ঢাকা রবিবার, ২৪ মার্চ, ২০১৯, ১০ চৈত্র ১৪২৫

কিমের সঙ্গে এত দেহরক্ষী কেন?


গো নিউজ২৪ | আর্ন্তজাতিক ডেস্ক প্রকাশিত: জুন ১২, ২০১৮, ০৯:২০ এএম
কিমের সঙ্গে এত দেহরক্ষী কেন?

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন যেখানেই যান না কেন, তাকে ঘিরে বলয় তৈরি করে দৌড়াতে থাকেন সুদর্শন এবং সুসজ্জিত একদল দেহরক্ষী। যাদেরকে ‘সেন্ট্রাল পার্টি অফিস-সিক্স’ নামে ডাকা হয়। সরকারি কাগজপত্রে উল্লেখ করা হয় ‘মেইন অফিস অ্যাডজুট্যান্টস’ বলে।

কিন্তু কেবল চোখ ধাঁধানোর জন্যই এদের রাখা হয়েছে ভাবলে ভুল হবে। উত্তর কোরিয়া তাদের নেতার নিরাপত্তার ব্যাপারে কোন রকমের ঝুঁকি নিতেই রাজী নয়। তাই কিমের একেবারে খুব কাছে তাকে ঘিরে একটি বৃত্ত তৈরি করে রাখেন এইসব রহস্যময় দেহরক্ষীরা।

জানা গেছে, কোরিয়ান পিপলস আর্মির বাছাই করা সদস্যদের নিয়ে তৈরি করা হয় এই দেহরক্ষী দল। তাদের দৃষ্টিশক্তি হতে হবে প্রখর, চোখে সমস্যা থাকলে চলবে না। কত দ্রুত এবং নিখুঁতভাবে বন্দুকের গুলি চালিয়ে লক্ষ্যভেদ করতে পারেন তারা। এর পাশাপাশি দেখা হয় মার্শাল আর্টে তাদের দক্ষতা।

দেহরক্ষী হিসেবে বাছাই করার আগে তার এবং পুরো পরিবারের কয়েক প্রজন্মের ব্যাকগ্রাউন্ড ভালোভাবে যাচাই করা হয়। কোরিয়ান পিপলস আর্মির স্পেশাল অপারেশন ফোর্সেস এর সদস্যদের যে ধরণের প্রশিক্ষণের ভেতর দিয়ে যেতে হয়, এই দেহরক্ষীদেরও সেই একই প্রশিক্ষণ দেয়া হয়।

কিম জং আনকে ঘিরে সাধারণত একটি বৃত্ত তৈরি করে রাখেন দেহরক্ষীরা। যেসব লোকজন কিমের কাছাকাছি থাকেন, তাদের সারাক্ষণ নজরে রাখেন এরা। তিনি যখন গাড়িতে থাকেন, এরা আগে আগে এবং পাশাপাশি দৌড়াতে থাকে। আর তার সঙ্গে থাকে চার থেকে ছ’জন দেহরক্ষী। উত্তর কোরিয়ায় কিম জং আনের কাছাকাছি থাকা লোকজনের মধ্যে এই দেহরক্ষী দলের সদস্যরাই একমাত্র সেমি-অটোমেটিক হ্যান্ডগান বহন করতে পারে।

তবে দেহরক্ষীদের দ্বিতীয় একটি দল আছে, যার নাম গার্ড কমান্ড। এরা কিমের চারপাশে দ্বিতীয় ধাপের নিরাপত্তা বলয় তৈরি করে। সাধারণ কিম জং আন যখন কোন জায়গায় যান, সেই জায়গাটিকে তার জন্য নিরাপদ করা এদের কাজ। কিমের জন্য পানীয়, খাবার, সিগারেট থেকে শুরু করে তার যা যা চাহিদা, সেগুলোও তাদের মেটাতে হয়।

সিঙ্গাপুরে কিমের সাম্প্রতিক সফরের সময় দেখা গেছে, তার সঙ্গে উত্তর কোরিয়া থেকে তিনটি বিমান এসেছিল। সেখানে একটি বিমান ভর্তি ছিল এই গার্ড কমান্ডের লোকজন। এরা মিস্টার কিমের জন্য গোপন ও সুরক্ষিত টেলিফোন লাইনের ব্যবস্থা করা থেকে শুরু করে তার কম্পিউটার এবং আইটি সুবিধা জোগানো, সব কিছুই করে থাকে। দলে থাকেন মিস্টার কিমের ব্যক্তিগত চিকিৎসকও। সূত্র: বিবিসি বাংলা

গো নিউজ২৪/এমআর

আন্তর্জাতিক বিভাগের আরো খবর
মসজিদে নিহতদের পরিবারকে ১০ লাখ ডলার দেবেন প্রিন্স তালাল

মসজিদে নিহতদের পরিবারকে ১০ লাখ ডলার দেবেন প্রিন্স তালাল

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে ইসলাম গ্রহণের আহ্বান

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীকে ইসলাম গ্রহণের আহ্বান

মালিতে বন্দুকধারীদের হামলা, ১০০ জনের মৃত্যু

মালিতে বন্দুকধারীদের হামলা, ১০০ জনের মৃত্যু

আইএস খেলাফতের পতন, খোঁজ নেই বাগদাদির

আইএস খেলাফতের পতন, খোঁজ নেই বাগদাদির

নিউজিল্যান্ডের জাতীয় প্রতীকে নামাজরত মুসল্লি

নিউজিল্যান্ডের জাতীয় প্রতীকে নামাজরত মুসল্লি

ভারতে ঘরে ঢুকে মুসলিম পরিবারকে নির্যাতন (ভিডিও)

ভারতে ঘরে ঢুকে মুসলিম পরিবারকে নির্যাতন (ভিডিও)