আইএসবিরোধী সাইবার লড়াইয়ে, জর্দান সুন্দরী


| আপডেট: ২৮ নভেম্বর ২০১৫ শনিবার, ০৬:৫৩  পিএম
আইএসবিরোধী সাইবার লড়াইয়ে, জর্দান সুন্দরী

আইএসবিরোধী লড়াইয়ে নেমেছেন মিস জর্দান খেতাব বিজয়ী লারা আবদাল্লাত। ৩৩ বছর বয়সী এই নারী ২০১০ সালে মিস জর্দান হয়েছিলেন। এ ছাড়া ২০১১ সালে মিস আরব প্রতিযোগিতায় প্রথম রানারআপ হয়েছিলেন লারা। এখন সেই লারা অন্য এক প্রতিযোগিতায় নেমেছেন। যুক্ত হয়েছেন ‘ঘোস্ট সিকিউরিটি’ নামে অনলাইন হ্যাকারদের একটি গ্রুপে। হ্যাকরদের এ গ্রুপটি আমেরিকার গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই এবং সিআইএর সঙ্গে কাজ করে। গোয়েন্দা সংস্থাগুলো একেবারে সরাসরি নয়, ক্রোনস এ্যাডভাইজরি গ্রুপ নামে মধ্যস্থতাকারী প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে কাজ করছে ঘোস্ট সিকিউরিটি।

গত জুলাইয়ে ঘোস্ট সিকিউরিটির একটি গ্রুপ আইএসের দুটি গুরুত্বপূর্ণ ওয়েব প্লাটফরমে হামলা চালিয়েছে বলে দাবি করেছে। ওই ওয়েব প্লাটফরম দুটির মাধ্যমে আইএস পুরো অঞ্চলজুড়ে তাদের কর্মকাণ্ড পরিচালনা করত। ওই হামলার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন লারা আবদাল্লাত।

গত নভেম্বরে আইএসের একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে চিহ্নিত করে ওটির ওপর আক্রমণের ক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন লারা। এভাবে সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে একটি লড়াই গড়ে তুলতে সক্ষম হয়েছেন তিনি।

তবে হ্যাকার গ্রুপটির দাবি, তারা আইএসের ওয়েব মিডিয়া এ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় করার চেয়ে গুপ্তচর হিসেবে বেশী কাজ করছে, যাতে আইএসের অনলাইনের কর্মকাণ্ডের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করতে পারে।

আইএস, আল-কায়েদা, আল-নুসরা, বোকো হারাম এবং আল-শাবাবের মতো ইসলামিক উগ্রবাদী সংগঠনগুলোর অনলাইন উপস্থিতি উপড়ে ফেলা বা সীমিত করাই হচ্ছে ঘোস্ট সিকিউরিটির প্রধান লক্ষ্য। এই লক্ষ্য অর্জনে তারা এমনভাবে কাজ করছে যাতে এ সব উগ্রবাদী গোষ্ঠীগুলো অনলাইনের মাধ্যমে সদস্য সংগ্রহ বা সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করতে না পারে।

তিউনিসিয়ায় একটি সম্ভাব্য হামলার পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দেওয়ার পর আবদাল্লাত স্থানীয় গণমাধ্যম ‘ভোকাটিভ’কে বলেছিলেন, ‘আমরা উগ্র গোষ্ঠীগুলোর আক্রমণ সংক্রান্ত সঠিক তথ্যগুলো আমাদের নাগালের মধ্যে নিয়ে আসতে সক্ষম হয়েছি। এ জন্য আামাদের প্রাপ্ত তথ্যের যথার্থতা নিয়ে প্রশ্ন উত্থাপনের কোনো সুযোগ নেই।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের নির্বাহী পরিচালক ডিজিটা শ্যাডো আমেরিকার সন্ত্রাসবিরোধী কর্মকর্তা হিসেবে কয়েক মাস ধরে কাজ করছেন এবং তিনি আমাদের জন্য অনেক দরজা উন্মুক্ত করে দিয়েছেন। এ জন্য আমরা বাস্তব পৃথিবীতে যুদ্ধের ময়দানকেও প্রভাবিত করতে পারছি।’

জাআ