ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট, ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৬

আর মাত্র ১২ দিন, কী করবে বিএনপি?


গো নিউজ২৪ | মিজানুর রহমান প্রকাশিত: এপ্রিল ১৮, ২০১৯, ১০:৫৮ এএম
আর মাত্র ১২ দিন, কী করবে বিএনপি?

ঢাকা: বিএনপির ছয়জন সংসদ সদস্য (এমপি) শপথের বিনিময়ে দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে প্যারোলে মুক্তি দেয়া হবে এমন গুঞ্জন বেশ জোরালো হচ্ছে। এমনকি খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে মর্মে গুঞ্জন আরো বাড়ছে।

তবে এই গুঞ্জন জোরালো হওয়ার মূল কারণ হচ্ছে, সংবিধান অনুযায়ী ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের শপথ নেওয়ার যে সময়সীমা আছে, তা ঘনিয়ে এসেছে। সে হিসেবে আগামী ৩০ এপ্রিলের মধ্যে বিএনপির ছয় সাংসদকে শপথ নিতে হবে। অন্যথায় তাদের সদস্যপদ খারিজ হয়ে যাবে। এই গুঞ্জনে নতুন যুক্ত হয়েছে, মুক্তির পর দ্রুত খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে।

এ ব্যাপারে দলটির শীর্ষপর্যায়ের নেতারা বলছেন, বেগম জিয়ার কারামুক্তি এবং তার চিকিৎসার ব্যাপারে দলে কারও ভিন্নমত নেই। সবাই চান, দ্রুত কারামুক্ত হয়ে খালেদা জিয়া দলের নেতৃত্ব দিন। কিন্তু তার মুক্তি আইনি প্রক্রিয়ায়, আন্দোলনের মাধ্যমে নাকি সরকারের সঙ্গে কোনো ধরনের সমঝোতা করে, তা নিয়ে নেতাদের মধ্যে দ্বিধাদ্বন্দ্ব আছে।

এদিকে বিএনপির গুরুত্বপূর্ণ সূত্রগুলোর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বর্তমানে দলের যে সাংগঠনিক অবস্থা, তাতে আন্দোলন করে দলীয় প্রধানকে মুক্ত করার কথা দলের নীতিনির্ধারকদের চিন্তায় নেই। এ অবস্থায় বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্বের একটি অংশ চায়, সরকারের সঙ্গে সমঝোতা করে খালেদা জিয়াকে জামিনে মুক্ত করা কিংবা প্যারোলে (নির্বাহী আদেশে) হলেও বের করে দেশে বা বিদেশে তার চিকিৎসা করানো হোক। এ সমঝোতায় বিএনপির সাংসদেরা জাতীয় সংসদে যোগদান করতেও রাজি।

তবে দলের অপর একটি অংশ সমঝোতা করে খালেদা জিয়াকে কারামুক্ত করার প্রক্রিয়ার সঙ্গে একমত নয়। তারা মনে করেন, সরকারের অনুকম্পা নিয়ে নেত্রীকে মুক্ত করা হবে অসম্মানের। এতে দল ও নেত্রীর রাজনৈতিক ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত হবে। যদিও এ বিষয়ে এই দুই চিন্তার নেতাদের মধ্যে এখন পর্যন্ত কোনো আলোচনা হয়নি।

সম্প্রতি খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার স্বজনরা দেখা করতে গেলে প্যারোলের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়। প্যারোলের ব্যাপারে স্বজনরা তাকে রাজি করানোর চেষ্টাও করেন। কিন্তু খালেদা জিয়া তার স্বজনদের সাফ জানিয়ে দেন প্যারোলে মুক্তি তিনি চান না।

এরপর গত রোববার পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে দেখা করতে গেলে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান ও গয়েশ্বরচন্দ্র রায়কেও খালেদা জিয়া সাফ জানিয়ে দেন, প্যারোল নিতে রাজি নন তিনি। বিএনপির ছয়জন সংসদ সদস্যও শপথ নেবেন না।

অবশ্য দলের স্থায়ী কমিটির এক সদস্য বলেন, প্যারোল নিয়ে ম্যাডাম কিছু বলেননি। জামিন পাওয়ার ন্যায্য অধিকার তার আছে, প্যারোল চাইবেন কেন? আর শপথ নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। ম্যাডামের মামলা ও শারীরিক অবস্থা নিয়ে কথা হয়েছে।

অন্যদিকে বুধবার মহাখালী ডিওএইচএসে নিজ বাসভবনে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে ২০ দলীয় জোটের সমন্বয়ক ও লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সভাপতি কর্নেল (অবসরপ্রাপ্ত) অলি আহমদ বলেছেন, দেশের ১৬ কোটি মানুষকে অসম্মান করে বিএনপির এমপিরা জাতীয় সংসদে শপথ নিলে জাতীয় বেইমান হিসেবে চিহ্নিত হবেন।

এদিকে খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির শর্তে শপথ নিতে আগ্রহী বিএনপির ছয়জন বিজয়ী প্রার্থী সোমবার গুলশানে দলের চেয়ারপাসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে বৈঠক করেন। শপথ নেওয়ার ব্যাপারে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে তাদের আগ্রহের কথা জানান। মির্জা ফখরুলও তাদের জানিয়ে দেন খালেদা জিয়ার সিদ্ধান্তের বিষয়টি।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট থেকে ৮ জন এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। এর মধ্যে বিএনপি থেকে ছয়জন। তারা হলেন- ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে মো: জাহিদুর রহমান, বগুড়া-৪ আসনে মো: মোশাররফ হোসেন, বগুড়া-৬ আসনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনে মো: আমিনুল ইসলাম, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনে মো: হারুনুর রশিদ এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে উকিল আব্দুস সাত্তার। এর মধ্যে মৌলভীবাজার-২ আসনে ঐক্যফ্রন্টের এমপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর এবং সিলেট-২ আসনের মোকাব্বির খান সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিয়েছেন। দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে শপথ গ্রহণের কারণে সুলতান মোহাম্মদ মনসুর ও মোকাব্বির খানকে ইতোমধ্যে বহিষ্কার করেছে গণফোরাম।

গো নিউজ২৪/এমআর

রাজনীতি বিভাগের আরো খবর
গভর্নমেন্ট অফ দ্য লুটেরা: মির্জা ফখরুল

গভর্নমেন্ট অফ দ্য লুটেরা: মির্জা ফখরুল

বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িতদের চিহ্নিত করতে কমিশন হচ্ছে: আইনমন্ত্রী

বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িতদের চিহ্নিত করতে কমিশন হচ্ছে: আইনমন্ত্রী

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে চাঁদপুরে

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হচ্ছে চাঁদপুরে

প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার চাইলেন ভিপি নুর

প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার চাইলেন ভিপি নুর

‘জিয়া নয়, বঙ্গবন্ধু হত্যায় আ.লীগের লোকেরাই জড়িত’

‘জিয়া নয়, বঙ্গবন্ধু হত্যায় আ.লীগের লোকেরাই জড়িত’

জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যায় ওতপ্রোতভাবে জড়িত: তথ্যমন্ত্রী

জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যায় ওতপ্রোতভাবে জড়িত: তথ্যমন্ত্রী