১০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, শুক্রবার ২৪ নভেম্বর ২০১৭ , ৬:৫৭ অপরাহ্ণ

সভায় এমপি কেয়া চৌধুরীর উপর হামলা, ওসমানীতে ভর্তি


গো নিউজ২৪ | হবিগঞ্জ প্রতিনিধি আপডেট: ১১ নভেম্বর ২০১৭ শনিবার
সভায় এমপি কেয়া চৌধুরীর উপর হামলা, ওসমানীতে ভর্তি

হবিগঞ্জ জেলার বাহুবল উপজেলার মিরপুরে সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী একটি সভায় হামলার ঘটনা ঘটেছে। আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের কতিপয় নেতাকর্মী ওই হামলা চালিয়েছে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। আজ শুক্রবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। পরে রাত ৯টার দিকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ওসমানীতে আনার পর কেয়া চৌধুরী শংকামুক্ত বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত ডাক্তাররা। তবে তাকে আইসিইউতে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

জানা যায়,  শুক্রবার বিকেলে বাহুবলের মিরপুরে বেদে সম্প্রদায়ের মধ্যে সমাজসেবার চেক ও বয়স্ক ভাতার কার্ড বিতরণ অনুষ্ঠান ছিল। ওই অনুষ্ঠান শেষে কেয়া চৌধুরী বেদে বহর পরিদর্শন করেন। এ সময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তারা মিয়ার গাড়িচালক কেয়া চৌধুরীর সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ এবং কেয়া চৌধুরী ভিডিওধারণ করতে থাকেন। কেয়া চৌধুরী ভিডিওধারণের কারণ জানতে চাইলে গাড়িচালক সদুত্তর দিতে পারেন নি।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে জেলা পরিষদের সদস্য আলাউর রহমান ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তারা মিয়া ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে কেয়া চৌধুরীকে গালিগালাজ করতে থাকেন। ওই ঘটনার পর সন্ধ্যায় একটি পথসভায় মিরপুরের বাসিন্দাদের বিষয়টি অবগত করে বক্তব্য রাখেন কেয়া। বক্তব্যের একপর্যায়ে তিনি অসুস্থবোধ করতে থাকেন। পরে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন তিনি।

এমপি কেয়া চৌধুরীর একান্ত সহকারী মামুন আহমদ জানান- হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার মিরপুরে অনুদানের চেক বিতরনকালে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তারা মিয়ার নেতৃত্বে তাঁর উপর হামলা হয়। হামলায় আহত হয়ে কেয়া চৌধুরী জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।

স্থানীয়রা জানান- হামলাকারীরা কেয়া চৌধুরীর বিরোধী ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মী।

পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে মাহবুবুল হক- কেয়া চৌধুরী শংকামুক্ত। তাঁর জ্ঞান আছে। ডাকলে তিনি সারা দিচ্ছেন। তাকে ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে আসা হচ্ছে।

গোনিউজ২৪/কেআর