনালদোকে আনতে সক্রিয় ভূমিকা নিয়েছেন আন্দ্রেয়া আগনেল্লি। তাকে আনতে বিশাল অর্থ খরচ করলেও ফিয়াটে কর্মরত শ্রমিকদের বেতন বাড়াননি গত ১০ বছর ধরে।

ইতালিয়ান সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর, রোনালদো পেছনে বিশাল অর্থব্যয় না করলে ফিয়াটের দুই লক্ষ কর্মীর প্রত্যেকের ২০০ ইউরো করে বেতন বাড়ানো সম্ভব। মুদ্রাস্ফীতিতে সমস্ত কর্মীদের আয় কমেছে ১০.৭ শতাংশ। প্রতিষ্ঠান সেই অর্থ পূরণ করার ক্ষেত্রে সদর্থক ভূমিকা নেয়নি। তবে কর্মীদের অভিযোগ বেতন না বাড়ালেও স্পনসরশিপ বাবদ কোটি কোটি ইউরো খরচা করছে সংস্থাটি। রোনালদোর বিশাল অঙ্কের দলবদলের পরে সংস্থা বেতন বাড়ানো নিয়ে শঙ্কায় কর্মীরা। তাই ধর্মঘটের পথই বেছে নিচ্ছেন তারা।
 

গোনিউজ২৪/এআর
 

খেলা বিভাগের আরো খবর
১৯ বছরের পুরনো রেকর্ড ভাঙলেন ইমরুল-মাহমুদউল্লাহ

১৯ বছরের পুরনো রেকর্ড ভাঙলেন ইমরুল-মাহমুদউল্লাহ

আফগানিস্তানের চাই ২৫০

আফগানিস্তানের চাই ২৫০

উপেক্ষিত ইমরুলই ভরসা বাংলাদেশের

উপেক্ষিত ইমরুলই ভরসা বাংলাদেশের

বিপদের পরও মাঠে নামলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যান

বিপদের পরও মাঠে নামলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যান

মুশফিকের নতুন মাইলফলক

মুশফিকের নতুন মাইলফলক

শান্ত’র এশিয়া কাপ শেষ!

শান্ত’র এশিয়া কাপ শেষ!

Best Electronics AC mela