দিবারাত্রির টেস্ট নিয়ে শঙ্কা


স্পোর্টস ডেস্ক | আপডেট: ২৮ নভেম্বর ২০১৫ শনিবার, ১২:২৫  পিএম
দিবারাত্রির টেস্ট নিয়ে শঙ্কা

২৮ নভেম্বর থেকে অস্ট্রেলিয়ার এডিলেডে শুরু হয়েছে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যে ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম দিবারাত্রির টেস্ট। সেইসঙ্গে এই প্রথম টেস্টে গোলাপি বল ব্যবহৃত হচ্ছে। 

সফরকারী নিউজিল্যান্ড টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন। প্রথমে ব্যাট করে কিউইরা তাদের প্রথম ইনিংসে মাত্র ২০২ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫০ রান করেন ওপেনার লাথাম।

অথচ পার্থে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরি [২৯০ রান] হাঁকানো রস টেলর ও সেঞ্চুরি লাভকারী [১৬৬ রান] কেইন উইলিয়ামসন অ্যাডিলেড টেস্টে করেছেন যথাক্রমে ২১ ও ২২ রান।  পার্থ টেস্টে এই দু`জনের চমৎকার ব্যাটিংয়ের উপর ভর করেই কিউইরা তাদের প্রথম ইনিংসে ৬২৪ রানের বিশাল সংগ্রহ গড়েছিল।  স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াও তাদের প্রথম ইনিংসে ৫৫৯ রান সংগ্রহ করেছিল। ফলে টেস্টটি ড্র হয়।

অ্যাডিলেডে চলমান প্রথম দিবারাত্রির টেস্টে এককথায় রানের খড়া চলছে। কিউইদের প্রথম ইনিংসে তোলা ২০২ রানের জবাবে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানরাও রানের খরায় ভুগেছেন। শেষ খবর পর্যন্ত অজিরা ৮ উইকেট হারিয়ে মাত্র ১১৬ রান সংগ্রহ করেছে। অজিদের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৩  রান করেন অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। এছাড়া তাদের আর কেউই তেমন একটা রানের দেখা পাননি। অজিদের বাকি খেলোয়াড়দের রান তোলার হালটা হলো এমন- বার্নস ১৪, ভোজ ১৩, শন মার্শ ২ ও মিশেল মার্শ ৪, সিডল ০ রান।

অথচ পার্থ টেস্টে ডাবল সেঞ্চুরি [২৫৩ রান] হাঁকানো ডেভিড ওয়ার্নার অ্যাডিলেডে করেন মাত্র ১ রান!

দিবারাত্রির টেস্ট নিয়ে শুরু থেকেই এর পক্ষে-বিপক্ষে মতামত দিয়েছেন অনেকে। কারো কারো মত ছিল, টেস্ট দিনের আলোতেই হওয়া উচিত। তা না হলে ক্রিকেটের এই ফর্মের স্বকীয়তা-ই নষ্ট হয়ে যাবে। কেউ কেউ আবার এর পক্ষেই সাফাই গেয়েছিলেন।

অ্যাডিলেডে প্রথম দিবারাত্রির টেস্ট্রের বর্তমান হাল দেখে মনে হচ্ছে, এর বিপক্ষে যারা ছিলেন তাদের বক্তব্যই হয়তো সঠিক প্রতীয়মান হচ্ছে। কারণ এই টেস্টে প্রথম ইনিংসে উভয় দলই রানের খরায় ভুগেছেন। টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে এমনটি পরবর্তীতে যেসব দিবারাত্রির টেস্ট হবে সেগুলোতেও এমনটি হয় কিনা সময়-ই হয়তো তা বলে দিবে।

 

গো নিউজ২৪/বিএইচএম