ঢাকা বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৫ পৌষ ১৪২৫

সিরিয়া ইস্যুতে সমালোচনার মুখে টেরিজা মে   


গো নিউজ২৪ | আর্ন্তজাতিক ডেস্ক প্রকাশিত: এপ্রিল ১৫, ২০১৮, ১১:৫৩ এএম
সিরিয়া ইস্যুতে সমালোচনার মুখে টেরিজা মে   

পার্লামেন্টের অনুমোদন ছাড়াই সিরিয়ায় হামলা করায় তীব্র সমালোচনায় পড়েছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে। সিরিয়ায় রাসায়নিক হামলার অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্সের সঙ্গে যুক্ত হয়ে এই বিমান হামলা চালায় যুক্তরাজ্য।

সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান বলছে, সিরিয়ার হোমস শহরে একটি সেনাঘাঁটিতে হামলা চালানো হয়। ধারণা করা হয়, এই ঘাঁটিতে বাশার আল-আসাদ রাসায়নিক অস্ত্র মজুদ রেখেছেন। মানবিক কারণে এ হামলা চালানো হয়েছে বলে জানান টেরিজা মে।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় এক বিবৃতিতে জানায়, সিরিয়ায় হামলায় যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্সের নেতাদের সমর্থনকে টেরিজা মে স্বাগত জানান। রাসায়নিক অস্ত্রের ব্যবহার বন্ধ এবং বৈশ্বিক আইন রক্ষা করাই হামলার উদ্দেশ্য। এ ছাড়া রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার কখনই যাতে স্বাভাবিক না হয়, সেটাও এ হামলার মাধ্যমে বোঝানো হবে।

লেবার পার্টির পার্লামেন্ট সদস্য (এমপি) জন উডকক জানান, সিরিয়ায় হামলা চালানো ছিল প্রশ্নবিদ্ধ। যে কারণে প্রধানমন্ত্রী সোমবার পার্লামেন্টের জন্য অপেক্ষা করেননি। তিনি বলেন, আমাদের মিত্র দেশগুলোর সঙ্গে ওই হামলায় যোগ দিয়েছে যুক্তরাজ্য। তবে প্রধানমন্ত্রীকে অবশ্যই এ ব্যাপারে ব্যাখ্যা দিতে হবে, কেন তিনি আগে থেকে ভোটাভুটি করে সিদ্ধান্ত নেননি।

স্কটল্যান্ডের ফার্স্ট মিনিস্টার নিকোলা স্টারজন এ হামলার নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছাতেই এ হামলা চালানো হয়েছে। গ্রিন পার্টির নেতা লুকাস ও জনাথান বার্টলে বলেন, মে সংসদীয় গণতন্ত্রকে পদদলিত করেছেন।

গো নিউজ২৪/এমআর

 

আন্তর্জাতিক বিভাগের আরো খবর
অস্ট্রেলিয়ার সমুদ্রে ডুবে ২ বাংলাদেশির মৃত্যু

অস্ট্রেলিয়ার সমুদ্রে ডুবে ২ বাংলাদেশির মৃত্যু

‘নগ্ন’ প্রতিবাদ!

‘নগ্ন’ প্রতিবাদ!

ভোট পর্যবেক্ষণে প্রতিনিধি পাঠাবে ভারত 

ভোট পর্যবেক্ষণে প্রতিনিধি পাঠাবে ভারত 

ঢাকাস্থ কূটনীতিকরা যেভাবে পর্যবেক্ষণ করবেন নির্বাচন

ঢাকাস্থ কূটনীতিকরা যেভাবে পর্যবেক্ষণ করবেন নির্বাচন

ব্রাসেলসে ক্ষোভকারীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ

ব্রাসেলসে ক্ষোভকারীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ

৬৮ লাখ ফেসবুক গ্রাহকের ব্যক্তিগত ছবি ফাঁস!

৬৮ লাখ ফেসবুক গ্রাহকের ব্যক্তিগত ছবি ফাঁস!