৫ শ্রাবণ ১৪২৪, বৃহস্পতিবার ২০ জুলাই ২০১৭ , ১০:৪৬ অপরাহ্ণ

সোশ্যাল মিডিয়ায় কারা আসতে চান না?


গো নিউজ২৪ | নিউজ ডেস্ক আপডেট: ১৬ মে ২০১৭ মঙ্গলবার
সোশ্যাল মিডিয়ায় কারা  আসতে চান না?

বর্তমানে ফেসবুক টুইটারে নেই এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া সত্যিই বেশ কঠিন ব্যাপার। কারণ আমাদের জীবন বাস্তবতার সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো মিলেমিশে একাকার হয়ে গেছে। তবে এক শ্রেণীর মানুষ সোসাল মিডিয়ায় একেবারেই আসতে চান না। কী কারণে তারা আসতে চান না? জেনে নেয়া যাক সেসব কারণগুলো:

• আসলে যারা নিজের দুনিয়ায় খুব খুশি মনে থাকেন তারা সাধারণত নিজেদের ব্যক্তিগত জীবন অন্যের সঙ্গে শেয়ার করতে চান না। তাই তো সোলাল মিডিয়ায় নিজেদের প্রবেশের উপর সব সময় নিয়ন্ত্রণ রেখে দেন।

• অনেকেই মনে করেন খুশির মুহূর্ত সোসাল মিডিয়ায় প্রকাশ করলে কু-নজর লেগে যেতে পারে। তাই তো ফেসবুক বা ইনস্টাগ্রাম থেকে দূরে থাকতেই এরা বেশি পছন্দ করেন। 

• সোসাল মিডিয়ায় আসা-যাওয়া করা মানেই সময় নষ্ট হওয়া, এমন ভাবনার কারণেও অনেকে এই সবের থেকে দূরে থাকেন। 

• ফেসবুকে কোনও বন্ধুকে বেরাতে যেতে দেখলেই আমাদেরও এমনটা করতে ইচ্ছা করে। কারণ আমাদের জীবন অনেকাংশেই সোসাল মিডিয়ার নানা পোস্ট দ্বারা প্রভাবিত হয়ে থাকে। এজন্য, এমন মানসিকতার মানুষেরা সোসাল মিডিয়া প্লাটফর্মে বেশি সামাজিত হতে চান না। 

• জীবনের খারাপ সময়ের ছবি সোসাল মিডিয়ায় প্রকাশ করা মাত্র একদল এই নিয়ে হাসাহাসি করে, নয়তো নিজেদের মতামত দিয়ে জীবন আরও দুর্বিসহ করে তুলে তোলার চেষ্টা চালায়। এমন মনে করা মানুষেরা ফেসবুকে আসতে চান না।

• সোসাল প্লাটফর্মে সময় নষ্ট করলে জীবনের অনেক মূল্যবান মুহূর্ত থেকে বঞ্চিত হতে হয়। তাই অনেকেই ফেসবুকের নাম শুনলেই দূরে পালায়।

• অনেকেই নিজেদের তৈরি কিছু নিয়ম মেনে জীবনের গতিপথ নির্ধারণ করে থাকেন। আর সেই সব নিয়মগুলিন মধ্যে যদি একটা নিয়ম এটা হয় যে, ব্যক্তিগত জীবনকে একেবারেই জন সাধারণের সামনে নিয়ে না আসা, তাহলে কিন্তু সেই মানুষটি সোসাল মিডিয়ায় একেবারেই অ্যাকটিভ হবেন না। 

• আনন্দে থাকতে গেলে কি লোকের অনুমতির প্রয়োজন পরে? তাহলে ফেসবুকে অকারণে খুশির মুহূর্ত শেয়ার করার মানে কী! এমনা ভাবনা থেকেও অনেকে সোসাল মিডিয়ায় সেভাবে আসতে চান না। 

• অনেক ছেলে-মেয়েই চান না তাদের জীবনের কোনও মুহূর্ত তাদের বাবা-মা সোসাল মিডিয়ায় শেয়ার করুক। সে ব্য়াপারে তারা বাবা-মাদের জানিয়েও দেন। এই কারণেও অনেকে সোসাল মিডিয়ায় অ্যাকটিভ থাকেন না।


গো নিউজ২৪/এএইচ