ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৮ মে, ২০২০, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

মিয়ানমার অত্যন্ত রক্ষণশীল, কারো কথা শোনে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী


গো নিউজ২৪ | নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৯, ০৪:২৪ পিএম আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৯, ১০:২৪ এএম
মিয়ানমার অত্যন্ত রক্ষণশীল, কারো কথা শোনে না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

মিয়ানমার অত্যন্ত রক্ষণশীল। তারা কারও কথা শোনে না। তবে আশার কথা হলো তারা বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে রাজি হয়েছে।  

বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনবিষয়ক এক সেমিনারে একথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। 

মন্ত্রী বলেন, ১৯৭৮ কিংবা ১৯৯২ সালেও তারা আলোচনার মাধ্যমে তাদের লোকদের ফেরত নিয়েছিল। তবে এবার সংখ্যাটা অনেক বেশি। ১৯৯২ সালে ২ লাখ ৫৩ হাজার ছিল। তারমধ্যে ২ লাখ ৩০ হাজার চলে যায়। এবার ১৩ লাখ। আমরা তাদের সঙ্গে আলোচনা করছি।

তিনি বলেন, মিয়ানমার যাদের উপর নির্ভর করে সেই চীন বা রাশিয়া এখন অনেকটাই আমাদের পক্ষে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন যদি বিলম্বিত হয় এবং অনিশ্চয়তা দেখা দেয় তাহলে শুধু বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের ক্ষতি হবে না, যারা এ অঞ্চলে বিনিয়োগ করেছেন তারাও যথেষ্ট ক্ষতিগ্রস্ত হবেন।

রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী অত্যন্ত ভীতু প্রকৃতির, তারা তাদের সরকারকে বিশ্বাস করে না। আমরা মিয়ানমারকে কিছু শর্ত দিয়ে বলেছি আপনারা রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে নিয়ে গিয়ে দেখান, তাদের নাগরিকত্ব দেন এবং তাদের স্বাধীনভাবে থাকা ও চলাফেরা করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়ার বিষয় উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন বলেন, আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে সারা বিশ্বে মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। সারা বিশ্ব এখন বাংলাদেশের প্রশংসা করে। যা কোটি কোটি টাকা খরচ করেও অর্জন করা সম্ভব নয়। তাই বাংলাদেশের সবাইকে শেখ হাসিনার প্রতি যথেষ্ট কৃতজ্ঞ থাকা দরকার।

গো নিউজ২৪/আই

রাজনীতি বিভাগের আরো খবর
করোনায় আক্রান্ত ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

করোনায় আক্রান্ত ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

সরকারের যে সিদ্ধান্তকে ক্ষমাহীন অপরাধ বললেন ফখরুল

সরকারের যে সিদ্ধান্তকে ক্ষমাহীন অপরাধ বললেন ফখরুল

সরকারী চাকরিজীবীদের সাপ্তাহিক ছুটি কমানোর ইঙ্গিত

সরকারী চাকরিজীবীদের সাপ্তাহিক ছুটি কমানোর ইঙ্গিত

সরকারকে মানুষের জীবন এবং জীবিকা দুটোই দেখতে হচ্ছে: কাদের

সরকারকে মানুষের জীবন এবং জীবিকা দুটোই দেখতে হচ্ছে: কাদের

জামায়াত-শিবিরের বহিষ্কৃত দুই নেতার নেতৃত্বে নতুন দল

জামায়াত-শিবিরের বহিষ্কৃত দুই নেতার নেতৃত্বে নতুন দল

বিভেদের রাজনীতি করোনাকে আরও বিধ্বংসী করে তুলবে

বিভেদের রাজনীতি করোনাকে আরও বিধ্বংসী করে তুলবে