ঢাকা শনিবার, ০৬ মার্চ, ২০২১, ২১ ফাল্গুন ১৪২৭

সরকারি কর্মচারীদের নতুন এসিআর ফরম চালু


গো নিউজ২৪ | নিউজ ডেস্ক প্রকাশিত: জানুয়ারি ১১, ২০২১, ০১:৩৬ পিএম আপডেট: জানুয়ারি ১১, ২০২১, ০৭:৩৬ এএম
সরকারি কর্মচারীদের নতুন এসিআর ফরম চালু

সরকারি কর্মচারীদের জন্য বার্ষিক গোপনীয় অনুবেদনের (এসিআর) নতুন ফরম চালু করেছে সরকার।  নবম গ্রেড ও তদূর্ধ্ব কর্মচারীদের জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সম্প্রতি এ ফরম চালু করে।  

নতুন ফরমে আগের মতোই ২৫টি বিষয়ের মূল্যায়ন থাকছে। এরমধ্যে নৈতিক ও সততাকে শীর্ষে রাখা হয়েছে। ফরমে অনুবেদনকারী এবং অনুবেদন প্রতিস্বাক্ষরকারীর সুপারিশ অংশেও পরিবর্তন আনা হয়েছে।

ফরমের কার্যসম্পাদন অংশ থেকে সহকর্মীদের সহিত সম্পর্ক, অধীনস্তদের প্রশিক্ষণ দানে আগ্রহ ও দক্ষতা, বার্ষিক গোপনীয় অনুবেদন লিখন প্রতিস্বাক্ষরকরণে তৎপরতা এ তিনটি মূল্যায়নের ক্ষেত্রে বাদ দেওয়া হয়েছে।

এক্ষেত্রে নতুন করে ই-নথি ও ইন্টারনেট ব্যবহারে আগ্রহ ও দক্ষতা, উদ্ভাবনী কাজে আগ্রহ এবং দলগত কাজে সহযোগিতা এবং নেতৃত্ব দানে সক্ষমত নতুন মূল্যায়নের ক্ষেত্রে হিসেবে যুক্ত হয়েছে।

পাশাপাশি ২০১২ সালে প্রণীত অনুস্বাক্ষর লিখন, প্রতিস্বাক্ষর ও সংরক্ষণ সংক্রান্ত অনুশাসনমালা বাতিল করে নতুন অনুশাসনমালা জারি করা হয়।

পূর্বের অনুশাসনমালায় (২০১২) নবম ও তদুর্ধ্ব গ্রেডে কর্মরতদের ‘কর্মকর্তা‘ হিসেবে উল্লেখ করা হলেও নতুন অনুশাসনমালায় সবাইকে ‘কর্মচারী’ বলা হয়েছে। এছাড়া বিদ্যমান আগ্রহ অংশে ‘আগ্রহ ও মনোযোগ’, ‘ব্যবস্থা গ্রহণ ও আদেশ পালনে তৎপরতার’ পরিবর্তে ‘ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ পালনে তৎপরতা’ এবং ‘জনসাধারণের সহিত ব্যবহারের’ পরিবর্তে ‘সেবাগ্রহীতার সঙ্গে ব্যবহার’ সংযুক্ত করা হয়েছে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় জানায়, এ অনুশাসনমালা জারির পর থেকে যারা গোপনীয় অনুবেদন জমা দেবেন তাদেরকে নতুন ফরম পূরণ করে বার্ষিক গোপনীয় অনুবেদন দাখিল করতে হবে। যারা অনুশাসনমালাটি জারির আগেই এ বছরের গোপনীয় অনুবেদন জমা দিয়েছেন অথবা স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রতিবেদন গ্রহণ করেছেন তাদেরকে নতুন ফরমে জমা দেওয়ার প্রয়োজন নেই।

জারি হওয়া নতুন অনুশাসনমালা ও ফরমটি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট (www.mopa.gov.bd)  থেকে ডাউনলোড করা যাবে।

নিয়মানুযায়ী, বছর শেষে পরবর্তী বছরের ৩১ জানুয়ারির মধ্যে নিজস্ব কর্মকাণ্ড মূল্যায়নের জন্য একটি বার্ষিক গোপনীয় অনুবেদন (এসিআর) তৈরি করেন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

প্রতিবেদন তৈরির পর তা নিয়ন্ত্রণকারী কর্মকর্তা বা অনুবেদনকারী কর্মকর্তার স্বাক্ষরের জন্য জমা দেবেন। অনুবেদনকারী কর্মকর্তা স্বাক্ষর করে পরবর্তী ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে তা প্রতিস্বাক্ষরকারী কর্মকর্তার কাছে জমা দেবেন। প্রতিস্বাক্ষরকারী কর্মকর্তা ৩১ মার্চের মধ্যে নথিপত্র স্বাক্ষরের মাধ্যমে সিলগালা করা খামে গোপনীয় এ অনুবেদন সংরক্ষণকারী কর্তৃপক্ষ বা ডোসিয়ারের দপ্তরে পাঠাবেন।

জাতীয় বিভাগের আরো খবর
১১ এপ্রিল যেসব ইউনিয়নে ভোট

১১ এপ্রিল যেসব ইউনিয়নে ভোট

করোনার টিকা নিলেন প্রধানমন্ত্রী

করোনার টিকা নিলেন প্রধানমন্ত্রী

৩৭১ ইউপি ও ১১ পৌরসভায় ভোট ১১ এপ্রিল (তালিকা)

৩৭১ ইউপি ও ১১ পৌরসভায় ভোট ১১ এপ্রিল (তালিকা)

৪০ বছরের কম বয়সীরা আপাতত টিকা পাচ্ছেন না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

৪০ বছরের কম বয়সীরা আপাতত টিকা পাচ্ছেন না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

৪ অতিরিক্ত সচিবের দফতর বদল

৪ অতিরিক্ত সচিবের দফতর বদল

পুলিশ জনগণের সেবক, কারও প্রতিপক্ষ নয়: আইজিপি

পুলিশ জনগণের সেবক, কারও প্রতিপক্ষ নয়: আইজিপি