৮ আশ্বিন ১৪২৪, শনিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭ , ১:২৬ অপরাহ্ণ

সুস্বাস্থ্যের জন্য চকলেটের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ 


গো নিউজ২৪ | নিউজ ডেস্ক আপডেট: ০৯ মে ২০১৭ মঙ্গলবার
সুস্বাস্থ্যের জন্য চকলেটের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ 

চকলেট খেতে কার না মজা লাগে। ছোট বড় সবাই চকলেট দেখলে চঞ্চল হয়ে ওঠেন। বাজারেও নানা স্বাদের চকলেট কিনতে পাওয়া যায়। অবশ্য কেউ কেউ মনে করেন চকলেট দাঁত তো বটেই স্বাস্থ্যেরও বারোটা বাজিয়ে দেয়। কিন্তু আসলেই কি তাই। বিজ্ঞানীরা অবশ্য বলছেন সুস্বাস্থ্যের জন্য চকলেট দারুণ উপকারী। বিশেষ করে ডার্ক চকলেট।
অনেক চিকিৎসক তাই সুস্বাস্থ্যের জন্য চকলেট খাওয়ার পরামর্শও দিয়ে থাকেন। যদিও অনেক অভিভাবক তার সন্তানকে মজার এই খাদ্য থেকে দূরেই রাখতে চান। তাই জেনে নিন কেন চকলেট খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী।
হৃদপিণ্ডের সুস্থতায়: সুঠাম স্বাস্থ্যের অধিকারী হতে হলে ডার্ক চকলেটের জুড়ি নেই। শুধু কি তাই যারা দীর্ঘদিন বেঁচে থাকতে চান তাদের জন্য বিজ্ঞানীরা চকলেট খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। অবশ্য তা মাত্রাতিরিক্ত নয়! বিজ্ঞানীরা দেখেছেন, দিনে নির্দিস্ট পরিমাণ চকলেট খেলে হৃদপিণ্ড ভালো থাকে। গবেষণায় দেখা গেছে, কোকো সমৃদ্ধ ডার্ক চকলেট রক্তনালীর প্রবাহ ভালো রাখে। রক্তচাপ তো আছেই, ইনসুলিন এবং কোলেস্টেরলের মাত্রা ঠিক রাখতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চকলেট।

স্মৃতিশক্তি ঠিক রাখতে: ডার্ক চকলেটে রেসভেরাট্রল বলে এক ধরনের উপাদান থাকে। যা মানসিক দক্ষতা হ্রাসের বিরুদ্ধে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। স্মৃতিশক্তি ঠিক রাখতেও চকলেট অনেক উপকারী।
পাকস্থলীর ক্যান্সার প্রতিরোধে: গবেষণায় দেখা গেছে প্রতিদিন নির্দিষ্ট পরিমান ডার্ক চকলেট খেলে নানা রোগ ব্যাধি থেকে শরীরকে মুক্ত রাখা যায়। অনেকে বলে থাকেন চকলেট খেলে পেট খারাপ হয়! আসলে এটা ভুল ধারণা। ডার্ক চকলেটে এমন উপাদান থাকে যা পাকস্থলীর ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে।
ক্রোধ দমায়: যাদের হুট করে রেগে যাওয়ার অভ্যাস আছে তারা কিন্তু চকলেট খেয়ে দেখতে পারেন! কেননা, বিজ্ঞানীরা দেখেছেন নির্দিষ্ট পরিমাণ ডার্ক চকলেট খেলে মস্তিস্কের এন্ডোরফিনের মাত্রা বৃদ্ধি পায়। যা রাগকে অনেকটাই দমন করতে সাহায্য করে।

 

গো নিউজ২৪