ঢাকা সোমবার, ২৬ আগস্ট, ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬

বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, স্বাধীনতাকামী মানুষের পাশে থাকবে বাংলাদেশ


গো নিউজ২৪ | গো নিউজ ডেস্ক: প্রকাশিত: আগস্ট ১৪, ২০১৯, ১০:৩৩ পিএম আপডেট: আগস্ট ১৪, ২০১৯, ১০:৫৫ পিএম
বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, স্বাধীনতাকামী মানুষের পাশে থাকবে বাংলাদেশ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৩ সালে জোট নিরপেক্ষ আন্দোলন-ন্যাম সম্মেলনে যোগ দিতে আলজেরিয়া সফরে যান।

সেই সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু উপস্থিত সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, বিশ্বের শান্তি প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশ ভূমিকা রাখতে চায়।

যে তিনজন বিশ্বখ্যাত নেতার সহায়তায় ন্যাম গড়ে উঠেছে, সেই যুগস্লাভিয়ার প্রেসিডেন্ট জোসিপ ব্রজ টিটো, মিশরের প্রেসিডেন্ট জামাল আবদেল নাসের এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী পণ্ডিত জওহরলাল নেহেরুর প্রতি শ্রদ্ধা জানান বঙ্গবন্ধু।

এই সম্মেলনের সময় পণ্ডিত জওহরলাল নেহেরু ও জামাল আবদেল নাসের বেঁচে না থাকলেও মার্শাল টিটো এবং নেহেরু-কন্যা ইন্দিরা গান্ধী সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

আলজেরিয়া-ভিয়েতনামসহ সারাবিশ্বের বিভিন্ন দেশের এবং বাংলাদেশের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বঙ্গবন্ধু বলেন, বাংলাদেশ সব সময় আফ্রিকা-এশিয়া-ল্যাটিন আমেরিকার স্বাধীনতাকামী দেশগুলোর পাশে থাকবে। 

আলজেরিয়ার বীর জনগণকে স্যালুট জানিয়ে তিনি বলেন, তাদের বিজয় সারাবিশ্বের স্বাধীনতাকামী মানুষের জন্য অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে।

তিনি বলেন, বিশ্ব মূলত দুই ভাগে বিভক্ত- শোষক ও শোষিত। যারা শোষকদের সমর্থন করে আর যারা শোষিতকে সমর্থন করে। আমি পরিষ্কার ভাষায় বলে দিতে চাই, যারা শোষিত এবং যারা শোষণ থেকে মুক্তির জন্য সংগ্রাম করছে এমন মানুষের পাশে আছে, আমরাও তাদের পাশে থাকতে চাই। 

সম্মেলনের পরে ইন্দিরা গান্ধী, মার্শাল টিটো, ফিদেল কাস্ত্রোসহ বিশ্বের বিভিন্ন শীর্ষ নেতার সাথে বৈঠক করেন বঙ্গবন্ধু।

এই সফর নিয়ে বিস্তারিত ভিডিও রয়েছে বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভের সংগ্রহে। সময় সংবাদের পাঠকদের জন্য তা এখানে দেয়া হলো। 

দেখুন ভিডিওটি:

গো নিউজ২৪/জাবু

জাতীয় বিভাগের আরো খবর
খাগড়াছড়িতে সেনাবাহিনীর সাথে গোলাগুলি, নিহত ৩

খাগড়াছড়িতে সেনাবাহিনীর সাথে গোলাগুলি, নিহত ৩

ডেঙ্গু কেড়ে নিল আরো একটি স্বপ্ন

ডেঙ্গু কেড়ে নিল আরো একটি স্বপ্ন

নুসরাত হত্যাকাণ্ড: মাদ্রাসা কমিটির অবহেলা পায়নি তদন্ত কমিটি

নুসরাত হত্যাকাণ্ড: মাদ্রাসা কমিটির অবহেলা পায়নি তদন্ত কমিটি

চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে মেয়র সাঈদ

চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে মেয়র সাঈদ

৫ দফা দাবিতে লাখো রোহিঙ্গার সমাবেশ

৫ দফা দাবিতে লাখো রোহিঙ্গার সমাবেশ

বিয়ের কাবিননামায় কুমারী শব্দ আর থাকছে না

বিয়ের কাবিননামায় কুমারী শব্দ আর থাকছে না