১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪, শনিবার ২৭ মে ২০১৭ , ১১:৪১ অপরাহ্ণ

শাহরুখ খানের ‘ভাইরাল’ মার্কশিট, দুর্বল ছিলেন ইংরেজীতে!


গো নিউজ২৪ | বিনোদন ডেস্ক আপডেট: ১৮ মে ২০১৭ বৃহস্পতিবার
শাহরুখ খানের ‘ভাইরাল’ মার্কশিট, দুর্বল ছিলেন ইংরেজীতে!

বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান।  বর্তমানে ঝরঝরে ইংরেজি বলেন তিনি। তবে কলেজ জীবনে শাহরুখ কিন্তু মোটেই ইংরেজিতে তুখোড় ছিলেন না। সম্প্রতি তাঁর ফাঁস হয়ে যাওয়া মার্কশিটে সেটাই বোঝা গেল। একটি ইংরেজি গসিপ ওয়েবসাইটে একটি মার্কশিট প্রকাশ করে দাবি করা হয়েছে সেটি শাহরুখ খানের এবং বলা হয়েছে যে কলেজজীবনে তিনি ইংরেজিতে বেশ দুর্বল ছিলেন।

শাহরুখ ইকনমিক্স অনার্স নিয়ে পড়তেন দিল্লির হংসরাজ কলেজে। তারপরেই তিনি মাস কমিউনিকেশন নিয়ে পড়তে চলে যান জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে। প্রকাশ হওয়া মার্কশিটটি হংসরাজ কলেজের বলে দাবি করেছে ওই গসিপ ওয়েবসাইট। 

সেই মার্কশিটে দেখা যাচ্ছে তিনি ইংরেজিতে মাত্র ৫১ পেয়েছেন। মার্কশিটটি যে ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে তাদের বক্তব্য, ‘টেড টকস’-এ শাহরুখের পরিষ্কার ইংরেজিতে দেওয়া বক্তব্যে মোটেও বোঝা যায় না যে কিংগ খানও একসময় আম ভারতীয়ের মতো ইংরেজিকে বেশ ভয় পেতেন।

জানা গিয়েছে, ‘দিল্লি ইউনিভার্সিটি টাইমস’ নামে একটি ওয়েবসাইট চালান দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র। সেই ওয়েবসাইটের অ্যাডমিন মিলহাজ হোসেন। তিনিই শাহরুখের মার্কশিট প্রকাশ করে দেন এবং এর পিছনে একটা যুক্তিও দিয়েছেন। তিনি জানান, ‘অনলাইনে এই মার্কশিট প্রকাশ করা হয়েছে এটা বোঝানোর জন্য যে পরীক্ষার মার্কস কোনও কাজে আসে না, যদি কেউ কঠোর পরিশ্রমী ও নিজের জীবনের লক্ষ্য নিয়ে সচেতন হয়।’ 

এই জন্যই নাকি তিনি তামাম দেশবাসীর সামনে শাহরুখের দৃষ্টান্ত তুলে ধরতে চেয়েছেন। মিলহাজ তাঁর নিজের ওয়েবসাইটে লিখেছেন, ‘শাহরুখ ছাড়া ছাত্রদের সামনে আর কে বড় উদাহরণ হতে পারেন? আমাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আমরা ছাত্রছাত্রীদের উৎসাহ দিই। তাছাড়া সেলিব্রিটি পোস্ট সব সময়ে ছাত্রছাত্রীদের বেশি আকৃষ্ট করে। তাই এখানে যখন কিংগ খানের দৃষ্টান্ত দেওয়া হল, ভিড় তো এমনিতেই বাড়বে।’

কোনও সন্দেহ নেই, যে এই মার্কশিটটি প্রকাশ করার পরে মিলহাজের ওয়েবসাইটে ভিড় বেড়েছে। তবে যে গসিপ ওয়েবসাইটটি মিলহাজকে উদ্ধৃত করে মার্কশিট ফাঁসের প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেছে, তারা এই মার্কশিটের সত্যতা যাচাই করতে কিংগ খানের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে কি না জানা যায়নি। ওদিকে কিংগ খানও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়া এই খবর নিয়ে কোনও বিবৃতি দেননি।

গো নিউজ২৪/এএইচ