২৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩, শনিবার ১০ ডিসেম্বর ২০১৬ , ২:৪৮ অপরাহ্ণ

সাকার সঙ্গে দেখা করবে পরিবার


গো নিউজ২৪ | নিজস্ব প্রতিবেদক আপডেট: ১৯ নভেম্বর ২০১৫ বৃহস্পতিবার
সাকার সঙ্গে দেখা করবে পরিবার

মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের সাকা চৌধুরীর সঙ্গে দেখা করার অনুমতি চেয়ে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে আবেদন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তার পরিবারের সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর) ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে দেখা করার অনুমতি চেয়েছেন তারা।

সাকার পারিবারিক সূত্র বাংলানিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

সূত্রটি বাংলানিউজকে জানায়, কয়েকদিন আগেই ছেলে হুম্মাম কাদের চৌধুরী ও ফজলুল কাদের চৌধুরী কারাগারে তাদের বাবার সঙ্গে দেখা করার অনুমতি চেয়ে আবেদন করেছিলেন।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার কর্তৃপক্ষ দেখা করার অনুমতিও দিলেই পরিবারের কয়েকজন সদস্য সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর সঙ্গে দেখা করতে যাবেন।

এদিকে দায়িত্বশীল কারাসূত্র বাংলানিউজকে জানায়, সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর পরিবারের পক্ষ থেকে ১৫ জনের দেখা করার সুযোগ চেয়ে একটি আবেদন এসেছে। এর মধ্য থেকে কতজনকে দেখা করা সুযোগ দেওয়া হবে তা নিশ্চিত করেই তাদের জানানো হবে।

বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেই জানায় কারাসূত্রটি।

এদিকে, বৃহস্পতিবার সকালে অন্যদিনের মতো সাকা চৌধুরীর রাজধানীর ধানমণ্ডির বাড়িতে লোক সমাগম দেখা যায়নি। সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের রিভিউয়ের রায়ের আগে পর্যন্ত শক্ত থাকা সাকা চৌধুরীর স্ত্রী ফারহাত কাদের চৌধুরী শোকে মুহ্যমান হয়ে পড়েছেন বলে সূত্র জানিয়েছে।

অধ্যক্ষ নূতন চন্দ্র সিংহকে হত্যাসহ চার হত্যা-গণহত্যার দায়ে বুধবার (১৮ নভেম্বর) সাকা চৌধুরীর ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল রেখেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। একইসঙ্গে মৃত্যুদণ্ডের চূড়ান্ত রায় পুনর্বিবেচনা (রিভিউ) চেয়ে সাকা চৌধুরীর আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন সর্বোচ্চ আদালত।

দেশের এই শীর্ষ যুদ্ধাপরাধীর পরিবার থাকেন ধানমণ্ডি আবাসিক এলাকার ১০/এ নম্বর রোডের ২৮ নম্বর ‘কিউসি রেসিডেন্স’ নামক বাড়িটিতে।

সরেজমিনে ওই বাড়িতে গিয়ে দেখা গেছে, বাড়িতে সাকা চৌধুরীর স্ত্রীসহ তার সন্তানরা এবং আর দু` একজন নিকট আত্মীয় অবস্থান করছেন। তারা কেন্দ্রীয় কারাগারে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেও বাড়ির ভেতর থেকে বলা হয়েছে।

সালাউদ্দিন কাদের সাকা চৌধুরীর পৈত্রিক বাসভবন চট্টগ্রাম নগরীর রহমতগঞ্জের গনি বেকারির মোড়ের গুডস হিলে।