ঢাকা বুধবার, ২১ আগস্ট, ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৬

হত্যাকাণ্ডের আগের দিনও নয়নের বাসায় যান মিন্নি


গো নিউজ২৪ | নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রকাশিত: জুলাই ১৩, ২০১৯, ০৪:৩০ পিএম আপডেট: জুলাই ১৩, ২০১৯, ০৪:৩৭ পিএম
হত্যাকাণ্ডের আগের দিনও নয়নের বাসায় যান মিন্নি

বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডের আগের দিনও খুনি সাব্বির আহমেদ নয়ন ওরফে নয়ন বন্ডের বাসায় গিয়েছিলেন আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি। 

সাংবাদিকদের এমন তথ্য জানিয়েছেন পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত নয়ন বন্ডের মা শাহিদা বেগম।

তিনি বলেন, রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে ২৬ জুন (বুধবার)। এর আগের দিন মঙ্গলবারও মিন্নি আমাদের বাসায় এসে নয়নের সঙ্গে দেখা করে।

নয়ন বন্ডের মা আরও বলেন, শুধু হত্যাকাণ্ডের আগের দিন মঙ্গলবারই নয়; রিফাত শরীফের সঙ্গে বিয়ে হওয়ার পরও মিন্নি নিয়মিত আমাদের বাসায় এসে নয়নের সঙ্গে দেখা করত। মোটরসাইকেলে মিন্নিকে রিফাত শরীফ কলেজে নামিয়ে দিয়ে চলে যেত। এরপর মিন্নি আমাদের বাসায় চলে আসত। আবার কলেজের ক্লাস শেষ হওয়ার আগ মুহূর্তে মিন্নি আমাদের বাসা থেকে বের হয়ে কলেজে যেত।’

‘আমার ছেলে তো মারাই গেছে। আমার তো আর মিথ্যা বলার কিছু নেই। মিন্নি যে মঙ্গলবারও আমাদের বাসায় গিয়েছিল তা আমার প্রতিবেশীরাও দেখেছে।’

তিনি বলেন, ‘রিফাতের সঙ্গে মিন্নির বিয়ের খবর পাওয়ার পর আমি আমার ছেলেকে অনেক নিষেধ করেছি, যোগাযোগ না রাখতে। কিন্তু আমার ছেলে নয়ন কখনও আমার কথা শুনত না। ওর মনে যা চাইতো ও তা-ই করত। নয়ন যদি আমার কথা শুনত তাহলে এমন নির্মম ঘটনা ঘটত না।’

তবে এবিষয়ে মিন্নির কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। তিনি অসুস্থ তাই কথা বলতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন তার বাবা।

ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

সূত্র-জাগো নিউজ 

গো নিউজ২৪/আই

এক্সক্লুসিভ বিভাগের আরো খবর
পরকীয়ার খেসারত দিলেন ইউপি চেয়ারম্যান

পরকীয়ার খেসারত দিলেন ইউপি চেয়ারম্যান

১১ বছরেও চালু হলো না সরকারি স্যালাইন ফ্যাক্টরিটি

১১ বছরেও চালু হলো না সরকারি স্যালাইন ফ্যাক্টরিটি

মিস্টার ওয়াল্ড হতে ভোট চাইলেন বাংলাদেশের ফাহিম

মিস্টার ওয়াল্ড হতে ভোট চাইলেন বাংলাদেশের ফাহিম

এমপি না হয়েও ৩ শর্তে শুল্কমুক্ত গাড়ির সুবিধা পেলেন মুহিত

এমপি না হয়েও ৩ শর্তে শুল্কমুক্ত গাড়ির সুবিধা পেলেন মুহিত

নবজাতককে নিয়ে টানাটানি করছিল তিনটি কুকুর

নবজাতককে নিয়ে টানাটানি করছিল তিনটি কুকুর

আদালতে ক্ষমা চাইলেন ভোলার এসপি

আদালতে ক্ষমা চাইলেন ভোলার এসপি