ঢাকা মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই, ২০১৯, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬

গর্ভের সন্তান নষ্টে গ্রাম্য ডাক্তারের ওষুধ সেবন, গৃহবধূর মৃত্যু


গো নিউজ২৪ | নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রকাশিত: জুলাই ৫, ২০১৯, ১০:১২ পিএম
গর্ভের সন্তান নষ্টে গ্রাম্য ডাক্তারের ওষুধ সেবন, গৃহবধূর মৃত্যু

গর্ভের সন্তান নষ্ট করতে রাতে গ্রাম্য ডাক্তারের দেয়া ওষুধ সেবন করেন গৃহবধূ সুমি বেগম (২৫)। ওষুধ সেবনের পর তার রক্তক্ষরণ শুরু হয়। একপর্যায়ে শুক্রবার দুপুরে মৃত্যু হয় এই গৃহবধূ। ঘটনাটি ঘটেছে সুনামগঞ্জের জগন্নাথরপুরে।

নিহত সুমি বেগম উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের কাতিয়া অলৈতলী গ্রামের ফয়জুল ইসলামের স্ত্রী।

সুমির স্বামী ফয়জুল ইসলাম বলেন, তার স্ত্রী দুই সন্তানের মা। এর আগে দুইটি সন্তানই সিজারে ভূমিষ্ট হয়েছে। ছোট সন্তানের বয়স ১০ মাস। আর বড় মেয়ের বয়স দুই বছর। অসাবধানতাবশত তার স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ায় স্বাস্থ্য ঝুঁকির মুখে পড়েন। তাই স্ত্রীকে বাঁচাতে গর্ভের সন্তান নষ্ট করতে স্থানীয় কাতিয়া বাজারের পল্লী চিকিৎসক নিধির দাসের কাছে যান। সেখান থেকে বৃহস্পতিবার ওষুধ কিনে এনে রাতে স্ত্রীকে খাওয়ান। ওষুধ সেবনের পরপরই তার রক্তক্ষরণ শুরু হয়। আস্তে আস্তে রক্তক্ষরণ বাড়তে থাকে। শুক্রবার দুপুরে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। এ সময় সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ফয়জুল ইসলাম অভিযোগ করেন, পল্লী চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসার কারণে সুমির অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়েছে। এতেই তার মৃত্যু হয়েছে।

গো নিউজ২৪/এমআর

দেশজুড়ে বিভাগের আরো খবর
ছেলেধরা সন্দেহে ৪ যুবককে গণপিটুনি, পিকআপে আগুন

ছেলেধরা সন্দেহে ৪ যুবককে গণপিটুনি, পিকআপে আগুন

২ ছাত্রীকে স্প্রে দিয়ে অজ্ঞান, এলাকায় তোলপাড়

২ ছাত্রীকে স্প্রে দিয়ে অজ্ঞান, এলাকায় তোলপাড়

পানি পড়া খেয়ে ২ জনের মৃত্যু, কবিরাজ আটক

পানি পড়া খেয়ে ২ জনের মৃত্যু, কবিরাজ আটক

ফ্রি চিপস খাওয়াতে গিয়ে গণপিটুনির শিকার ৩ যুবক

ফ্রি চিপস খাওয়াতে গিয়ে গণপিটুনির শিকার ৩ যুবক

মির্জাপুরের জরাজীর্ণ ভবনে ঝুঁকি নিয়ে পাঠদান

মির্জাপুরের জরাজীর্ণ ভবনে ঝুঁকি নিয়ে পাঠদান

স্ত্রী-সন্তানের রক্তাক্ত লাশ, আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্বামী  

স্ত্রী-সন্তানের রক্তাক্ত লাশ, আশঙ্কাজনক অবস্থায় স্বামী