সিরিয়া উপকূলে নতুন করে আরও মিসাইল পাঠিয়েছে রাশিয়া


| আপডেট: ২৮ নভেম্বর ২০১৫ শনিবার, ০৪:৩৭  পিএম
সিরিয়া উপকূলে নতুন করে আরও মিসাইল পাঠিয়েছে রাশিয়া

মিসাইল ক্রুজার মস্কভার পর সিরিয়া উপকূলে নতুন করে আরও মিসাইল পাঠিয়েছে রাশিয়া। বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) মস্কভাকে ভূমধ্যসাগরের সিরিয়া উপকূলের বন্দর শহর লাতাকিয়ার আরও কাছে ভিড়িয়ে সেখানে এস-৪০০ মডেলের একাধিক মিসাইল পাঠানো হয়। এগুলো সিরিয়ায় অভিযানরত রুশ যুদ্ধবিমানকে সহযোগিতা করবে।

বিভিন্ন সূত্রের বরাত দিয়ে শনিবার (২৮ নভেম্বর) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, লাতাকিয়া বন্দরে রাশিয়ার যে হেমেইমিম বিমানঘাঁটি রয়েছে, সেখানে একাধিক এস-৪০০ মিসাইল পাঠানো হয়েছে। এ মিসাইল আগে থেকেই সেখানে থাকা মিসাইল ক্রুজার মস্কভার সঙ্গে দূরপাল্লার আকাশ প্রতিরক্ষায় কাজ করবে।

২৪ নভেম্বর আকাশসীমা লঙ্ঘনের অভিযোগে তুরস্কের যুদ্ধবিমানের গুলিতে রুশ যুদ্ধবিমান ভূপাতিত হওয়ার পর ২৫ নভেম্বর লাতাকিয়ায় মস্কভা মোতায়েন করা হয়। এরপর বৃহস্পতিবার মোতায়েন করা হলো এ শক্তিশালী মিসাইল।

সংবাদমাধ্যম বলছে, রাশিয়ার হেমেইমিম বিমানঘাঁটিটি তুরস্ক সীমান্তের ৫০ কিলোমিটার দূরে সিরিয়ার উপকূলে। জঙ্গি গোষ্ঠী (আইএস) নির্মূলে গত ৩০ সেপ্টেম্বর অভিযান শুরুর পর থেকে এ বিমানঘাঁটি ব্যবহার করে আসছে সিরিয়ার ঘনিষ্ঠ মিত্রখ্যাত রাশিয়া।

যুদ্ধবিমান ভূপাতিতের ঘটনায় রাশিয়াকে হুঁশিয়ারি দিয়ে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তৈয়ব এরদোয়ান বলেন, ‘মস্কো আগুন নিয়ে খেলতে পারে না’।  অপরদিকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, ‘যারা সন্ত্রাস দমন ইস্যুতে দ্বৈত-নীতি অবলম্বন করছে তারাই আগুন নিয়ে খেলছে’।

এই বাকযুদ্ধের মধ্যে রাশিয়া ও তুরস্কের মধ্যে দেশ দু’টির নাগরিকদের ভিসা ছাড়া ভ্রমণের সুবিধা বাতিলের পরিকল্পনার কথা জানাচ্ছে মস্কো। একইসঙ্গে তুরস্কের ওপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরও বিস্তৃত করার পরিকল্পনার কথাও জানাচ্ছে তারা।

তবে আঙ্কারার পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, এই ইস্যুতে তারা মস্কোর সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ করতে চায় না।

জা/আ