ঢাকা মঙ্গলবার, ০২ জুন, ২০২০, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

যুবলীগ নেতা জি কে শামীমের আদ্যপান্ত


গো নিউজ২৪ | নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯, ০৩:১৯ পিএম আপডেট: সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯, ০৩:৩০ পিএম
যুবলীগ নেতা জি কে শামীমের আদ্যপান্ত

কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা এস এম গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জি কে শামীমকে আটক করেছে র‌্যাব। শুক্রবার দুপুরের পর ৬ দেহরক্ষীসহ তাকে আটক করা হয়। 

জি কে শামীম কেন্দ্রীয় যুবলীগের সমবায় সম্পাদক। রাজধানীর সবুজবাগ, বাসাবো, মতিঝিলসহ বিভিন্ন এলাকায় প্রভাবশালী ঠিকাদার হিসেবে পরিচিত তিনি। 

তার নিকেতনের কার্যালয় ঘিরে রাখে। তার কার্যালয় থেকে অবৈধ অস্ত্রসহ প্রায় ১০ কোটি টাকা জব্দ করা হয়েছে। 

ছয়জন অস্ত্রধারী দেহরক্ষী সবসময় ঘিরে থাকে তাকে। বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় থাকাকালে শামীম ছিলেন ঢাকা মহানগর যুবদলের সহসম্পাদক। সেই জি কে শামীম এখন যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সমবায় বিষয়ক সম্পাদক। 

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার সন্মানদী ইউনিয়নের দক্ষিণপাড়া গ্রামের মৃত মো. আফসার উদ্দিন মাস্টারের ছেলে শামীম।  গত জাতীয় নির্বাচনের সময় শামীম আওয়ামী লীগের নৌকা মার্কা নিয়ে নির্বাচনের জন্য প্রচারণাও চালিয়েছিলেন।

মির্জা আব্বাস ও জি কে শামীম

বাসাবো ও এজিবি কলোনির কয়েকজন বাসিন্দা গণমাধ্যমকে জানান, জি কে শামীম একসময় বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাসের ক্যাডার ছিলেন। ওয়ার্ড যুবদলের মাধ্যমেই তার রজনীতি শুরু। পরবর্তী সময়ে বিএনপি নেতাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা হয় এবং তাদের সহযোগিতায় ধীরে ধীরে গণপূর্ত ভবনের ঠিকাদারি ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ নেন তিনি। ঢাকা মহানগর যুবদলের সহসম্পাদকের পদও বাগিয়ে নেন। বিএনপি আমলে গণপূর্ত ভবন ছিল তার দখলে। 

ক্ষমতার পালাবদলে শামীমও বদলে গিয়ে এখন কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা। পাশাপাশি তিনি নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগেরও সহসভাপতি। 

একসময় বিএনপির বড় বড় নেতাদের ছবিসহ সবুজবাগ-বাসাবো এলাকাসহ রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় শোভা পেত জি কে শামীমের ব্যানার-পোস্টার। এখন শোভা পায় যুবলীগ ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের ছবিসহ পোস্টার-ব্যানার রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায়। 

বিএনপি-জামায়াত সরকারের আমলের মতোই আওয়ামী সরকারের আমলেও জি কে শামীমের একক আধিপত্য চলছে গণপূর্তে ঠিকাদারি ব্যবসায়।

গো নিউজ২৪/আই

এক্সক্লুসিভ বিভাগের আরো খবর
যেসব কারণে দুশ্চিন্তার কারণ নেই বাংলাদেশের

যেসব কারণে দুশ্চিন্তার কারণ নেই বাংলাদেশের

করোনা বাড়ছে বিত্তবানরা দেশ ছেড়ে পালাচ্ছে

করোনা বাড়ছে বিত্তবানরা দেশ ছেড়ে পালাচ্ছে

সুনির্দষ্ট ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়নি, এখন করণীয় যা

সুনির্দষ্ট ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়নি, এখন করণীয় যা

এবার ‘প্লাজমা ব্যাংক’ তৈরির উদ্যোগ ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর

এবার ‘প্লাজমা ব্যাংক’ তৈরির উদ্যোগ ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর

করোনা ‘অপমানিত’ বোধ করছে বাংলাদেশে

করোনা ‘অপমানিত’ বোধ করছে বাংলাদেশে

বাংলাদেশে করোনা হেরে যাবে যেসব কারণে

বাংলাদেশে করোনা হেরে যাবে যেসব কারণে