ঢাকা রবিবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৮, ৪ ভাদ্র ১৪২৫
Beta Version
Sharp AC

সাকিবের দোষ ধরবো, নাকি সাকিবের কাছ থেকে কিছু শিখবো?


গো নিউজ২৪ | ফারজানা আক্তার প্রকাশিত: আগস্ট ১০, ২০১৮, ০২:৪৬ পিএম আপডেট: আগস্ট ১০, ২০১৮, ০৮:৫২ এএম
সাকিবের দোষ ধরবো, নাকি সাকিবের কাছ থেকে কিছু শিখবো?
Sharp AC

সাকিব আল হাসান! তাকে বলা হয় বাংলাদেশের জান, বাংলাদেশের প্রাণ। বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার তিনি। সারা বিশ্বের কাছে তিনি বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করেন। খুব অল্প সময়ে এবং অল্প বয়সে তার যে অর্জন, সেগুলো আসলেই ঈর্ষণীয়। সাকিবের হেটার বেশি, নাকি লাভার বেশি সেটা নিয়ে আমি কিছুটা কনফিউজড। আমার মনে হয় এই বিষয়টা নিয়ে অনেকেই কনফিউজড! 

প্রতিটা মানুষ যেমন ভিন্ন, তেমনি তাদের চিন্তা - ধারা, আচার - আচরণ, চরিত্র, সহনশীলতাও ভিন্ন। প্রতিটা মানুষের লক্ষ্য থাকে সাফল্যের চূড়ায় পৌঁছানোর। কিন্তু শেষ পর্যন্ত কয়জন মানুষ সেই লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে? অনেকেই মাঝপথে হাল ছেড়ে দেয়! ব্যর্থ হলে মানুষ কি বলবে সেই ভাবনাতে অনেকে কাজই শুরু করে না! অনেকে ভয় পেয়ে মাঝপথে থেমে যায়! মানুষ হাসে, মানুষ কথা শোনায় তাই অনেকে নিজের স্বপ্নের জায়গা ছেড়ে দেয়! অনেকে কষ্ট সহ্য করতে পারে না ইত্যাদি আরো নানান কিছু। যারা এতো সব প্রব্লেম পাত্তা না দিয়ে নিজের লক্ষ্যে অটল থাকে তারাই কিন্তু সাফল্যের মুখ দেখতে পায়। সাকিব আল হাসান তেমনি একজন। 

'যারে দেখতে নারি, তার চলন বাঁকা' এই প্রবাদ বাক্যটার সাথে সাকিবের কেমন জানি একটা গভীর সম্পর্ক রয়েছে । সাকিবের সব কিছুতেই আমরা কেমন জানি দোষ দোষ গন্ধ পেয়ে যাই । দাঁড়ান! আমাকে এখন সাকিবের অন্ধ ভক্ত বা দালাল বলে গালি দিবেন তো? আগে শোনেন, আমি সাকিবের অন্ধ ভক্ত বা দালাল কিছুই নই। আবার আমি সাকিব হেটারও নই। আমি সাকিব এভারেজ। কারণ সাকিবের অবদান অস্বীকার করার মতো অকৃতজ্ঞ আমি নই। দল জয়ী হওয়ার জন্য সাকিবের উপর নির্ভর করবো, আর দল হারলে একা সাকিবকেই গালি দিবো এতটা নিচু মানসিকতার মানুষও আমি নই। 

মানুষ যখন সমাজের উঁচু স্তরের দিকে যায় তখন তাকে অনেক কিছু মেইনটেইন করতে হয়। চাইলেই যখন তখন যা খুশি করতে পারে না এবং সব কথা মুখেও বলতে পারে না । আর্থিক এবং ক্ষমতার দিক থেকে হয়তো সে তখন শক্তিশালী হয়, কিন্তু নিজস্বতার দিক থেকে তখন সে লিমিটেড হয়ে যায়। আপনি আমি যেভাবে রাস্তা-ঘাটে, পার্কে বন্ধু বান্ধবের সাথে আড্ডা দিতে দিতে ফুসকা, চা খেতে পারবো , সাকিব চাইলেও সেটা কখনো পারবে না। দিনশেষে রাজা মহারাজা, প্রজা সবাই সাধারণ মানুষ । সবারই রাগ-অভিমান, ক্লান্তি, ভালোবাসা, হতাশা রয়েছে । আমরা সাধারণ মানুষেরা কি আদৌ এই বিষয়গুলো বুঝতে চাই বা বুঝতে পারি?

আমরা আমজনতা ধরেই নিয়েছি সকল সেলিব্রেটিরা এক একটা রোবট। তাদের কোন রাগ নেই, তাদের কোন দুঃখ নেই, তাদের কোন ক্লান্তি নেই । আমরা ভক্তরা যখন যেভাবে যা চাইবো তারা তা করতে বাধ্য। একজন আবার একটু দোষ করলে তাকে অন্য জনের সাথে তুলনা করাও শুরু হয়ে যায়। সাকিব, মাশরাফি, তামিম তাদের পরিচয় তারা ক্রিকেটার। তাই বলে কি তাদের স্বভাবগত, চরিত্রগত বৈশিষ্ট্যও কি এক হতে হবে? সাকিব কেন ভক্তের সাথে রেগে গেলো! মাশরাফি তো এমন করে নাই! এই জন্যই সাকিব বেয়াদপ আর মাশরাফি ভালো! ছোট ছোট ব্যাপার নিয়ে আমরা কিভাবে মানুষকে ভাগ করে ফেলি। মানুষের চরিত্রের সার্টিফিকেট দিয়ে দেই। মনে হয় সবার চরিত্র নিয়ে গবেষণা করার জন্য আমাদের কয়েকশ ডিগ্রি রয়েছে ।

মানুষকে আগে মানুষ ভাবতে শিখুন, তারপর কোন পরিস্থিতিতে অন্য একটি মানুষ কি ধরনের ব্যবহার করেছে সেই পরিস্থিতিতে নিজেকে বসান। এখন ভেবে দেখুন সেই পরিস্থিতিতে আপনি হলে কি করতেন? তারপর অন্যের দিকে তাকান এবং কথা বলুন। হিংসা থেকে এবং মার্কের বানানো ফেসবুকে বসে দুনিয়ার বয়ান দিয়ে দেওয়া যায়। কারো পজিশন অনুজায়ী তার ব্যবহার নিয়ে কথা বলতে হলে নিজেকে আগে সেই জায়গায় প্রতিষ্ঠিত করুন এবং নিজের অবস্থান ক্লিয়ার রেখে সেই ব্যক্তির সমালোচনা করুন। নিজে ভালো থাকুন, অযথা অন্যের সমালোচনা বন্ধ করুন।

ফারজানা আক্তার : সাংবাদিক এবং ওয়ের ডেভেলপার।

গো নিউজ২৪/আই  

মতামত বিভাগের আরো খবর
তসলিমা নাসরিনের ফেসবুক স্ট্যাটাসে অটল বিহারী

তসলিমা নাসরিনের ফেসবুক স্ট্যাটাসে অটল বিহারী

জনপ্রিয় বলে কি শহিদুল আলম আইনের ঊর্ধ্বে?

জনপ্রিয় বলে কি শহিদুল আলম আইনের ঊর্ধ্বে?

সাংবাদিকদের ওপর হামলাকারী হেলমেটধারীরা কারা?

সাংবাদিকদের ওপর হামলাকারী হেলমেটধারীরা কারা?

সাকিবের দোষ ধরবো, নাকি সাকিবের কাছ থেকে কিছু শিখবো?

সাকিবের দোষ ধরবো, নাকি সাকিবের কাছ থেকে কিছু শিখবো?

‘শহিদুল আলম আমাকে প্রাণে বাঁচিয়েছিলেন’ 

‘শহিদুল আলম আমাকে প্রাণে বাঁচিয়েছিলেন’ 

আ’লীগ সরকার বাকস্বাধীনতায় বিশ্বাসী   

আ’লীগ সরকার বাকস্বাধীনতায় বিশ্বাসী   

Best Electronics AC mela