৮ কার্তিক ১৪২৪, মঙ্গলবার ২৪ অক্টোবর ২০১৭ , ১২:৪৭ পূর্বাহ্ণ

সময়কে বিদ্ধ করা উপন্যাস ‘আহ্ পাকিস্তান’ 


গো নিউজ২৪ | মোমিন স্বপন, আপডেট: ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ সোমবার
সময়কে বিদ্ধ করা উপন্যাস ‘আহ্ পাকিস্তান’ 

সময়ের ভাঁজে জীবনের গল্পকে ধরে রাখার উৎকৃষ্ট মাধ্যম উপন্যাস। সেখানে শুধু বাতুলতা নয়। বাস্তবতার তুলিতে সেই জীবন বোধের চিত্র আঁকার চেষ্টা করেন লেখক।

এবারের অমর একুশে বইমেলায় পাওয়া যাচ্ছে সময়কে বিদ্ধ করা ব্যতিক্রমী উপন্যাস ‘আহ পাকিস্তান’।

সাংবাদিক মতিয়ুল ইসলাম নিয়ন বইটির রূপকার। রূপকারই বটেই। লিখলেই লেখক হওয়া যায় না। তাকে রূপ দিতে হয় বাস্তব অভিজ্ঞতায় আর প্রজ্ঞাময় চেতনায়।    

উপন্যাসটির সংক্ষিপ্ত ঘটনাক্রম: 
জাতীয় সংগীত কখনও ফারাবির কণ্ঠে ওঠেনি। কখনও স্যালুট করেনি লাল-সবুজের পতাকাকে। মুক্তিযুদ্ধের আত্মত্যাগের মহিমা তাকে কোনোদিন স্পর্শই করেনি। এভাবেই কেটে গেছে তার স্কুল ও কলেজ জীবন। বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে এসেই সে জড়িয়ে পড়ে উগ্রপন্থি সংগঠনের সঙ্গে। তারপরই বদলে যেতে থাকে বিজ্ঞানমনস্ক ফারাবির জীবন। হয়ে ওঠে প্রবল প্রতিক্রিয়াশীল, স্বাধীনতাবিরোধী। 

বন্ধুরা আড়ালে আবডালে তাকে পাকিপ্রেমী বলে বেড়ায়। সময়ের পাকচক্রে তারও জীবনে আসে প্রেম-ভালোবাসা। কিন্তু শেষ অবধি সবকিছুই কেমন উলট-পালট হয়ে যায়। স্বাধীনতার সাড়ে চার দশক পরেও ফারাবির বুকের মধ্যে গুমড়ে মরে পাকিস্তান প্রেম। 

একদিকে ‘আহ্ পাকিস্তান’ উপন্যাসটি  যেমন ধর্মান্ধতার ঘোরটোপে আটকে থাকা এক তরুণের নষ্ট জীবনবোধের গল্প, অন্যদিকে লেখকের অসাম্প্রদায়িক মনোভাব ও দেশপ্রেমেরও। 

লেখক পরিচিতি:
মতিয়ুল ইসলাম নিয়ন। সাংবাদিকতায় বুধ হওয়া একজন মানুষ। কিন্তু লেখক হয়ে ওঠার গল্পও তার নিজস্ব বোধ থেকে। পারিপার্শ্বিক দম আটকানো পাথর সময়ই তাকে কলম ধরা শিখিয়েছে। ছেলেবেলা থেকেই বড্ড অন্তর্মুখি। হতে চেয়েছিলেন পথের পাঁচালীর অপু কিংবা ডাকঘরের অমল। স্কুলজীবনে ক্লাসে বরাবরই প্রথম হওয়া নিয়ন মতিয়ুল স্বপ্ন দেখতেন আইনস্টাইন হওয়ারও। মা বলতেন ডাক্তার, বাবা বলতেন ইঞ্জিনিয়ার। শেষ অবধি সমাজ-রাষ্ট্রের প্রতি প্রবল দায়বদ্ধতা থেকেই সাংবাদিক হয়ে ওঠা। তবে পেশা সাংবাদিকতা হলেও লেখালেখিই তার নেশা। অজস্র গল্প-কবিতা চুপি চুপি মরে গেছে প্রচারবিমুখ আর উদাসীনতার কারণে।

একাত্তরের উত্তাল সময়ে লেখকের জন্ম। বগুড়ায় গাবতলী উপজেলার কদমতলী গ্রামে। বগুড়া সরকারি আজিজুল হক বিশ্বাবিদ্যালয় কলেজ থেকে বিজ্ঞানে স্নাতক। গতানুগতিক পড়ালেখা তার মোটেই ভালো লাগতো না। 

প্রবলরকম আত্মপ্রত্যয়ী এই লেখকের প্রথম বই অন্যরকম এক তাড়না থেকে। সাম্প্রতিককালে দেশে লাগামছাড়া সাম্প্রদায়িক সহিংসতা আর ধর্মান্ধতা ভাবিয়ে তুলেছে দেশপ্রেমিক এই লেখককে। যার ফসল ‘আহ্ পাকিস্তান’। প্রেক্ষাপট অসাম্প্রদায়িকতা হলেও উপজীব্য মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও দেশপ্রেম।

তবে চমৎকার পটভূমিতে লেখা এ রাজনৈতিক উপন্যাসটির ভাবনার আরো গভীরে যাওয়া যেত। কিছু কিছু ক্ষেত্রে একেবারেই হঠাৎ থেমে গেছে প্রাসঙ্গিকতা। তবে সবকিছু মিলিয়ে ভিন্ন স্বাদের এ উপন্যাস দেশপ্রেমিক পাঠককে মুগ্ধ করতে বাধ্য।  

মোস্তাফিজ কারিগরের তারকা খচিত প্রচ্ছদ পাকিস্তানের পতাকাকেই স্মরণ করিয়ে দেয়। উপন্যাসটি প্রকাশ করেছে ঐতিহ্যবাহী বলাকা প্রকাশন। মূল্য ১৪০ টাকা। 

মহান একুশে গ্রন্থমেলা-২০১৭ এর বলাকা প্রকাশনের স্টল নম্বর-৪৫৩ পাওয়া যাবে চমৎকার এ বইটি।

গোনিউজ২৪/এম