৩ কার্তিক ১৪২৪, বুধবার ১৮ অক্টোবর ২০১৭ , ১১:২০ পূর্বাহ্ণ

শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত ডিগ্রী কলেজকে সরকারী ঘোষণা


গো নিউজ২৪ আপডেট: ০৪ জুলাই ২০১৬ সোমবার
শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত ডিগ্রী কলেজকে সরকারী ঘোষণা

প্রতিষ্ঠার ৪৪ বছর পর অবশেষে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ এমপি’র ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় তার নিজ উপজেলা সদরে তার বাবার নামে প্রতিষ্ঠিত ‘শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত ডিগ্রী কলেজ’ জাতীয়করণের অনুমোদন দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

কলেজ জাতীয়করণের খবরে উপজেলার সর্বত্র বইছে আনন্দের বন্যা। গত রোববার বিকেলে শিক্ষা মন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, শিক্ষা সচিব মো. সোহরাব হোসেন, অতিরিক্ত সচিব এএস মাহমুদ, মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. ওয়াহিদুজ্জামান এর বরাত দিয়ে দেশের ১৯৯টি কলেজের জাতীয়করণের তালিকা দৈনিক শিক্ষা’র ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে।

সূত্র মতে, যেসব উপজেলায় কোন সরকারী কলেজ নেই সেখানে ১টি করে কলেজ জাতীয়করণ করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পর শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক গঠিত কমিটি ৩২৫টি কলেজের তালিকা প্রস্তুত করে প্রধানমন্ত্রীর নিকট দাখিল করেন। এরপর নানা অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে যাচাই বাছাইয়ের পর গত ৩০ জুন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে অত্যন্ত গোপনীয়তার মধ্যে পৃথক দু’টি তালিকা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানোর পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯টি কলেজ জাতীয়করণের অনুমোদন দিয়েছেন।

১৯৭২ সালে কলেজ প্রতিষ্ঠার পর থেকে ‘শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত ডিগ্রী কলেজ’ সরকারী ঘোষণার জোর দাবি করে আসছিল কলেজ শিক্ষক-কর্মচারীসহ এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারণ। তাই ৪৪ বছর পর এলাকার গণদাবি পূরণ হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আগৈলঝাড়াবাসীর পক্ষে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান, বরিশাল জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত ডিগ্রী কলেজ গভর্নিংবডি’র সভাপতি, সাবেক চিফ হুইপ আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ এমপি।

কলেজ জাতীয়করণের খবরে কলেজ শিক্ষক-কর্মচারী, এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারণসহ উপজেলার সর্বত্র বইছে আনন্দের বন্যা।


গো-নিউজ২৪/অপূর্ব লাল সরকার