ঢাকা শনিবার, ২০ জানুয়ারি, ২০১৮, ৬ মাঘ ১৪২৪
Beta Version

রক্তশূন্যতায় উপকারী খাবার 


গো নিউজ২৪ | স্বাস্থ্য ডেস্ক প্রকাশিত: এপ্রিল ৮, ২০১৭, ০৮:৩০ পিএম
রক্তশূন্যতায় উপকারী খাবার 

আজকাল অ্যানিমিয়া বা রক্তশূন্যতা সাধারণ একটি রোগ। মহিলা এবং বাচ্চাদের ক্ষেত্রে বেশি দেখা দিলেও এটি সব বয়সী মানুষেরই হতে পারে। যে কয়েকটি লক্ষণে এ রোগ নির্ণয় করা যায়, তা হলো অবসন্নতা, ক্লান্তিভাব, বমি, ঘাম হওয়া, মলের সঙ্গে রক্ত যাওয়া, ছোট শ্বাস, বেশি ঠাণ্ডা অনুভব করা ইত্যাদি। রক্তশূন্যতা দূর করবে যে খাবার-

১. পালং শাক
পালং শাকে ক্যালসিয়াম, ভিটামিন এ, বি৯, ই, সি, বিটা কারটিন এবং আয়রন রয়েছে। যা রক্ত তৈরি করে থাকে। আধা কাপ পালং শাক সিদ্ধতে ৩.২ মিলিগ্রাম আয়রন আছে যা মহিলাদের দেহে ২০% আয়রন পূরণ করে থাকে।  

২. ডালিম
প্রচুর পরিমাণ আয়রন এবং ভিটামিন সি সমৃদ্ধ একটি ফল হল ডালিম। এটি দেহে রক্ত প্রবাহ সচল রেখে দুর্বলতা, ক্লান্ত ভাব দূর করে থাকে।  

৩. বিট
বিট আয়রন সমৃদ্ধ খাবার হওয়া খুব অল্প সময়ের মধ্যে এটি রক্ত স্বল্পতা দূর করে দেয়। এটি লোহিত রক্তকণিকা বৃদ্ধি করে। এবং দেহে অক্সিজেন সরবারহ সচল রাখে।  

৪. টমেটো
টমেটোতে ভিটামিন সি আছে যা অন্য খাবার থেকে আয়রন শুষে নেয়। এছাড়া টমেটোতে বিটা ক্যারটিন, ফাইবার, এবং ভিটামিন ই আছে। প্রতিদিন কমপক্ষে একটি টমেটো খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন বিশেষজ্ঞরা। তবে এর বেশি খেলে আরও ভালো হয়।  

৫. চিনাবাদাম ও পিনাট বাটার
আয়রনের আরেকটি উৎস হল পিনাট বাটার। দুই টেবিল চামচ পিনাট বাটারে ০.৬ মিলিগ্রাম আয়রন পাওয়া যায়। আপানি যদি পিনাট বাটারের স্বাদ পছন্দ না করেন চিনাবাদাম খেতে পারেন। এটিও শরীরে আয়রন বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।  

তাছাড়া ডিম, সয়াবিন, বাদাম, সামুদ্রিক মাছ, খেজুর, কিশমিশ ইত্যাদিতে প্রচুর পরিমাণে আয়রন রয়েছে যা দেহের রক্ত স্বল্পতা রোধ করে। সূত্র: ইন্টারনেট।

গোনিউজ২৪/এম

স্বাস্থ্য বিভাগের আরো খবর
বিদেশ যাওয়ার আগে নিতে হবে যে ভ্যাকসিন গুলো!

বিদেশ যাওয়ার আগে নিতে হবে যে ভ্যাকসিন গুলো!

আমি বাঁচতে চাই: ক্যান্সার আক্রান্ত আউয়ালের আকুতি

আমি বাঁচতে চাই: ক্যান্সার আক্রান্ত আউয়ালের আকুতি

১৩ দিনে রমেকে প্রাণ হারালেন ১৫ জন

১৩ দিনে রমেকে প্রাণ হারালেন ১৫ জন

ভুল চিকিৎসায় হাত ভাঙলো নবজাতকের

ভুল চিকিৎসায় হাত ভাঙলো নবজাতকের

সকল কমিউনিটি ক্লিনিক ১৫ জানুয়ারি থেকে বন্ধ ঘোষণা

সকল কমিউনিটি ক্লিনিক ১৫ জানুয়ারি থেকে বন্ধ ঘোষণা

অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সংযোজনে অনুমতি বাধ্যতামূলক

অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সংযোজনে অনুমতি বাধ্যতামূলক

grameenphone