ঢাকা রবিবার, ২১ অক্টোবর, ২০১৮, ৬ কার্তিক ১৪২৫
Sharp AC

ট্রাম্পের ‍‍`বর্ণবাদী মন্তব্যের‍‍` বিরুদ্ধে বিশ্ব জুড়ে নিন্দার ঝড়


গো নিউজ২৪ | আন্তর্জাতিক ডেস্ক প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৩, ২০১৮, ০৯:২৯ এএম
ট্রাম্পের ‍‍`বর্ণবাদী মন্তব্যের‍‍` বিরুদ্ধে বিশ্ব জুড়ে নিন্দার ঝড়
Sharp AC

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প হেইতি, এল সালভাডর এবং আফ্রিকার কিছু দেশকে খুবই স্থূল ভাষায় বর্ণনা করেছেন বলে অভিযোগের পর এর বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা জানিয়েছে জাতিসংঘ সহ বিভিন্ন দেশ।

হোয়াইট হাউসে কংগ্রেস সদস্যদের সঙ্গে অভিবাসন নীতি নিয়ে এক বৈঠকের সময় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এসব দেশকে 'শিটহোল' বা 'পায়খানার গর্তে'র সঙ্গে তুলনা করেন বলে খবর দেয় মার্কিন গণমাধ্যম।

এ নিয়ে বিশ্বজুড়ে ব্যাপক নিন্দা এবং প্রতিবাদ শুরু হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প অবশ্য এরকম শব্দ ব্যবহারের কথা অস্বীকার করছেন।

কিন্তু ঐ বৈঠকে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের ডেমোক্রেট দলীয় একজন সেনেটর ডিক ডারবিন দাবি করছেন, তিনি প্রেসিডেন্টকে বর্ণবাদী শব্দ ব্যবহার করতে শুনেছেন। তিনি শুধু একবার নয়, কয়েকবার এই শব্দটি ব্যবহার করেছেন। তিনি কিছু আফ্রিকান দেশকে 'শিটহোল' বলে বর্ণনা করেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের নামকরা সংবাদপত্র নিউ ইয়র্ক টাইমস, ওয়াশিংটন পোস্ট এবং ওয়াল স্ট্রীট জার্নাল সহ অনেক সংবাদপত্রেই বৃহস্পতিবার এই খবর প্রকাশিত হয়। এর কোন প্রতিবাদ হোয়াইট হাউজ থেকে করা হয়নি।

সেনেটর ডিক ডারবিন বলেন, "আমি বিশ্বাস করতে পারছি না যে গতকাল প্রেসিডেন্ট যে শব্দগুলো সেখানে ব্যবহার করেছেন, হোয়াইট হাউসের ইতিহাসে, ঐ ওভাল অফিসে বসে এর আগে কখনো কোন প্রেসিডেন্ট তা বলেছেন।"

অভিবাসন নিয়ে গতকাল রিপাবলিকান এবং ডেমোক্রেট দলীয় সেনেটরদের একটি দল একটি প্রস্তাব নিয়ে প্রেসিডেন্টের কাছে গিয়েছিলেন।

তখন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প নাকি তাদের বলেছিলেন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, যুদ্ধ বা এরকম বিপর্যয়ের শিকার দেশগুলোর মানুষদের আশ্রয় দেয়ার চেয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বরং উচিত নরওয়ের মত দেশ থেকে অভিবাসীদের আনা।

ওয়াশিংটন পোস্ট প্রেসিডেন্টকে সরাসরি উদ্ধৃত করে বলছে, এর পর তিনি বলেছেন, "এই সব 'শিটহোল' দেশ থেকে কেন লোকজনকে আমাদের দেশে আনতে হবে।"

সেনেটর ডারবিন বলেন, যখন প্রেসিডেন্টকে জানানো হয় যে 'টেম্পোরারি প্রটেকটেড স্ট্যাটাস' (টিপিএস) বা সাময়িক সুরক্ষা পাওয়া অভিবাসীদের বেশিরভাগই এল সালভাডর, হন্ডুরাস এবং হেইতির নাগরিক, তখন প্রেসিডেন্ট বলেছেন, 'হেইশিয়ান? আমাদের কি আসলে আরও হেইশিয়ানের কোন দরকার আছে"?

তবে শুক্রবার সকাল থেকেই ডোনাল্ড ট্রাম্প একের পর এক টুইট করে এরকম কথা বলার কথা অস্বীকার করতে থাকেন। তিনি বলেন, "আমি হেইতির মানুষ সম্পর্কে বাজে কিছু বলিনি।"

বোতসোয়ানা সেদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে ডেকে নিয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মন্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছেন, এসব কথাবার্তা চরম দায়িত্বহীন, নিন্দনীয় এবং বর্ণবাদী।"

আফ্রিকান ইউনিয়ন বলেছে, তারা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের মন্তব্য শুনে শংকিত।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক মুখপাত্র রুপার্ট কোলভিল বলেছেন, যদি প্রেসিডেন্ট এসব কথা সত্যিই বলে থাকেন সেটা স্তম্ভিত হওয়ার মতো এবং লজ্জাজনক। তিনি বলেন, এটাকে 'বর্ণবাদী' বলা ছাড়া আর কিছু বলার সুযোগ নেই।

আর যুক্তরাষ্ট্রে অশ্বেতাঙ্গ নাগরিকদের একটি সংগঠন 'ন্যাশনাল এসোসিয়েশেন ফর দ্য এডভান্সমেন্ট অব কালারড পিপল' বলেছে, প্রেসিডেন্ট দিনে দিনে আরও বেশি করে বর্ণবাদ আর বিদেশি বিদ্বেষের গর্তের গভীরে ঢুকে যাচ্ছেন।

কংগ্রেসের এক কৃষ্ণাঙ্গ সদস্য সেডরিক রিচমন্ড বলেছেন, প্রেসিডেন্ট যে আমেরিকাকে আবারও সেরা দেশে পরিণত করার নামে আসলে শ্বেতাঙ্গদের দেশে পরিণত করতে চাইছেন, এটা তার আরও একটা প্রমান।-বিবিসি

গো নিউজ২৪/এবি

আন্তর্জাতিক বিভাগের আরো খবর
দক্ষিণ আফ্রিকায় অগ্নিকাণ্ডে ৪ বাংলাদেশির মৃত্যু

দক্ষিণ আফ্রিকায় অগ্নিকাণ্ডে ৪ বাংলাদেশির মৃত্যু

বাংলা নিয়ে আপত্তি মোদির, কী করবেন মমতা

বাংলা নিয়ে আপত্তি মোদির, কী করবেন মমতা

 বিশ্বনবীকে নিয়ে যা বললেন মমতা ব্যানার্জী 

 বিশ্বনবীকে নিয়ে যা বললেন মমতা ব্যানার্জী 

খাশোগিকে হত্যার কথা স্বীকার করলো সৌদি

খাশোগিকে হত্যার কথা স্বীকার করলো সৌদি

ভারতে ট্রেন দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বাড়ছে

ভারতে ট্রেন দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বাড়ছে

পূজার ভিড়ে দর্শকদের ওপর দিয়ে চলে গেল ট্রেন, নিহত অর্ধশতাধিক

পূজার ভিড়ে দর্শকদের ওপর দিয়ে চলে গেল ট্রেন, নিহত অর্ধশতাধিক

Best Electronics AC mela