ঢাকা রবিবার, ০৭ জুন, ২০২০, ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

‘জয় শ্রী রাম’ বলেও শেষ রক্ষা হলো না আনসারীর


গো নিউজ২৪ | নিউজ ডেস্ক: প্রকাশিত: জুন ২৪, ২০১৯, ০৪:৩০ পিএম আপডেট: জুন ২৪, ২০১৯, ০৪:৩৩ পিএম
‘জয় শ্রী রাম’ বলেও শেষ রক্ষা হলো না আনসারীর

ভারতের ঝাড়খন্ড প্রদেশে এক মুসলিম যুবককে প্রকাশ্যে বেধড়ক পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। মারধরের সময় তাকে ‘জয় শ্রী রাম’ ও ‘জয় হনুমান’ বলতে বলা হলে তা বলেও নিজের জীবন বাঁচাতে পারেনি ওই যুবক। 

মারধরের পর তাকে পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়। সেখানে চার দিন থাকার পর ভীষণ অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃত্যু হয় তার।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া ট্যুডের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, নির্মমভাবে পিটুনি খেয়ে হত্যার শিকার ২৪ বছর বয়সী তাবরিজ আনসারীকে চোর বলে অভিহত করে টানা আঠারো ঘণ্টা মারধরের পর পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়।

খারশাওয়ান জেলায় গত ১৮ জুন ঘটেছে এই মর্মান্তিক ঘটনা। নিহত যুবক প্রদেশের খারশাওয়ান জেলার বাসিন্দা। নির্মম নির্যাতনের শিকার ওই যুবককে আহত অবস্থায় টানা চারদিন জেল হাজতে রাখা হয়। হাজতে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে গত ২২ জুন স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

নির্মম ওই ঘটনা এবং মারধরের বেশ কয়েকটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর অনেকেই ঘটনার নিন্দা জানিয়ে দোষীদের শাস্তির দাবি করছেন। বিশেষ করে ভারতের মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ তীব্র প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন।

তাবরিজ আনসারী পুনেতে শ্রমিকের কাজ করেন। পারিবারের সঙ্গে ঈদ পালনের জন্য গত রমজানে তিনি বাড়ি আসেন। ঈদ শেষ হলেও তিনি পুনেতে তার কর্মস্থলে ফিরে যাননি কারণ বাড়িতে তার বিয়ের আয়োজন চলছিল। ঘটনার দিন রাতে আরও দুজন তার সঙ্গে ছিল।

গো নিউজ২৪/আই

আন্তর্জাতিক বিভাগের আরো খবর
ফিলিস্তিনের পক্ষে ইসরায়েলিদের বিক্ষোভ

ফিলিস্তিনের পক্ষে ইসরায়েলিদের বিক্ষোভ

অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন উৎপাদনের চূড়ান্ত প্রস্তুতি শুরু

অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন উৎপাদনের চূড়ান্ত প্রস্তুতি শুরু

আগের তুলনায় অনেক বেড়েছে করোনার গতি

আগের তুলনায় অনেক বেড়েছে করোনার গতি

করোনায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত-মৃত্যু দেশগুলো

করোনায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত-মৃত্যু দেশগুলো

ভারতে টানা চতুর্থদিন সর্বোচ্চ করোনা আক্রান্ত

ভারতে টানা চতুর্থদিন সর্বোচ্চ করোনা আক্রান্ত

করোনায় আক্রান্ত ৬৪ লাখ, মৃত্যু ৩ লাখ ৮৫ হাজার

করোনায় আক্রান্ত ৬৪ লাখ, মৃত্যু ৩ লাখ ৮৫ হাজার