ঢাকা মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০১৮, ৩ মাঘ ১৪২৪
Beta Version

ঢাকায় নির্বাচনে প্রার্থী খুঁজে পাচ্ছেন না এরশাদ!


গো নিউজ২৪ | মোহাম্মদ খলিল প্রকাশিত: জানুয়ারি ১০, ২০১৮, ০৯:২৩ এএম আপডেট: জানুয়ারি ১০, ২০১৮, ০৯:৩৮ এএম
ঢাকায় নির্বাচনে প্রার্থী খুঁজে পাচ্ছেন না এরশাদ!

সম্প্রতি রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জয় লাভের পর বেশ আলোচনায় আসে হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের দল জাতীয় পার্টি (জাপা)। জয়কে কেন্দ্র দলের শীর্ষ নেতা থেকে তৃণমুল নেতাকর্মীদের মাঝে বয়ে যায় আনন্দের বন্যা। এছাড়াও আগামী জাতীয় নির্বাচনে সারা দেশে লাঙ্গল মার্কায় জনগণ ভোট দিয়ে ফের জাপাকে ক্ষমতায় বসাবে। এমন স্বপ্ন দেখা শুরু করেন স্বয়ং এরশাদই। দলের যখন এমন অবস্থায়, ঠিক সেই মুহুর্তে চলে আসছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উপ নির্বাচন। ইতোমধ্যে ওই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হলেও এখনো কোন মেয়র প্রার্থী খুঁজে পাচ্ছে না জাপা।

জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপনির্বাচনে আনুষ্ঠানিকভাবে তফসিল ঘোষণা করা হয়। আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা এ তফসিল ঘোষণা করেন। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়াও মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ১৮ জানুয়ারি। বাছাইয়ের তারিখ ২১ ও ২২ জানুয়ারি। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৯ জানুয়ারি।

এদিকে, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উপনির্বাচন উপলক্ষে ঘরে বসে নেই ক্ষমতাশীন আওয়ামী লীগ ও বৃহত্তর দল বিএনপি। এছাড়াও মাঠে সবর রয়েছে জামায়াতসহ বাম দলগুলোও। কিন্তু এ ক্ষেত্রে জাতীয় পার্টি অনেকটা পিছিয়ে রয়েছে। বাকি দলগুলো নিজেদের প্রার্থী চুড়ান্ত করে মাঠে কাজ শুরু করেছে। কিন্তু জাপা এখনো তাদের দলীয় প্রার্থীর নামটাও ঘোষণা দিতে পারে নাই।

দলীয় সূত্র গোনিউজকে জানিয়েছে, রংপুর সিটি করপোরেশনের জয় লাভের পর ধারণা করা হয়েছিল ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে শক্তিশালী একজন প্রার্থী দেয়া হবে। কিন্তু দলে যোগ্য প্রার্থী অভাব থাকায় তা এখনো সম্ভব হয়নি। তবে প্রার্থীর সন্ধানে দলের শীর্ষ নেতারা দৌঁড়ঝাপ শুরু করেছেন। এছাড়াও দলীয় প্রধান এরশাদও প্রার্থী দেওয়া নিয়ে টেনশনে রয়েছেন।

এদিকে, গতকাল ঢাকা ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তনে জাতীয় পার্টির যৌথসভায় জাপার চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, জাতীয় পার্টির ৯০০ আসনে প্রার্থী দেওয়ার ক্ষমতা আছে। এসময় জাতীয়পার্টি ছাড়া আগামী নির্বাচনে কোনো দল ক্ষমতায় যেতে পারবে না বলেও জানান তিনি। এরশাদের এমন বক্তব্যের পর দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। বাংলাদেশে ৩০০ আসনের জায়গায় ৯০০ আসনে প্রার্থী দেওয়ার  বিষয়টি দলীয় নেতাকর্মীরাও হাস্যকর হিসেবে নিচ্ছে। অনেকেই বলছেন, এরশাদের এখন অনেক বয়স হয়েছে, তাই অনেক সময় না বুঝেই অনেক কিছু বলে ফেলেন।

তবে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের মেয়র প্রার্থী সম্পর্কে জানতে যোগাযোগ করা হয় জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদারের সাথে। এ সময় তিনি গণমাধ্যমকে জানান, এখনো জাতীয় পার্টির প্রার্থী চুড়ান্ত হয়নি। তবে তিনি দাবি করেন, তাদের একাধিক প্রার্থী রয়েছে। তাদের মধ্যে থেকে যাচাই-বাছাই করে যার গ্রহনযোগ্যতা ও জনপ্রিয়তা রয়েছে তাকেই পার্টির চেয়াম্যান মনোনীত করবেন।

রুহুল আমিন এমন বক্তব্য দিলেও দলটির ভেতরে এ নিয়ে আপাতত কোনো আলোচনা নেই বললেই চলে। নেতাকর্মীরা বলছেন, এখন পর্যন্ত আমাদের দল এই নির্বাচন নিয়ে কোনো চিন্তা করেনি। উত্তরে প্রার্থী দেওয়ার মতো যোগ্য প্রার্থী নেই।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পার্টির এক প্রেসিডিয়াম সদস্য জানান, ঢাকা উত্তর সিটিতে নির্বাচন হলে জাতীয় পার্টি কোনো প্রার্থী দেবে না। কারণ, এই মুহূর্তে নির্বাচন করার মতো অবস্থানে দল নেই। এরপরও আমার কথা চূড়ান্ত নয়। সিদ্ধান্ত নিবেন চেয়ারম্যান এরশাদ নিজে।

তিনি বলেন, এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে জাতীয় পার্টি সমর্থন দিতে পারে। বিনিময়ে গাইবান্ধা—১ উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগকে ছাড় দেওয়ার দাবি জানানো হবে। তিনি বলেন, রংপুর সিটি নির্বাচনে পর ঢাকা উত্তরে প্রার্থী না দিলে জাতীয় পার্টির ইমেজ ক্ষুন্ন হবে।

প্রসঙ্গত, গত ৩০ নভেম্বর আনিসুল হক মারা যাওয়ার পর ১ ডিসেম্বর ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র পদটি শূন্য ঘোষণা করেছে স্থানীয় সরকার বিভাগ। সেক্ষেত্রে ৯০ দিনের মধ্যে অর্থাৎ ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এ উপনির্বাচন করতে হচ্ছে ইসিকে। মেয়র পদ শূন্য ঘোষণা করার গেজেট হাতে পাওয়ার পর নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করে ইসি সচিবালয়।

গোনিউজ২৪/কেআর

রাজনীতি বিভাগের আরো খবর
খালেদা নিজেও হাসলেন, পুলিশ-সাংবাদিকও হাসালেন

খালেদা নিজেও হাসলেন, পুলিশ-সাংবাদিকও হাসালেন

নির্বাচন বন্ধ হলে দায়ভার কার?

নির্বাচন বন্ধ হলে দায়ভার কার?

শামীম ওসমানের কথা প্রধানমন্ত্রীর কাছে জানাবেন আইভী

শামীম ওসমানের কথা প্রধানমন্ত্রীর কাছে জানাবেন আইভী

যে কারণে রণক্ষেত্র নারায়ণগঞ্জ

যে কারণে রণক্ষেত্র নারায়ণগঞ্জ

ডিসি ও এসপির প্রত্যাহার চাইলেন মেয়র আইভী

ডিসি ও এসপির প্রত্যাহার চাইলেন মেয়র আইভী

সংঘর্ষের পর কাঁদলেন আইভী

সংঘর্ষের পর কাঁদলেন আইভী

grameenphone