ঢাকা বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯, ৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

ভালোবাসার ঘর-সংসার, তবু শাশুড়ির মামলায় ১৪ বছরের দণ্ড 


গো নিউজ২৪ | নিজস্ব প্রতিবেদক প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৯, ০৯:৫৪ এএম আপডেট: সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৯, ০৯:৫৬ এএম
ভালোবাসার ঘর-সংসার, তবু শাশুড়ির মামলায় ১৪ বছরের দণ্ড 

চার বছর আগে ভালোবেসে রূপাকে (ছদ্ম নাম) বিয়ে করে ঘর সংসার করছেন বাদল মিয়া। তাদের ঘরে জন্ম নিয়েছে একটি ছেলে সন্তানও। কিন্তু বিয়ের সময় রূপা ছিলেন চৌদ্দ বছরের কিশোরী। সেসময় তার মা বাদলের নামে অপহরণ মামলা দায়ের করেন।

দুই বছর আগে সেই মামলায় ১৪ বছরের কারাদণ্ড হয় বাদলের। গার্মেন্টেসে চাকরি করার সুবাধে স্ত্রী সন্তান নিয়ে বাদল সাভারের আশুলিয়ায় থাকতেন। কিন্তু গ্রামের বাড়ি মানিকগঞ্জের দৌলতপুর উপজেলার উয়াইল বেড়াতে এসেই পুলিশের হাতে গ্রেফতার হলেন সাজাপ্রাপ্ত আসামি বাদল।

এ প্রসঙ্গে দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুনীল কর্মকার জানান, ২০১৬ সালে যশোরের নারী ও শিশু দমন টাইব্যুানালে বাদলের বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়। ২০১৭ সালে আদালত তাকে ১৪ বছরের কারাদণ্ড দেন। থানায় তার নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা আসে।

শনিবার মধ্যরাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গ্রামের বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় বাড়িতে তার স্ত্রী সন্তানকেও দেখা গেছে। রোববার দুপুরে বাদলকে আদালতে পাঠানো হয়।

গো নিউজ২৪/এমআর

দেশজুড়ে বিভাগের আরো খবর
কাকলী হত্যার দায়ে ২ জনের মৃত্যুদণ্ড

কাকলী হত্যার দায়ে ২ জনের মৃত্যুদণ্ড

এনজিও কর্মীর মরদেহ উদ্ধার, আটক দুই

এনজিও কর্মীর মরদেহ উদ্ধার, আটক দুই

দিনাজপুরে ট্রাক চাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

দিনাজপুরে ট্রাক চাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

অতিরিক্ত লবণ কেনায় ২ ক্রেতাকে জরিমানা

অতিরিক্ত লবণ কেনায় ২ ক্রেতাকে জরিমানা

সিলেটে লবন নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড

সিলেটে লবন নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড

গাঁজার বস্তার ওপর গভীর ঘুম

গাঁজার বস্তার ওপর গভীর ঘুম