ঢাকা সোমবার, ২৬ আগস্ট, ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬

রিফাত হত্যার নতুন ক্লু!


গো নিউজ২৪ | নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশিত: জুলাই ২৪, ২০১৯, ০৩:১৯ পিএম আপডেট: জুলাই ২৪, ২০১৯, ০৯:১৯ এএম
রিফাত হত্যার নতুন ক্লু!

বরগুনার চাঞ্চল্যকর রিফাত হত্যা মামলার তদন্তভার পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনে (পিবিআই) হস্তান্তরের দাবি জানিয়েছেন তার শ্বশুর মোজাম্মেল হোসেন কিশোর। একই সঙ্গে হত্যাকাণ্ডের কারণ সম্পর্কে নতুন তথ্য দিয়েছেন তিনি।

বুধবার দুপুরে বরগুনা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন লিখিত বক্তব্যে রিফাতের শ্বশুর মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোর বলেন, হত্যাকাণ্ডের আগে রিফাতের সঙ্গে বরগুনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. দেলোয়ার হোসেনের স্ত্রী সামসুন্নাহার খুকির বাকবিতণ্ডা হয়। বাকবিতণ্ডার বিষয়টি সামসুন্নার খুকি তার বোনের ছেলে দুই রিফাত ফরাজী ও রিশান ফরাজীর কাছে নালিশ করেন।

যেদিন হত্যাকাণ্ডটি সংগঠিত হয়, সেদিন রিফাত ও রিশান ফরাজী বলেছিল, তুই আমার মাকে গালাগাল করেছিস। আমার চোখের দিকে তাকিয়ে কথা বল।

রিফাত ও রিশান ফরাজী সামসুন্নাহার খুকিকে মা বলে ডাকতেন জানিয়ে মোজাম্মেল হোসেন কিশোর বলেন, আমার ধারণা বাকবিতণ্ডার প্রতিশোধ নিতেই রিফাত ও রিশান ফরাজী রিফাত শরীফকে হত্যার পরিকল্পনা করে ও হত্যাকাণ্ডের অগ্রভাগে থাকে।

 সংবাদ সম্মেলনে মিন্নির বাবা মোজাম্মেল

মসুন্নাহার খুকির সঙ্গে রিফাত শরীফের বাকবিতণ্ডার বিষয়টি রিফাত শরীফ ও মিন্নি তাকে জানিয়েছিলেন বলেও জানান তিনি।

এদিকে মিন্নিকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে পুলিশ জবানবন্দি নিয়েছে এমন অভিযোগ করে মিন্নির বাবা বলেন, প্রভাবশালী মহলকে বাঁচাতে পুলিশ আমার মেয়ে মিন্নিকে ফাঁসাচ্ছে। তাই এ মামলার তদন্ত পিবিআইতে হস্তান্তরের আবেদন জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ জুন প্রকাশ্য দিবালোকে বরগুনা সরকারি কলেজ রোডে স্ত্রী মিন্নির সামনে কুপিয়ে জখম করা হয় রিফাত শরীফকে। পরে বরিশাল শেরে-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রিফাতের মৃত্যু হয়। হত্যাকাণ্ডের প্রধান অভিযুক্ত নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন। এরমধ্যে কয়েকজন আসামিও গ্রেফতার হন।

এদিকে, ১৬ জুলাই সকালে বরগুনার মাইঠা এলাকার বাবার বাসা থেকে মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বরগুনার পুলিশ লাইনে নিয়ে আসা হয়। সেখানে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রিফাত হত্যাকাণ্ডে মিন্নির সম্পৃক্ততার প্রাথমিক প্রমাণ পাওয়ায় ওইদিন রাতে মিন্নিকে গ্রেফতার দেখায় পুলিশ। পরদিন বিকেলে মিন্নিকে আদালতে হাজির করে সাতদিন রিমান্ডের আবেদন করে পুলিশ।  শুনানি শেষে বরগুনার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সিরাজুল ইসলাম গাজী পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।  রিমান্ডের দ্বিতীয় দিনে ১৯ জুলাই বরগুনা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সিরাজুল ইসলাম গাজীর আদালতে মিন্নি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। পরে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।

গো নিউজ২৪/এমআর

জাতীয় বিভাগের আরো খবর
খাগড়াছড়িতে সেনাবাহিনীর সাথে গোলাগুলি, নিহত ৩

খাগড়াছড়িতে সেনাবাহিনীর সাথে গোলাগুলি, নিহত ৩

ডেঙ্গু কেড়ে নিল আরো একটি স্বপ্ন

ডেঙ্গু কেড়ে নিল আরো একটি স্বপ্ন

নুসরাত হত্যাকাণ্ড: মাদ্রাসা কমিটির অবহেলা পায়নি তদন্ত কমিটি

নুসরাত হত্যাকাণ্ড: মাদ্রাসা কমিটির অবহেলা পায়নি তদন্ত কমিটি

চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে মেয়র সাঈদ

চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে মেয়র সাঈদ

৫ দফা দাবিতে লাখো রোহিঙ্গার সমাবেশ

৫ দফা দাবিতে লাখো রোহিঙ্গার সমাবেশ

বিয়ের কাবিননামায় কুমারী শব্দ আর থাকছে না

বিয়ের কাবিননামায় কুমারী শব্দ আর থাকছে না