২৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৩, শুক্রবার ০৯ ডিসেম্বর ২০১৬ , ২:০৬ পূর্বাহ্ণ

ধাতব মুদ্রা গ্রহনের জন্য ব্যাংকগুলোকে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশ


গো নিউজ২৪ আপডেট: ১৬ নভেম্বর ২০১৫ সোমবার
ধাতব মুদ্রা গ্রহনের জন্য ব্যাংকগুলোকে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশ

ঢাকাঃ ধাতব মুদ্রা গ্রহনের জন্য ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়ে একটি পরিপত্র জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংকের কারেন্সি ম্যানেজমেন্ট বিভাগ। রবিবার এ বিষয়ে পরিপত্রটি জারি হয়।

১, ২ ও ৫ টাকার ধাতব মুদ্রা নিয়ে বিপাকে পড়ছেন দেশের বিভিন্ন এলাকার ব্যবসায়ীরা। সম্প্রতি এ বিষয়ে বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় নানা সংবাদও বের হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে ব্যবসায়ী ও সাধারণ গ্রাহকদের কাছ থেকে মূল্যমান নির্বিশেষে ধাতব মুদ্রা গ্রহণ করার জন্য ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। একইসঙ্গে গ্রাহকদের চাহিদার ভিত্তিতে নিয়মানুযায়ী ধাতব মুদ্রা বিতরণ করার কথাও বলা হয়েছে পরিপত্রে।

দেশের তফসিলি ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো ওই পরিপত্রে বলা হয়, নিয়মানুযায়ী ধাতব মুদ্রা গ্রহণ ও বিতরণের বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশ রয়েছে। কিন্তু বিভিন্ন উৎস হতে জানা যাচ্ছে যে, তফসিলি ব্যাংকের শাখাগুলো জনসাধারণের কাছ থেকে ধাতব মুদ্রা গ্রহণ করছে না আবার অনেকক্ষেত্রে তাদের মাঝে তা বিতরণ করছে না। ফলে জনসাধারণ বিড়ম্বনার সম্মুখীন হচ্ছেন। এতে স্বাভাবিক অর্থনৈতিক লেনদেনও বিঘ্নিত হচ্ছে।

পরিপত্রে বলা হয়েছে, তফসিলি ব্যাংকের শাখাগুলো তাদের গ্রাহকদের কাছ থেকে ১, ২ এবং ৫ টাকা মূল্যমানের ধাতব মুদ্রা এবং কাগুজে নোট গ্রহণ করবে। জনসাধারণের স্বাভাবিক লেনদেনের স্বার্থে প্রতিটি শাখায় ১, ২ এবং ৫ টাকা মূল্যমানের ধাতব মুদ্রার প্রতিটির ন্যূনতম ১০ হাজার পিস করে সংরক্ষণ করতে হবে। তবে স্থানীয় কার্যালয় ও অন্যান্য বড় শাখাকে বর্ণিত সংখ্যার তিন গুন অর্থাৎ প্রতিটি মূল্যমানের ৩০ হাজার পিস করে ধাতব মুদ্রা সংরক্ষণ করতে হবে। সংশ্লিষ্ট ব্যাংক তাদের জন্য নির্ধারিত পরিমাণের অতিরিক্ত ধাতব মুদ্রা বাংলাদেশ ব্যাংকে জমা দিতে পারবে। তবে এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট ব্যাংককে নিশ্চিত হতে হবে যে, তাদের সকল শাখায় তাদের জন্য নির্ধারিত পরিমাণ ধাতব মুদ্রা সংরক্ষিত আছে।

১৬ নভেম্বর ২০১৫