৫ আশ্বিন ১৪২৪, বুধবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭ , ৪:৫৯ অপরাহ্ণ

মতামত

আত্মহত্যার নৃশংস বাজি ‘নীল তিমি গেম’!

মূলত, ‘ব্লু  হোয়েল’ গেমটির কিছু বিশেষ নিয়ম রয়েছে। সোশ্যাল গেমিং পেজের অ্যাডমিনিস্ট্রেটরের নির্দেশ মোতাবেক এতে ৫০ দিন ধরে বিভিন্ন টাস্ক পূরণ করতে হবে। যার মধ্যে রয়েছে গভীর রাতে ঘুম থেকে উঠে হরর মুভি দেখা.........

মতামত

পাপিষ্ঠদের দুনিয়া বানিশান্তা!

‘নিষিদ্ধ’ পল্লীর এসব মানুষের পেছনের গল্প, স্বপ্নের গল্প, হাসি-কান্নার গল্প, অন্ধকার জগতে প্রবেশের গল্প- সব-ই তুলে এনেছেন পুরস্কারপ্রাপ্ত বাংলাদেশের তরুণ আলোকচিত্রী শাহাদাত হোসেন। 

মতামত

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, রোহিঙ্গা নিয়ে আমার কিছু প্রশ্ন ছিলো!

তিনি একজন প্রধানমন্ত্রী। একটি দেশের প্রধান। তিনি কাজ করেন এবং কথা বলেন অনেক ভেবে চিন্তে। আর আমি একজন খুব সাধারণ খেটে খাওয়া মধ্যবিত্ত ঘরের মেয়ে এবং বউ। আমার কি সাধ্য কোনো জাতীয় ইস্যু নিয়ে তার সাথে কথা বলার। কিন্ত যাকে এতো ভালোবাসি, এতো পছন্দ করি, যাকে অনুসরণ করে পথ চলার চেষ্টা করি, তার কাছে তো কিছু আবদার করাই যায়। আমি আমার ভালোবাসার জায়গা থেকে এই অধিকারটুকু রাখতেই পারি, তাই না?

মতামত

সাকিবের বিশ্রাম এবং আমাদের চাওয়া-পাওয়া আর হতাশা !

বাংলাদেশের জান, বাংলাদেশের প্রাণ আমাদের সাকিব আল হাসান। তিনি বারবার এই কথাটা প্রমাণ করে আসছেন। বিশ্বের কাছে বারবার বাংলাদেশকে তুলে ধরেছেন।

মতামত

রোহিঙ্গারদের আশ্রয় দিবো কি দিবো না?

জাতিসংঘ আমাদের কেন বলছে ওদের আশ্রয় দিতে? সে মিয়ানমারকে কেন বলছে না মানবিক বিপর্যয় থামাতে? আসলে কোনো কথা বলার থেকে সেই কাজ করে দেখানো অনেক কঠিন। সব দেশের ক্ষমতাবান ব্যক্তি কেন আজ চুপ?

মতামত

অং সান সু চি হিটলারের নারী ভার্সন!

রোহিঙ্গাদের জন্মই তো আজন্ম পাপ! তাদের কোনো দেশেরই নাগরিকত্ব নেই। ওরা নিজ দেশের সরকারের কাছেই আবর্জনা। নিজেদের সেনাবাহিনীর কাছেই ধর্ষণ-হত্যাযজ্ঞের শিকার। ছিঃ ভাবতেই গা ঘিন ঘিন করে উঠছে। একটা দেশের সেনাবাহিনী তার নিজের দেশেরই মা বোন মেয়েদের ‘ধর্ষণ উৎসবে’ মেতে উঠেছে। যে সেনাবাহিনীর জন্ম দেশ ও দেশের মানুষের নিরাপত্তার জন্য, সেই তারা শেষ পর্যন্ত! ছিঃ ধিক্কার এমন মানুষরূপী পশু বাহিনীদের!

মতামত

পুরুষের পোশাক পরলেই নারীবাদী হওয়া যায় না!

আদিম যুগে পোশাক ছিলো না বলে আমাদের পূর্ব পুরুষরা গাছের ছাল-বাকল দিয়ে লজ্জাস্থান ঢাকতো। যদিও বাকি শরীর থাকতো নগ্ন। আর আমরা আধুনিক হওয়ার পর ধীরে ধীরে আদিমযুগেই চলে যাচ্ছি। অথচ এখন  আমরা সেই আদিম স্টাইলেই কোনোরকমে লজ্জাস্থান ঢেকে ঢুকে শরীরের সব অংশ বের করে রাখি।

মতামত

কয়েকটি ইঁদুর, মুন্নি আপু ও একজন মমতাদির গল্প!

মা বাচ্চাটাকে এখনো পেট ভরে দুধ খাওয়াতে পারে নি। বুকে দুধ আসবেই বা কোথা থেকে? নিজেই তো আজ তিনদিন পেট ভরে খেতে পারে নি। কাঁচা শরীর নিয়ে কেমন করে যে পড়ে আছে তা একমাত্র আল্লাহ আর রহিমের বউই জানে।

মতামত

বঙ্গবন্ধুবিরোধিরা চলে যান পাকিস্তান 

বঙ্গবন্ধু দল মত নির্বিশেষে সবার ঊর্ধ্বে। এ ব্যাপারে কারো দ্বিমত থাকলে তাদের বলছি, বাংলাদেশ ছেড়ে পাকিস্তানেই চলে যান। এ কথা কে না জানে, আজও জার্মানিতে হিটলারের সমর্থকদের সন্ধান পাওয়া গেলে রেহাই দেয়া হয় না। তাহলে বঙ্গবন্ধু বিরোধিরা কেন রেহাই পাবে?

মতামত

শোকের মাস আগস্ট
এত মিথ্যাচারেও নত নন জাতির পিতা

আলী সেই প্রথম জানলেন শুধু ডাকাত নয়, দেশের মানুষের রাজনীতি করলেও পুলিশ ধরে। তিনি আগ্রহী হন। পল্টন মাঠে বৃষ্টিতে ভিজে শোনেন ছয় দফার গান। সিনেমার বই লাটে ওঠে, এই লোকের কথা মানুষের কাছে পৌঁছানোর পণ করেন আলী।