৫ ভাদ্র ১৪২৪, সোমবার ২১ আগস্ট ২০১৭ , ২:৫৮ পূর্বাহ্ণ

শিশুকে কিসমিস নয় !


গো নিউজ২৪ আপডেট: ২৮ মার্চ ২০১৭ মঙ্গলবার
শিশুকে কিসমিস নয় !

আমরা জানি কিশমিশ স্বাস্থ্যের জন্য খুব উপকারী। সারাদিনের কর্মশক্তির অন্যতম উৎস হতে পারে কিশমিশ। রক্তশূন্যতা রোধ, মুখের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে, হাড়ের সুস্থতায়, দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখাসহ নানা রোগের জন্য কিশমিশের বিকল্প নাই। কিন্তু এ উপকারী ফলেও আছে কিছু ক্ষতিকর দিক।

তাই ডেন্টিস্টরা শিশুদের কিশমিশ দেওয়ার আগে অন্তত দুইবার ভাবতে বলেছেন। কেননা কিশমিশ শিশুদের দাঁতের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। মিররে এক প্রতিবেদনে বলা হয়, পুষ্টিকর এবং বৃদ্ধিতে সহায়ক হওয়া সত্বেও অনেক স্বাস্থ্যকর খাবারও শিশুদের দাঁতের জন্য ভয়ানক ক্ষতির কারণ হতে পারে। এর ফলে শিশুদের পরবর্তী জীবনে মারাত্মক সমস্যা তৈরি করতে পারে।

শারা সাবির নামের একজন ডেন্টিস্ট বলেন, দাঁতের ক্ষয়ের জন্য সবচেয়ে ক্ষতিকর খাবার হলো কিশমিশ ও শুকনো ফল। অনেক বাবা-মা ভাবেন, শুকনো ফল ভিটামিন সমৃদ্ধ হওয়ায় স্বস্থ্যের জন্য খুব উপকারী কিন্তু এতে থাকা গাঢ় চিনি শিশুদের দাঁতের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর।

তিনি আরো বলেন, ছোট এক প্যাকেট কিশমিশে প্রায় ৮ চা-চামুচ চিনি থাকে। কিন্তু এনএইচএস অনুযায়ী, ৪-৬ বছর বয়সী শিশুদের দৈনিক ৫ কিউবের বেশি চিনি খাওয়া উচিত না। আর ৭-১০ বছরের শিশুদের জন্য সর্বোচ্চ ৬ কিউব।

শারা বলেন, কিশমিশ আঠালো এবং দাঁতে আটকে থাকে। যার ফলে ব্যাকটেরিয়া সহজে আক্রমণ করে এবং দীর্ঘ সময় ধরে দাঁতের ক্ষয় করে। কিশমিশ পুষ্টগুণ সমৃদ্ধ হওয়ায় শারা শিশুদের মিষ্টিজাতীয় খাবারে কিশমিশ পেস্ট করে খাওয়াতে পরামর্শ দেন। সুত্রঃ মিরর।