ঢাকা শনিবার, ২০ জানুয়ারি, ২০১৮, ৭ মাঘ ১৪২৪
Beta Version

কুশিয়ারা নদীর পাড়ে ঐতিহ্যবাহী মাছের মেলা, উৎসবের আমেজ


গো নিউজ২৪ | সেলিম আহমেদ, মৌলভীবাজার: প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৩, ২০১৮, ০৭:১২ পিএম আপডেট: জানুয়ারি ১৪, ২০১৮, ০২:৫০ পিএম
কুশিয়ারা নদীর পাড়ে ঐতিহ্যবাহী মাছের মেলা, উৎসবের আমেজ

মাছের বাজারে গিয়ে ক্রেতাদের ছবি ‍তুলছেন

পৌষ সংক্রান্তি উপলক্ষে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার শেরপুরে চলছে দুই দিনব্যাপী দেশী মাছের মেলা। মেলায় নানা জাতের বড় বড় মাছের দুই শতাধিক দোকান নিয়ে এসেছেন স্থানীয় এবং দূর দূরান্তের বিক্রেতারা। ঐতিহ্যবাহী এই মেলা এখন এলাকার অন্যতম উৎসবে পরিণত হয়েছে। মেলায় বেচাকেনা হয় কয়েক কোটি টাকার দেশী মাছ।

কুশিয়ারা নদীর পাড়ে এলাকায় ত্রিশ একর জায়গায় শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে শুরু হয়েছে দুইদিনব্যাপী মাছের মেলা। চলবে রোববার দুপুর পর্যন্ত। কুশিয়ারা, সুরমা, মনু নদ, হাকালুকি, কাউয়াদীঘি, হাইল হাওরসহ সিলেট বিভাগের বিভিন্ন এলাকা থেকে বাঘাইড়, রুই, কাতলা, বোয়াল, চিতলসহ দেশী জাতের মাছ উঠেছে মেলায়। প্রায় শত বছরের ঐতিহ্যবাহী এই মেলা যুগ যুগ ধরে মৌলভীবাজারসহ আশপাশের এলাকার মানুষদের অন্যতম উৎসবে পরিণত হয়েছে। মেলাটি বসে পৌষ সংক্রান্তির একদিন আগে।

হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার উমরপুর গ্রামের বাসিন্দা প্রবাসী মো. জাকারিয়া হুসাইন গোনিউজকে জানান, ঐতিহ্যবাহী ওই মাছের মেলায় তিনি ছোট বেলা থেকে আসেন। তবে গত দুই বছর প্রবাসে থাকায় তিনি মাছের মেলায় আসতে পারে নাই। তবে এবার জানুয়ারিদে তিনি দেশে ফিরেছেন। তাই ঐতিহ্যবাহী ওই মাছের মেলায় তিনি গিয়েছেন।

তিনি আরো জানান, প্রাণের এই মেলায় গিয়ে অনেক আনন্দ পেয়েছেন। তিনি একা মাছের মেলায় যাননি। গ্রামের বন্ধুরাও তার সাথে গিয়েছিল। সারা দিন মাছের মেলা ঘুরে মাছ ক্রয় করে বাসায় ফিরেছেন বলেও জানান তিনি।

শনিবার সরেজমিনে দেখা যায়, শিশু-কিশোরসহ নানা বয়সের হাজারো মানুষের ঢল মেলায়। মাছের মেলা বলেই মাছের দিকে জনতার স্রোত। বিভিন্ন দোকানে নানা আকারের বোয়াল, রুই, কাতলা, চিতল, বাঘাইড় (বাঘমাছ) নিয়ে বসেছেন বিক্রেতারা। স্থানীয় ব্যাবসায়ি শওকত আলী মেলায় সবচেয়ে বড় বাগাইড় মাছটি নিয়ে আসেন। প্রায় আড়াই মন ওজনের মাছের দাম হেঁকেছেন ২লক্ষ টাকা বিক্রি করেছেন ১লক্ষ ২৬ হাজার টাকা।

বিক্রেতা মো. সামছুল ইসলাম জানান, এবার মেলায় বড় মাছ কম। আগের মতো স্থানীয় নদী, হাওর ও খাল-বিল মাছ নেই। তাছাড়া এবছর এখনও সব হাওর বিল শুকায়নি তাই মাছ ধরা পড়েছে কম। তবে মেলায় ক্রেতা আছেন। দামও ভালো।

মৌলভীবাজার জেলার হাকালুকি, কাওয়াদিঘি, হাইলহাওর, হবিগঞ্জের আজমিরিগঞ্জ ও সুনামগঞ্জের হাওর, মনু, কুশিয়ারাসহ হাওর নদী থেকে মেলা উপলক্ষে এই মাছ ধরা হয়েছে। এছাড়া দেশের দক্ষিণাঞ্চল থেকেও মেলায় মাছ আসে।

শেরপুর মাছের মেলা পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতি আশরাফ আলী খান বলেন, দূর দূরান্ত থেকে ব্যাসবায়িরা মাছ নিয়ে মেলায় আসেন। এবার কয়েক কোটি টাকার মাছ বিক্রি হয়েছে।’

এদিকে মাছের মেলাকে ঘিরে অন্যান্য সামগ্রিও ওঠেছে। বিশাল এলাকায় বিভিন্ন ধরণের খাদ্যের হোটেল, তিলুয়া-বাতাসা, খৈ-মুড়ি, নানারকম মৌসুমী ফল, শিশুদের খেলনা, কিশোরী-তরুণীদের প্রসাধনী। শীতের কাপড়চোপড়।

বাঁশ-বেত ও কাঠের তৈরি আসবাবপত্র। ঘর-সংসারের নানারকম মাটির বাসন-কোসন, কাঠের জিনিস, লোহালক্কড়ের সামগ্রী, কৃষি যন্ত্রপাতি। হরেকরকম চোখ ধাঁধানো পণ্যের দোকান বসেছে। সবকিছুই কেনাবেচা হচ্ছে।

শেরপুরের পাশাপশি জেলার কমলগঞ্জ উপজেলার মুন্সিবাজার, শমসের নগর এবং শ্রীমঙ্গলেও মাছের মেলা বসেছে।

গোনিউজ২৪/কেআর

দেশজুড়ে বিভাগের আরো খবর
হেরে গিয়ে প্রতিপক্ষের উপর হামলা, রক্তাক্ত দম্পতি

হেরে গিয়ে প্রতিপক্ষের উপর হামলা, রক্তাক্ত দম্পতি

নিখোঁজের ৫ দিন পর যুবকের মরদেহ উদ্ধার 

নিখোঁজের ৫ দিন পর যুবকের মরদেহ উদ্ধার 

চোখের পানি ফেলা ছাড়া কিছুই করার নেই আউয়ালের

চোখের পানি ফেলা ছাড়া কিছুই করার নেই আউয়ালের

যশোরে গোলাগুলিতে চারজন নিহত

যশোরে গোলাগুলিতে চারজন নিহত

বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় মামাতো বোনকে ছুরিকাঘাত

বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় মামাতো বোনকে ছুরিকাঘাত

বিনাখরচে ১০ হাজার অন্ধের দৃষ্টি ফেরানোর প্রত্যয় 

বিনাখরচে ১০ হাজার অন্ধের দৃষ্টি ফেরানোর প্রত্যয় 

grameenphone