ঢাকা শনিবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৯, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

প্রতিশোধ নিতে ৩ বছর ধরে যুবককে তাড়া করছে কাক!


গো নিউজ২৪ | নিউজ ডেস্ক: প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৯, ০৮:১১ পিএম
প্রতিশোধ নিতে ৩ বছর ধরে যুবককে তাড়া করছে কাক!

কাকের ‘অত্যাচারে’ তিন বছর ধরে রীতিমতো ঘরবন্দী ভারতের মধ্যপ্রদেশের এক যুবক। শিবপুরী জেলার সুমেলা গ্রামের ওই যুবকের নাম শিব কেওয়াত। বাড়ি থেকে বের হলেই সব কাক এসে একযোগে তার ওপর আ'ক্রমণ চালায়।

শুনতে গল্প মনে হলেও এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছে ভারতের অন্যতম শীর্ষ সংবাদমাধ্যম ‘ইন্ডিয়া টুডে’।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বছর তিনেক আগে একদিন সকালে বাড়ি থেকে বেরিয়ে শিব দেখেন একটি বাচ্চা কাক জালের মধ্যে আটকে পড়েছে। জাল সরিয়ে ছানাটিকে উদ্ধার করতে যান তিনি। কিন্তু তারের খোঁচায় গুরুতর জ'খম কাকটি মারা যায়।

ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, অন্য কাক এই দৃশ্য দেখে শিবের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। তাদের ধারণা হয় শিবই তাদের বাচ্চাকে মেরেছে। আর সেই রাগে শিবের উপর প্রতিশোধ নিতে মরিয়া হয়ে ওঠে তারা। লাঠি হাতে বাড়ি থেকে বেরিয়েও নিজেকে বাঁচাতে পারেন না শিব।

আক্ষেপের সুরে শিব বলেন, ‘ওরা মানুষ হলে আমি বুঝিয়ে বলতাম। জানাতাম আমা'র কোনো দোষ নেই। ওদের বাচ্চাকে আমি বাঁচাতে চেয়েছিলাম। সেজন্যই লোহার জাল থেকে উদ্ধার করেছিলাম। কিন্তু তারের জালে অনেকক্ষণ ধরে আটকে বাচ্চাটি দুর্বল হয়ে পড়ে। তাছাড়া লোহার তারের খোঁচায় তার শরীরও ক্ষত বিক্ষত হয়ে গিয়েছিল।’

নিজেকে নির্দোষ দাবি করে তিনি আরো বলেন, ‘তবে কাকেরা আমাকে কী করে এতদিন ধরে মনে রেখেছে এটাই বুঝে উঠতে পারছি না। ওরা যে এভাবে সবকিছু মনে রাখতে পারে তা বুঝতেই পারিনি। আশা করি কোনো একদিন ওদের হাত থেকে মুক্তি পাব।’

প্রতিশোধপরায়ণ কাকের দল হয়তো একদিন তাকে ক্ষমা করবে এমন আশা প্রকাশ করেন শিব।

গো নিউজ২৪/আই

বিচিত্র সংবাদ বিভাগের আরো খবর
ঈগলের ফোন বিল দিয়ে ফতুর বিজ্ঞানী!

ঈগলের ফোন বিল দিয়ে ফতুর বিজ্ঞানী!

গৃহিনীর গয়না গিলে ফেলেছে গরু, করছে না মলত্যাগও

গৃহিনীর গয়না গিলে ফেলেছে গরু, করছে না মলত্যাগও

ভাড়াটে খুনির ভাড়াটে খুনির ভাড়াটে খুনির খুনি ভাড়া!

ভাড়াটে খুনির ভাড়াটে খুনির ভাড়াটে খুনির খুনি ভাড়া!

কাজে ফাঁকি দিতে মৃতের অভিনয় ভাইরাল

কাজে ফাঁকি দিতে মৃতের অভিনয় ভাইরাল

গাধাদেরও যেখানে পাজামা পরানো হয়!

গাধাদেরও যেখানে পাজামা পরানো হয়!

এশিয়ার ‘মানুষখেকো’ ফাঙ্গাস এখন অস্ট্রেলিয়ায়

এশিয়ার ‘মানুষখেকো’ ফাঙ্গাস এখন অস্ট্রেলিয়ায়