৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, শুক্রবার ২৪ নভেম্বর ২০১৭ , ১১:৪৮ পূর্বাহ্ণ

যেভাবে গ্রেফতার হলেন টিটু রায়


গো নিউজ২৪ | ফরহাদুজ্জামান ফারুক আপডেট: ১৪ নভেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার
যেভাবে গ্রেফতার হলেন টিটু রায়

রংপুর: সামজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মহানবী হযরত মুহম্মদকে (সাঃ) নিয়ে ব্যঙ্গ করে ধর্ম অবমাননাকর স্ট্যাটাস নিজের টাইমলাইনে দেয়ার অভিযোগের মামলার প্রধান আসামী আলোচিত টিটু রায় গ্রেফতার হয়েছে। মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) ভোরে নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার গোলনা ইউনিয়নের চিড়াভিজা গোলনাগ্রাম থেকে রংপুর পুলিশের একটি দল তাকে গ্রেফতার করে।

এদিকে টিটু রায়ের গ্রেফতার হওয়ায় বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। মঙ্গলবার বেলা ১টায় রংপুরের গঙ্গাচড়ার ক্ষতিগ্রস্থ ঠাকুরপাড়া গ্রাম পরিদর্শন শেষে সাংবাদিক এ তথ্য জানান তিনি। তবে কবে ও কখন টিটু রায় আটক হয় এ বিষয়ে কিছুই জানান নি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এদিকে জলঢাকার চিড়াভিজা গোলনাগ্রামের বাসিন্দারা জানায়, টিটু রায় সোমবার সন্ধ্যায় ওই এলাকায় তার আত্মীয় বৈকান্ত চন্দ্র রায়ের ছেলে কৈলাশ চন্দ্র রায়ের বাড়িতে আসেন। মঙ্গলবার ফজরের আযানের সময় রংপুর জেলা পুলিশের একটি দল চারটি ভ্যান নিয়ে এসে কৈলাশের বাড়ি ঘেরাও করে টিটু রায়কে গ্রেফতার করেন।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য টিটু রায়কে পুলিশী হেফাজতে রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে। টিটু রায়কে গ্রেফতার করা হলেও নীলফামারীর জলঢাকা থানা পুলিশ এর সত্যতা নিশ্চিত করতে পরেনি। তবে রংপুর সফরে থাকা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের কাছে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, এটা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। এখানে ধর্ম নিয়ে কোনো রাজনীতি করতে দেওয়া হবে না। পরে মন্ত্রী স্থানীয় হরকলি মাদ্রাসা মাঠে এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন। এ সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার, সংসদ সদস্য টিপু মুন্সি ও পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হকসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, টিটু রায়ের ফেসবুকের আইডি হতে ধর্মীয় অবমাননার স্ট্যাটাস দেয়া হয়েছে এমন অভিযোগে গত শুক্রবার (১০ নভেম্বর) জুম্মার নাামাজের পর রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার হরকলি ঠাকুরপাড়া গ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িতে অগ্নিসংযোগ ও হামলার ঘটনা ঘটেছিল। সেখানে আট হিন্দু পরিবারের বাড়িঘর আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয় প্রতিবাদকারীরা।

এ ঘটনায় নিহত হয় একজন ও পুলিশ সহ আহত হয় ২০ জন। এঘটনায় পুলিশের দায়ের করা দু’টি মামলায় সোমবার পর্যন্ত একশ পঞ্চাশজনের বেশি আসামীকে আটক করা হয়েছে। আটকদের অধিকাংশই জামায়াত-শিবিরের রাজনীতির সাথে জড়িত বলে জানা গেছে।

গোনিউজ২৪/কেআর