ঢাকা শনিবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২১, ৩০ আশ্বিন ১৪২৮

পুলিশের সামনেই বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা ৫ শিক্ষিকার


গো নিউজ২৪ | সংবাদ পত্রের পাতা থেকে প্রকাশিত: আগস্ট ২৫, ২০২১, ১২:২৬ এএম
পুলিশের সামনেই বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা ৫ শিক্ষিকার

ভারতের মুর্শিদাবাদে চাকরির সুবাদে এসএসকে ও এমএসকের ১৬ শিক্ষিকাকে অন্যত্র বদলি করার প্রতিবাদে পুলিশের সামনেই বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন পাঁচ শিক্ষিকা। মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) দুপুরে পশ্চিমবঙ্গের বিধাননগরের বিকাশ ভবনের সামনে শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ওই শিক্ষিকারা। গুরুতর অবস্থায় তাদের বিধাননগর হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে।

জানা গেছে, বিষপান কারা পাঁচ শিক্ষিকা “শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের” সদস্য। তারা শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের চুক্তিভিত্তিক শিক্ষিকা হিসেবে কর্মরত। চাকরির স্থায়ীকরণসহ একাধিক দাবিতে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছেন ওই শিক্ষিকারা। মূলত নবান্নের সামনে বিক্ষোভ করার কারণেই পাঁচজন শিক্ষিকাসহ ১৬ জনকে দক্ষিণবঙ্গ থেকে উত্তরবঙ্গে বদলির নির্দেশ দেয়া হয়।

বিক্ষোভ থেকে জানানো হয়, কখনও মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির কাছে, কখনও নবান্নে আবার কখনও শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর সামনে বিক্ষোভ করে আসছেন তারা। এ জন্য গ্রেফতারও হয়েছেন। তরাপরেও তাদের দাবি মানা হয় নাই। তাদের বার বার ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে।

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, তাদের বাড়ি থেকে ৬০০-৭০০ কিলোমিটার দূরে এক একজনকে বদলি করা হয়েছে। যা একেবারে অনৈতিক এবং বেআইনি।

তারা আরও জানায়, আমরা চুক্তিভিত্তিক শিক্ষিকা। নতুন শিক্ষানীতি কার্যকর হলে আমাদের চাকরি থাকবে না। তখন আমরা কই যাবো। আমাদের পথে বসা ছাড়া উপায় থাকবে না। তাই আমরা এখানে বিক্ষোভ করতে এসেছি। হয়তো মরবো না হয় বাঁচবো। আমাদের দাবি না মানা পর্যন্ত আমরা এখান থেকে যাবো না।

বিক্ষোভকারীরা আরও বলেন, আমাদের শান্তিপূর্ণ সমাবেশে পুলিশ এসে বাধা দেয়। এসময় আমাদের কিছু শিক্ষিকার ওপর হামলাও করে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, আমরা বিক্ষোভ কারিদের কোনো বাধা দেইনি। তাদের শুধু বলা হয়েছে এখান থেকে সরে যেতে। এর মধ্যে পাঁচজন বিষপান করেন। গুরুতর অবস্থায় পুলিশের সহয়তায় তাদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পরিবেশ শান্ত রাখার জন্য আমরা সর্বক্ষণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

খবর পেয়ে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু ঘটনাস্থলে আসেন। তিনি বলেন, আমরা বিক্ষোভককারীদের অভিযোগ শুনেছি। এনিয়ে রাজ্য সভায় কথা বলার পরে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। আপাতত পরিস্থিতি শান্ত রাখার জন্য সবাইকে অনুরোধ করা হয়েছে।

সংবাদপত্রের পাতা থেকে বিভাগের আরো খবর
অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী রোজীর অনলাইন প্রেমের ফাঁদ

অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী রোজীর অনলাইন প্রেমের ফাঁদ

যে কারণে আটক হন মুফতি ইব্রাহিম

যে কারণে আটক হন মুফতি ইব্রাহিম

একদিনে ৮০ লাখ টিকাদান যারা যেভাবে পাবেন

একদিনে ৮০ লাখ টিকাদান যারা যেভাবে পাবেন

টাকা রাখলে ‘হাশরের ময়দানে সুপারিশে’র আশ্বাস দেয় এহসান!

টাকা রাখলে ‘হাশরের ময়দানে সুপারিশে’র আশ্বাস দেয় এহসান!

অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার নতুন ফাঁদ ‘রিং আইডি’!

অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার নতুন ফাঁদ ‘রিং আইডি’!

আরো কিছু মাস প্রয়োজন ছিল: ইভ্যালি

আরো কিছু মাস প্রয়োজন ছিল: ইভ্যালি