৭ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, বুধবার ২২ নভেম্বর ২০১৭ , ৯:৩৯ পূর্বাহ্ণ

রাতে বিছানার পাশে রাখুন, সকালেই দেখবেন ম্যাজিক!


গো নিউজ২৪ | লাইফস্টাইল ডেস্ক আপডেট: ০৭ জুলাই ২০১৭ শুক্রবার
রাতে বিছানার পাশে রাখুন, সকালেই দেখবেন ম্যাজিক!

লেবুর গুণাগুণ কে না জানে। স্বাস্থ্যের জন্য তো বটেই আরও অনেক কিছুর জন্যই লেবুর ব্যবহার অত্যন্ত জরুরি। লেবুর রস করে প্রতিদিন খেলে শরীর তাজা থাকে। মেদ জমে না। আরও অনেক কিছুর জন্যও লেবু উপকারে লাগে। জানেন কি, বেডে যদি এক কুচি লেবু রাখলে আপনার সঙ্গে কী হতে পারে ?

১. এটা বেডে রাখার সঙ্গে কোনও মিল নেই। তবে এবার থেকে পাহাড়ে ট্রেকিং করার সময় বা বরফাবৃত পাহাড় অভিযানে অংশগ্রহণ করলে, সঙ্গে একটি লেবু রাখুন। প্রথম এভারেস্টজয়ী এডমন্ড হিলারি বলেছিলেন, এভারেস্টে শ্বাস-প্রশ্বাস স্বাভাবিক রাখতে ও শৃঙ্গজয় করতে লেবুই একমাত্র উপায়। লেবুর জন্য নাকি তিনি এভারেস্ট করতে পেরেছিলেন!

২. প্রতিদিন যদি লেবুর রস খান, তাহলে চোখের নানারকম অসুবিধা সেরে যাবে।ভালো ফল দেখতে গিয়ে চোখের মধ্যে সরাসরি লেবুর রস দিয়ে দেবেন না যেন।

৩. অনমেকেই জানেন না, লেবু শুধু খেলেই নয়। ঘরের মধ্যে একটুকরো লেবু রাখলে আপনার ঘর-বাড়ির পরিবেশই পাল্টে যাবে। লেবু অনেকটা অ্যারোমার কাজ করে। তাই ঘরে লেবু রাখলে মানসিকে শান্তি মেলে, স্ট্রেস কমে যায়। মন শান্ত ও তরতাজা রাখতে লেবুর গুণ
অসাধারণ।

৪. শোওয়ার ঘরে বা বেডের মধ্যে লেবু রাখলে খুব ভালো ঘুম হয়। লেবু যেহেতু অ্যারোমার কাজ করে, তাই মানসিক জোর ও লক্ষ্য স্থির রাখতেও সাহায্য করে। মেমোরি অর্থাৎ বুদ্ধির বিকাশ ঘটে দ্রুত। শুধু শোওয়ার সময়ই নয়। কর্মক্ষেত্রে স্টেস কমাতে ও মনোসংযোগ বাড়াতে আপনি যদি লেবুর গন্ধ নেন, দেখবেন এক নিমেষর মধ্যে সমংস্ত ক্লান্তি দূর হয়ে যাবে। কাজের প্রতি মনোসংযোগও বাড়বে।

৫. মুড চেঞ্জ করতেও লেবুর গুণ রয়েছে। লেমন ওয়েল ডিপ্রেসন কমাতে সাহায্য করে। শুধু মানসিক অবসাদ ঘোচাতেই নয়, আপনি মাঝে মাঝেই লেবুর গন্ধ নিতে পারেন। তাতে মন শান্ত থাকবে।

৬. লেবুর গন্ধ যেহেতু অ্যারোমার কাজ করে, তাই ঘরের পরিবেশকে বদলাতে এর সময় লাগে মাত্র কয়েক সেকেন্ড। ঘরের বাতাসে ভেসে থাকা ব্যাকটেরিয়া মেরে ফেলতেও লেবুর গুণ অপরিহার্য। ঘরে ক্লিনজারের কাজ করতে দরকার একটিমাত্র লেবুই।

৭. কারোর যদি হাইপারটেনশন থাকে, তাহলে লেবুর গন্ধ নিতে পারে। ব্লাড প্রেসার কন্ট্রোলে রাখতেও লেবু সঙ্গে রাখুন।

৮. লেবু ও লবঙ্গ একসঙ্গে রেখে দিলে, ঘরের মধ্যে পোকামাকড়, মশা-মাছি ধারেকাছে ঘেঁষবে না। বাড়িতে যদি শিশু ও বয়স্করা থাকেন, তাহলে এই প্রাকৃতিক উপায়টি একবার ট্রাই করে দেখতে পারেন। -এইসময়


গো নিউজ২৪/এএইচ