ঢাকা রবিবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২০, ১০ কার্তিক ১৪২৭

স্নাতক ডিগ্রীধারী শিক্ষকরা ১৩তম নয় বরং ১০ম গ্রেডের যোগ্য


গো নিউজ২৪ | মাহফিজুর রহমান প্রকাশিত: অক্টোবর ৮, ২০২০, ০২:৩৭ পিএম আপডেট: অক্টোবর ৮, ২০২০, ০৮:৩৭ এএম
স্নাতক ডিগ্রীধারী শিক্ষকরা ১৩তম নয় বরং ১০ম গ্রেডের যোগ্য

প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষকদের গত ৯ফেব্রুয়ারী ২০২০ ইং তারিখে ১৩তম গ্রেডের আপগ্রেডের গেজেট হয়েছিল।সেই গেজেটে সকল সহকারী শিক্ষক ১৩তম গ্রেড পাবেন কিনা এ বিষয়টি নিয়ে এখনো কেউ নিশ্চিত নয়,এমনকি আমাদের মন্ত্রণালয়ও বিষয়টি নিয়ে নাকি নিশ্চিত নয় তবে উনারা চাচ্ছেন সকল সহকারী শিক্ষক যেন ১৩তম গ্রেড পান।

আচ্ছা জাস্ট তর্কের খাতিরে আমি ধরে নিলাম সকল সহকারী শিক্ষক ১৩তম গ্রেড পাবেন না,শুধু ২য় শ্রেণির স্নাতক ডিগ্রীধারী সহকারী শিক্ষকরা ১৩তম গ্রেড পাবেন।তাহলে ২য় শ্রেণির স্নাতক +ডিপ্লোমা ডিগ্রীধারী শিক্ষকদের জন্য ১৩ তম গ্রেড কি যৌক্তিক?

প্রাথমিক শিক্ষকরা শিক্ষক হিসেবে তাদের নায্য অধিকারতো দূরের কথা,একজন সরকারি কর্মচারী হিসেবেও অন্য ডিপার্টমেন্টেরর সরকারী কর্মচারীদের তুলনায় অনেক বৈষম্যের শিকার।আমাদের গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাননীয় সিনিয়র সচিব স্যার শিক্ষকদের গ্রেড আপগ্রেড বিষয়ে একবার বলেছিলেন শিক্ষকদের গ্রেড বাড়ানোর সময় সমযোগ্যতার অন্য ডিপার্টমেন্টেরর কর্মচারীদের বিষয়টিও লক্ষ্য রাখতে হবে।

তার মানে এটা বুঝায় অন্য ডিপার্টমেন্টে শিক্ষকদের সমযোগ্যতার কর্মচারীদের যে বেতন-মর্যাদা দেয়া হয় ,প্রাথমিক শিক্ষকরাও তাই পাবেন।কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য,বাস্তব অবস্থা  সম্পূর্ণ তার উল্টা। শিক্ষকদের সমযোগ্যতার অন্য ডিপার্টমেন্টেরর কর্মচারীদের সমান বেতন-মর্যাদা পাওয়াতো দূরের কথা,শিক্ষকদের চেয়ে কম যোগ্যতার অন্য সরকারী কর্মচারীরা শিক্ষকদের চেয়ে বেশী বেতন-মর্যাদা পাচ্ছেন।

আসুন এবার অন্য ডিপার্টমেন্টের কিছু সরকারী কর্মচারীর শিক্ষাগত যোগ্যতা ও তাদের বেতন গ্রেড আলোচনা করি।

উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা, এসএসসি+৪বছর মেয়াদী ডিপ্লােমা-১০ম গ্রেড।

সহকারী প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা, এইচএসসি+২বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা-১০ম গ্রেড।

উপসহকারী মৎস কর্মকর্তা, এইচএসসি+৪বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা-১১ তম গ্রেড।

উপসহকারী, প্রকৌশলী এসএসসি+৪বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা-১০ম গ্রেড।

ফার্মাসিস্ট, এইচএসসি+৩ বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা-১১ তম গ্রেড।

সহকারী ফরেস্টার, এসএসসি+৪বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা-১০ম গ্রেড।

সার্ভেয়ার, এসএসসি+৩বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা-১১তম গ্রেড।

সিনিয়র স্টাফ নার্স এসএসসি+৪ বছর মেয়াদী নার্সিংএ ডিপ্লোমা-১০ম গ্রেড।

লাইব্রেরীয়ান, স্নাতক+১বছর মেয়াদী লাইব্রেরী সাইন্সে ডিপ্লোমা-১০ম গ্রেড।

এবার দেখি প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের শিক্ষাগত যোগ্যতা ও বেতন-মর্যাদার বিষয়টি

সহকারী শিক্ষক, ২য় শ্রেণির স্নাতক+দেড় বছর মেয়াদী ডিপ্লোমা ইন প্রাইমারী এডুকেশন-১৩তম গ্রেড।

তাহলে আমাদের দেশে শিক্ষকদের যোগ্যতা ও বেতন-পর্যাদা নিয়ে যেসব হিংসুক ব্যক্তি কটাক্ষ করেন অথবা যেসব ব্যক্তি শুধু মুখে মুখে শিক্ষকদের মর্যাদা নিয়ে মুখে ফেনা তুলেন তাদের প্রতি এখন প্রশ্ন রইলো,প্রাথমিক শিক্ষকরা শিক্ষক হিসেবে অন্যদের চেয়ে উচ্চ মর্যাদাতো দূরের কথা,বরং তাদের চেয়ে কম শিক্ষাগত যোগ্যতার অন্য সরকারী কর্মচারীদের থেকেও যে কম বেতন-পদমর্যাদা পাচ্ছেন,এ বিষয়টি নিয়ে আপনারা এখন কি বলবেন?

শিক্ষক হিসেবে আমাদের অন্যদের চেয়ে উচ্চ মর্যাদা দেয়ার দরকার নাই,আমরা শিক্ষকদের সমযোগ্যতার অন্য সরকারী কর্মচারীরা যা পাচ্ছেন আমরাও তাই চাই।এক্ষেত্রে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষকদের যোগ্যতা অনুসারে ১৩তম গ্রেড নয় বরং ১০ম গ্রেডের হকদার।তাই আমাদেরকে আমাদের নায্য অধিকার ১০ম গ্রেড দেয়া হোক।

লেখক-মাহফিজুর রহমান, শিক্ষক ও কলামিস্ট

মতামত বিভাগের আরো খবর
স্নাতক ডিগ্রীধারী শিক্ষকরা ১৩তম নয় বরং ১০ম গ্রেডের যোগ্য

স্নাতক ডিগ্রীধারী শিক্ষকরা ১৩তম নয় বরং ১০ম গ্রেডের যোগ্য

প্রচার বিমুখ শেখ রেহানা নির্মোহ চরিত্রের শ্রেষ্ঠ উদাহরণ

প্রচার বিমুখ শেখ রেহানা নির্মোহ চরিত্রের শ্রেষ্ঠ উদাহরণ

করোনার চিকিৎসায় হোমিওপ্যাথির কার্যকারিতা ও সফলতা

করোনার চিকিৎসায় হোমিওপ্যাথির কার্যকারিতা ও সফলতা

মহাসংকটে পৃথিবী : হে মানুষ, ফিরে এসো

মহাসংকটে পৃথিবী : হে মানুষ, ফিরে এসো

অসাধারণ মাহমুদের বেঁচে থাকা প্রয়োজন

অসাধারণ মাহমুদের বেঁচে থাকা প্রয়োজন

করোনার ২ মাসে মানুষের জীবনাচরণে এসেছে ব্যাপক পরিবর্তন

করোনার ২ মাসে মানুষের জীবনাচরণে এসেছে ব্যাপক পরিবর্তন