ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২ ফাল্গুন ১৪২৭

করোনার টিকা নিয়ে একের পর এক সুখবর আসছে


গো নিউজ২৪ | নিউজ ডেস্ক প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১৯, ২০২০, ০৯:৩২ এএম
করোনার টিকা নিয়ে একের পর এক সুখবর আসছে

করোনার টিকা নিয়ে এক দিনেই বেশ কয়েকটি আশাব্যঞ্জক খবর পাওয়া গেল। যেমন, উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য বহুল প্রতীক্ষিত অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার নতুন পরীক্ষায় এটি নিরাপদ ও কার্যকর বলে প্রমাণ মিলেছে। ফলে আগামী মাসেই এটি অনুমোদন দেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছে যুক্তরাজ্য সরকার।

আরও সুখবর হচ্ছে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা দু'দিন আগেও উন্নয়নশীল দেশগুলোর টিকা পাওয়া নিয়ে হতাশার কথা শোনালেও গতকাল বলেছে, আগামী বছরের শুরুতেই তারা টিকা বিতরণ শুরু করতে যাচ্ছে। এদিকে বাংলাদেশের প্রতিবেশী ভারতে জানুয়ারিতেই টিকাদান শুরু হতে যাচ্ছে। বাংলাদেশে টিকা আসবে মূলত ভারত থেকে।

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা বলেছে, নতুন পরীক্ষার পর দেখা গেছে, প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর ক্ষেত্রে তাদের তৈরি টিকার সম্পূর্ণ দুটি ডোজই সবচেয়ে কার্যকর। বৃহস্পতিবার অক্সফোর্ড দাবি করেছে, শেষ পর্যায়ের যে পরীক্ষা করা হয়েছিল তাতে দুটি পদ্ধতি প্রয়োগ করা হয়েছিল। প্রথমে টিকার অর্ধেক ডোজ দেওয়া হয়, তারপর সম্পূর্ণ ডোজ প্রয়োগ করা হয়। দ্বিতীয় বার, দুটো সম্পূর্ণ ডোজ প্রয়োগ করা হয়েছিল। দেখা গেছে, প্রথমটির তুলনায় দ্বিতীয়টি অনেক বেশি কার্যকর।

অক্সফোর্ড আরও জানিয়েছে, প্রথম পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল পরীক্ষায় সম্পূর্ণ ডোজের বিষয়টি প্রয়োগ করা হয়েছিল। তখনও আশানুরূপ ফল মেলে। শেষ পর্যায়ের ট্রায়ালেও একই ফল মিলেছে। ফলে এই সম্পূর্ণ ডোজের বিষয়টির ওপরই এখন জোর দিতে চাইছে তারা।

এক বিবৃতিতে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা জানিয়েছে, এই টিকার যে বুস্টার ডোজ প্রয়োগ করা হয়েছিল, তাতে দেখা গেছে একটি ডোজের থেকে দুটি ডোজ অনেক বেশি প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে পারছে। এর পরই দুটি সম্পূর্ণ ডোজের বিষয়টি নিয়ে চিন্তাভাবনা শুরু করেছে অক্সফোর্ড।

দ্রুত টিকা পাচ্ছে গরিব দেশগুলো :বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা গতকাল শুক্রবার বলেছে, আগামী বছরের শুরুতেই কোভ্যাক্স সুবিধার আওতায় গরিব দেশগুলোকে টিকা দেওয়া শুরু হবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, গ্যাভি জোট ও মহামারি প্রস্তুতি উদ্ভাবন কোয়ালিশন (সিইপিআই) এক বিবৃতিতে বলেছে, কোভ্যাক্সে অংশ নেওয়া ১৯০টি দেশের জন্য তারা ২০০ কোটি ডোজ টিকা পাওয়া নিশ্চিত করেছে।

আগামী বছরের প্রথম প্রান্তিকেই তাদের টিকা বিতরণ শুরু হবে। এই জোট টিকা নেবে অ্যাস্ট্রাজেনেকা, জনসন অ্যান্ড জনসন, নোভোভ্যাক্স এবং সানোফি/জিএসকে থেকে। তবে তাদের টিকা এখনও কোনো দেশে অনুমোদন পায়নি।

ভারতে জানুয়ারিতে টিকাদান শুরুর আশা :ভারতে জানুয়ারি থেকে জনগণকে কভিডের টিকা দেওয়া শুরু হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন দেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা বলেছেন, একাধিক কোম্পানি ভারতে তাদের টিকার জরুরি অনুমোদনের আবেদন করেছে। আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই হয়তো তাদের কেউ ওষুধ নিয়ন্ত্রণ দপ্তরের অনুমোদন পেয়ে যাবে।

দুটি কোম্পানি এরই মধ্যে ভারতে তাদের কভিড টিকার অনুমোদন পেতে আবেদন করেছে। আরও ছয়টি কোম্পানির টিকা ক্লিনিক্যাল পরীক্ষার ?নানা ধাপে রয়েছে।

ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট ও তাদের অংশীদার ব্রিটিশ ওষুধ কোম্পানি অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা 'কভিশিল্ড' এবং ভারত বায়োটেক ও দ্য ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিসিন রিসার্চের (আইসিএমআর) আবিস্কার 'কভ্যাসিন' টিকা দুটি এরইমধ্যে কর্তৃপক্ষের কাছে অনুমোদনের জন্য আবেদন করেছে। এ দুটিসহ আরও যে ছয়টি টিকার নানা ধাপের 'ট্রায়াল' চলছে তার চারটিই দেশীয় কোম্পানির তৈরি বলেও জানান কর্মকর্তারা।

ভারতে জানুয়ারি থেকে আগস্টের মধ্যে ৩০ কোটি মানুষকে টিকা দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করা হয়েছে। দেশটির প্রায় এক কোটি স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ, সেনা সদস্য, পৌরকর্মী ছাড়াও মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সম্মুখসারিতে থাকা পেশাজীবীরা আগে টিকা পাবেন। প্রথম ধাপেই টিকা কেনার জন্য ১৮০ কোটি ডলার ব্যয় করবে ভারত সরকার।

যুক্তরাষ্ট্রে মডার্নার টিকা অনুমোদনে সুপারিশ এফডিএর :যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় টিকা হিসেবে মডার্নার টিকাকে জরুরি অনুমোদন দিতে সুপারিশ করেছে যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন (এফডিএ)। সেখানে ২০-০ ভোটে ১৮ বছর বা তার বেশি বয়সীদের মধ্যে ব্যবহারে টিকাটিকে ছাড়পত্র দেওয়ার পরামর্শ দেয়।

বিশেষজ্ঞদের এ সুপারিশের ফলে এফডিএ শিগগিরই টিকাটিকে জরুরি ব্যবহারের জন্য ছাড়পত্র দেবে বলে অনুমান পর্যবেক্ষকদের। সেক্ষেত্রে আগামী সপ্তাহ থেকেই যুক্তরাষ্ট্রে এ টিকার প্রয়োগ শুরু হতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে। তবে টিকাটি আনুষ্ঠানিকভাবে এফডিএ অনুমোদন করার আগেই ট্রাম্প এক টুইটে দাবি করেছেন, এফডিএ মডার্নার টিকা অনুমোদন করেছে।

সৌদি আরবে টিকা দেওয়া শুরু :সৌদি আরবে বৃহস্পতিবার থেকে ফাইজার-বায়োএনটেকের করোনার টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে। ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকার প্রথম চালান গত বুধবার দেশটিতে এসে পৌঁছায়। টিকা হাতে পাওয়ার পর দিনই তা দেওয়া শুরু করল সৌদি আরব।

সৌদিতে প্রথমে টিকা নেওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী তৌফিক আল-রাবিয়া আছেন। লোকজনকে আশ্বস্ত ও উৎসাহিত করতে তিনি টিকা নিয়েছেন। তিনি বলেছেন, 'আমরা নিশ্চিত করছি যে এই টিকা নিরাপদ।'

গণটিকাদান শুরুর পরিকল্পনা চীনের :সাধারণ মানুষকে করোনার টিকা দেওয়ার কার্যক্রম শুরুর পরিকল্পনা করছে চীন। দেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলেছেন, আগামী বছরের শুরুর দিকে সাধারণ মানুষকে করোনার টিকা দেওয়ার কার্যক্রম শুরুর পরিকল্পনা করা হয়েছে। দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় সিচুয়ান প্রদেশে এই কার্যক্রম শুরুর পরিকল্পনা রয়েছে। চান্দ্রবর্ষের আগেই ৫ কোটি লোককে টিকা দেওয়া হবে। তবে দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনার কোনো টিকা সাধারণ মানুষের ব্যবহারের জন্য আনুষ্ঠানিক অনুমোদন পায়নি। চীনের পাঁচটি টিকা তৈরি প্রক্রিয়ার চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। তবে কোনো টিকাই নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছ থেকে আনুষ্ঠানিক অনুমোদন পায়নি।

ভারতে উৎপাদন হবে রাশিয়ার ৩০ কোটি টিকা :রাশিয়া জানিয়েছে, তাদের উৎপাদিত স্পুটনিক-ভি টিকার ৩০ কোটি ডোজ আগামী বছর ভারতে উৎপাদন করা হবে। সূত্র :বিবিসি, আলজাজিরা, এএফপি ও রয়টার্স।

এক্সক্লুসিভ বিভাগের আরো খবর
অর্পিত সম্পত্তির পাঁচ সমস্যা চিহ্নিত করে সমাধানের উদ্যোগ

অর্পিত সম্পত্তির পাঁচ সমস্যা চিহ্নিত করে সমাধানের উদ্যোগ

একসময়ের প্রধানমন্ত্রী এখন চার দেয়ালে বন্দী

একসময়ের প্রধানমন্ত্রী এখন চার দেয়ালে বন্দী

সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাসা ভাড়ায় পার্থক্য ৩৩,৪০০ টাকা!

সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাসা ভাড়ায় পার্থক্য ৩৩,৪০০ টাকা!

দেশে করোনার প্রথম টিকা নিতে যাওয়া রুনু

দেশে করোনার প্রথম টিকা নিতে যাওয়া রুনু

অনলাইনে সহজে ই-পাসপোর্ট করবেন যেভাবে

অনলাইনে সহজে ই-পাসপোর্ট করবেন যেভাবে

অবসর সুবিধা স্থগিত বা প্রত্যাহার হবে যেসব কারণে

অবসর সুবিধা স্থগিত বা প্রত্যাহার হবে যেসব কারণে