ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ, ২০১৯, ৭ চৈত্র ১৪২৫

পোয়া মাছটির পেটির দামই ৩ লাখ


গো নিউজ২৪ | নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রকাশিত: জানুয়ারি ৫, ২০১৯, ০৯:৪৯ পিএম
পোয়া মাছটির পেটির দামই ৩ লাখ

টেকনাফ শাহ পরীর দ্বীপের জেলেদের জালে শনিবার দুপুরে ধরা পড়েছে ৩১ কেজি ওজনের একটি পোয়া মাছ। স্থানীয় লোকজন একে বলে ‘কালা পোয়া’। তবে এটি বেশি পরিচিত রূপালি পোয়া নামে।

পরে বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে মাছটি নিয়ে ট্রলারটি শাহ পরীর দ্বীপ জেটি ঘাঁটে এসে পৌঁছালে উৎসুক মানুষ দেখতে ভিড় জমায়।

টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীর দ্বীপ ডেইলপাড়ার জেলে আব্দুস শুক্কুর মাঝির জালে পুরুষ প্রজাতির মাছটি ধরা পড়ে।

তিনি বলেন, দুপুরের দিকে কয়েকজন জেলে শাহপরীর দ্বীপের উল্টো পাশে বঙ্গোপসাগরে জাল ফেলেন। ১০জন জেলে প্রায় আধা ঘণ্টা ধরে জালটি টেনে তুললে ওই জালে অন্যান্য মাছের সঙ্গে উঠে আসে বড় ওই পোয়া মাছটি।

আব্দুস শুক্কুর বলেন, তার জালে এত বড় মাছ আগে কখনো ধরা পড়েনি। মাছটি পেয়ে সবাই খুশি। বড় মাছের খবর পেয়ে কয়েকজন ব্যবসায়ী ঘাটে ভিড় করেন। মাছের দাম হাঁকা হয় তিন লাখ টাকা। পরে একই এলাকার আব্দুস শুক্কুর নামে একজন বোটের মালিক মাছটি ২ লাখ ৩৫ হাজার টাকায় কিনে নেন। পরে তিনি ওই মাছটি কক্সবাজার নিয়ে যান। সেখানে তিনি মাছটির দাম চার লাখ টাকা হাকাঁলেও পরে আড়াই লাখ টাকায় বিক্রি করেন।

৩১ কেজি ওজনের পোয়া মাছ

আব্দুস শুক্কুর বলেন, মাছের চেয়ে মাছের পেটে থাকা পেটি বা পটকার দাম বেশি হওয়ায় এত দাম উঠেছে। এই মাছে এক কেজির বেশি পটকা পাওয়া যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মাছ ব্যবসায়ী আলী আহমদ বলেন, এখন মওসুমে প্রায়ই কালো পোয়া মাছ ধরা পড়েছে। এর পটকা থাইল্যান্ড ও সিঙ্গাপুরে রপ্তানি হয়। তাই এর এত দাম। শুকনা প্রতি কেজি পটকার (স্থানীয় নাম ফর্দানা) দাম প্রায় তিন লাখ টাকা।

টেকনাফ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন, পোয়া মাছের পটকার দাম অনেক বেশি। তাই জেলেদের কাছে পুরুষ পোয়া মাছের কদর বেশি। এটি রূপালি পোয়া।

গো নিউজ২৪/আই

দেশজুড়ে বিভাগের আরো খবর
অ্যাম্বুলেন্স ভর্তি দেশী মদ ছাড়িয়ে নিতে থানায় মাদক কর্মকর্তা

অ্যাম্বুলেন্স ভর্তি দেশী মদ ছাড়িয়ে নিতে থানায় মাদক কর্মকর্তা

সুপারিতেও মেশানো হচ্ছে বিষাক্ত কেমিক্যাল 

সুপারিতেও মেশানো হচ্ছে বিষাক্ত কেমিক্যাল 

এবার কলেজছাত্র নিহত, কাভার্ডভ্যানে এলাকাবাসীর আগুন

এবার কলেজছাত্র নিহত, কাভার্ডভ্যানে এলাকাবাসীর আগুন

স্কুলছাত্রীর লাশ দেখতে এসে এইচএসসি পরীক্ষার্থী আটক

স্কুলছাত্রীর লাশ দেখতে এসে এইচএসসি পরীক্ষার্থী আটক

স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা

স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা

গুলিতে ৭ জন নিহতের ঘটনায় ৫০ জনকে আসামি করে মামলা

গুলিতে ৭ জন নিহতের ঘটনায় ৫০ জনকে আসামি করে মামলা