৭ ভাদ্র ১৪২৪, বুধবার ২৩ আগস্ট ২০১৭ , ৪:৪৩ পূর্বাহ্ণ

স্থানীয়ভাবে প্রশ্ন ছাপিয়ে আগামী বছরের পরীক্ষা : নাহিদ


গো নিউজ২৪ | গো নিউজ ডেস্ক আপডেট: ০২ এপ্রিল ২০১৭ রবিবার
স্থানীয়ভাবে প্রশ্ন ছাপিয়ে আগামী বছরের পরীক্ষা : নাহিদ

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, আগামী এসএসসি পরীক্ষা থেকেই স্থানীয়ভাবে যাতে প্রশ্নপত্র ছেপে বিতরণ করা যায় সেই পদক্ষেপ নেওয়া হবে। সব পাবলিক পরীক্ষায় এই পদ্ধতি চালু করা হবে। প্রশ্নপত্র ফাঁস এড়াতে সরকার এই পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে বলেও জানান তিনি।

রোববার এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরুর দিনে ঢাকা কলেজ কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে শিক্ষামন্ত্রী সাংবাদিকদের সামনে এই কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা এড়াতে শিক্ষাবিদ ও শিক্ষকরা ডিজিটাল পদ্ধতিতে প্রশ্নপত্র তৈরির সুপারিশ করেন। সেই সুপারিশ বিবেচনায় নিয়েই সরকার স্থানীয়ভাবে প্রশ্নপত্র ছাপানোর এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ডিজিটাল পদ্ধতিতে কম্পিউটার থেকে প্রশ্ন বের করে ছাপিয়ে বিতরণের উদ্যোগ নেওয়া হবে। আগামী বছর থেকেই এই ব্যবস্থা চালু করবো।’

সকাল ১০টায় সারাদেশে একযোগে শুরু হয়েছে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা। আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডসহ দশটি শিক্ষা বোর্ডের আওতায় (বিআইডিএসসহ) এবার মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা মোট ১১ লাখ ৮৩ হাজার ৬৮৬ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ছাত্র ৬ লাখ ৩৫ হাজার ৬৯৭ এবং ছাত্রী ৫ লাখ ৪৭ হাজার ৯৮৯ জন। গত বছরের চেয়ে এবার পরীক্ষার্থীর সংখ্যা কমেছে ৩৪ হাজার ৯৪২ জন।

আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের আওতায় এইচএসসি তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষ হবে ১৫ মে। তত্ত্বীয় পরীক্ষার পর ১৬ থেকে ২৫ মে ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে আলীম পরীক্ষা শেষ হবে ৩ মে। তত্ত্বীয় পরীক্ষার পর ১১ মে’র মধ্যে ব্যবহারিক পরীক্ষা শেষ করতে হবে। কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এইচএসসি (ভোকেশনাল) তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষ হবে ১৭ এপ্রিল। ব্যবহারিক পরীক্ষা ১৮ থেকে ২৬ এপ্রিলের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে। এইচএসসি (ব্যবসায় ব্যব্স্থাপনা) তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষ হবে ২৯ এপ্রিল। পরীক্ষার পর ১১ থেকে ১৮ মে ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ডিপ্লোমা-ইন কমার্স তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষ হবে ১৯ এপ্রিল। ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ৩ থেকে ১১ মে।