ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই, ২০২০, ২৫ আষাঢ় ১৪২৭

ইউরোপ থেকে আসা বাংলাদেশের করোনা ভাইরাসটি দুর্বল?


গো নিউজ২৪ | নিউজ ডেস্ক প্রকাশিত: জুন ২৯, ২০২০, ১০:০১ পিএম
ইউরোপ থেকে আসা বাংলাদেশের করোনা ভাইরাসটি দুর্বল?

গত জুন মাস থেকে বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি মোটামুটি একই রকম। শতকরা হিসেবে ২০ থেকে ২২ শতাংশের মধ্যে থাকছে শনাক্তের হার। আজ ১৮ হাজারের বেশি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে এবং সেখানে ৪ হাজারের কম রোগী শনাক্ত হয়েছে, যা শতকরা হিসেবে ২১ ভাগের সামান্য বেশি।

অর্থাৎ অন্যান্য দেশগুলোতে যখন ৩ হাজার অতিক্রম করেছে, তখন ৩ হাজার থেকে ৫ হাজারে পৌঁছাতে সময় নেয়নি। ১ সপ্তাহের ভেতর সংক্রমণ ৩ হাজার থেকে ৫ হাজার হয়েছে, ৫ হাজার থেকে ১০ হাজারেও দ্রুত পৌঁছেছে।

কিন্তু বাংলাদেশের ক্ষেত্রে এই বিষয়টিতে ব্যতিক্রম দেখা যাচ্ছে। একই সঙ্গে আরেকটি ব্যতিক্রম হচ্ছে বাংলাদেশ আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ অতিক্রম করলেও এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে করোনায় মৃত্যু হার তেমন উদ্বেগজনক নয়। বাংলাদেশে এখনো করোনায় মৃত্যুহার ১.৫ শতাংশের নিচে অবস্থান করছে। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে ২৪ ঘন্টায় মৃত্যুর সংখ্যা ৪০ থেকে ৫০ এর মধ্যে ঘোরাফেরা করছে। 

যখন বাংলাদেশে প্রতি ২৪ ঘন্টায় করোনা সংক্রমণ ৩ হাজার অতিক্রম করেছিল তখন অনেক বিশেষজ্ঞ বলেছিলেন যে এরপরে ৫ হাজার এবং সেখান থেকে ৮ হাজারে পৌঁছাবে। তবে বিশেষজ্ঞদের এই ভবিষ্যৎবাণী ভুল প্রমাণিত হয়েছে। অনেক বিশেষজ্ঞ আবার বলেছিলেন যে, আক্রান্ত বাড়লে মৃত্যু বাড়বে। তবে দেখা যাচ্ছে যে, আক্রান্ত বাড়লেও সেভাবে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়েনি।

তাহলে প্রশ্ন উঠেছে যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বা ইউরোপে যেভাবে করোনা তাণ্ডব দেখিয়েছে, বাংলাদেশে সেরকম হচ্ছেনা কেন? 

বাংলাদেশে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে, কিন্তু চিকিৎসা ছাড়াই বহু রোগী সুস্থ হয়ে উঠছে এবং মৃদু উপসর্গবাহী রোগীর সংখ্যা বেশি এবং এই কারণে বাংলাদেশে মৃতের সংখ্যাও কম। এজন্যে একটি প্রশ্ন উঠেছে যে, তাহলে কি বাংলাদেশের করোনা ভাইরাসটি দুর্বল?

বিভিন্ন দেশের করোনাভাইরাসের জিনোম সিকোয়েন্স নিয়ে গবেষণা চলছে। বাংলাদেশেও কয়েকটি প্রতিষ্ঠান করোনাভাইরাসের জিনোম সিকোয়েন্স নিয়ে গবেষণা করছে।

চাইল্ড হেলথ রিসার্স ফাউন্ডেশন এখন পর্যন্ত প্রায় ৬ হাজার করোনাভাইরাসের জিনোম সিকোয়েন্স করেছে এবং তাতে দেখা যাচ্ছে সবগুলো ভাইরাস প্রায় একইরকম রয়েছে। এতে তাঁরা মনে করছেন যে, বাংলাদেশে করোনাভাইরাসটি ইউরোপ থেকে এসেছে।

আবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে করোনার যে জিনোম সিক্কোয়েন্স করা হয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ভাইরাসটি এসেছে চীন থেকে। ইউরোপের করোনার যে জিনোম সিকোয়েন্সগুলো করা হয়েছে সেখানেও দেখা গেছে যে, সেই ভাইরাসটি এসেছে চীন থেকে। চীন থেকে যে ভাইরাসগুলো এসেছে সেগুলো কি শক্তিশালী? আর ইউরোপ থেকে আসা ভাইরাসগুলো কি কম শক্তিশালী? 

এই নিয়ে কাজ করা অণুজীব বিজ্ঞানীরা বলছেন যে, এরকম কোন বিজ্ঞানভিত্তিক কারণ নেই। কারণ বাংলাদেশের ভাইরাসটি ইউরোপ থেকে এসেছে। ইউরোপে করোনা ভয়াবহ তাণ্ডব দেখিয়েছে। সেখানে প্রচুর মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছে। অবশ্য এর একটি ব্যাখ্যা দিয়েছে বিশেষজ্ঞরা। তাঁরা বলছেন যে, ইতালিতে মৃত্যুহার বেশি হওয়ার কারণ গীর্জা এবং বৃদ্ধাশ্রমে করোনা সংক্রমণ বেশি। আমাদের দেশে তরুণদের সংখ্যা বেশি এবং প্রবীণরা বাসায় থাকেন, সুরক্ষিত থাকেন এবং তাঁদের প্রতি যত্ন নেওয়া হয় ফলে তাঁরা কম মৃত্যুবরণ করেছে।

কিন্তু চীন থেকে সরাসরিভাবে যে ভাইরাসগুলো ইতালি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বা ব্রাজিলে গেছে সেই ভাইরাসগুলো যে শক্তিশালী দাপট দেখাচ্ছে, সেরকম দাপট ইউরোপ থেকে আসা ভাইরাস দেখাতে পারছে না বলে কেউ কেউ মনে করছেন। যদিও এটার পেছনে বিজ্ঞানভিত্তিক কোন প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

বিজ্ঞানভিত্তিক প্রমাণ পাওয়া না গেলেও দেখা যাচ্ছে যে, ভারতে যেমন ভাইরাসটি এসেছে সরাসরি চীন থেকে, তাই ভারতে করোনা ভাইরাস ভয়াবহ তাণ্ডব দেখাচ্ছে। আর বাংলাদেশে এই ভাইরাসে প্রতিদিন রোগীর সংখ্যা বাড়ছে, আর যত না রোগী তাঁর থেকে উপসর্গহীন রোগীর সংখ্যা বেশি। কিন্তু বাংলাদেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মুমূর্ষু অবস্থায় চলে যাওয়া বা হুহু করে বাড়তে থাকা মৃত্যুর হার নেই।

তাহলে প্রশ্ন উঠেছে যে, বাংলাদেশে ইউরোপ থেকে যে করোনাভাইরাসটি এসেছে তা কি দুর্বল? এই প্রশ্নের উত্তরের জন্য আরো গবেষণা বলে মনে করছেন অণুজীব বিজ্ঞানী এবং বিশেষজ্ঞরা।

গোনিউজ২৪/এন

জাতীয় বিভাগের আরো খবর
ফের বন্যাকবলিত হবে ২৩ জেলা: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

ফের বন্যাকবলিত হবে ২৩ জেলা: ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী

এমপি পাপুল কুয়েতের নাগরিক নন

এমপি পাপুল কুয়েতের নাগরিক নন

রিজেন্ট চেয়ারম্যানের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

রিজেন্ট চেয়ারম্যানের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

চোর ধরেই যেন আমরা চোর হয়ে যাচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী

চোর ধরেই যেন আমরা চোর হয়ে যাচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী

২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৪১ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩৩৬০

২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৪১ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৩৩৬০

রিজেন্ট হাসপাতালের মিরপুর শাখাও সিলগালা

রিজেন্ট হাসপাতালের মিরপুর শাখাও সিলগালা