৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, বুধবার ২২ নভেম্বর ২০১৭ , ১০:২৮ অপরাহ্ণ

মুক্তিপন দাবিতে ২৩ জেলে অপহরণ


গো নিউজ২৪ | বাগেরহাট প্রতিনিধি আপডেট: ১২ নভেম্বর ২০১৭ রবিবার
মুক্তিপন দাবিতে ২৩ জেলে অপহরণ

সুন্দরবন উপকূলে বঙ্গোপসাগর থেকে মুক্তিপনের দাবিতে ২৩ জন জেলেকে অপহরণ করেছে বনদস্যু বড়ভাই বাহিনী। অপহৃত জেলেদের ১৭ জন সাতক্ষীরা জেলার আশাশুনি উপজেলার চাকলা ও ৬ জন বাগেরহাট জেলার রামপাল উপজেলার বাসিন্দা। এ তথ্য জানিয়েছে দুবলা ফিশারমেন গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক কামাল উদ্দিন আহমেদ।

অপরদিকে র‌্যাব -৬ এর আপরেশন অফিসার জাহিদ হাসান জানান, দুবলার চর এলাকা থেকে বনদস্যু বড়ভাই বাহিনীর সদস্যরা শনিবার ২০ জেলেকে অপহরন করেছে। তাদের আটকে রেখে মুক্তিপন আদায়ের চেষ্টা চালাচ্ছে বনদস্যুরা। বিষয়টি জানার পর র‌্যাব তাদের উদ্ধারের জন্য কাজ শুরু করেছে।
 
সুন্দরবনের দুবলা ফিশারমেন গ্রুপের  সাধারন সম্পাদক কামাল উদ্দিন আহমেদ গোনিউজকে জানান, সুন্দরবনের দুবলাচরের আলোরকোলের শুটকী পল্লীতে অবস্থান করা জেলেরা শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে বঙ্গোপসাগরের ৬ কিলোমিটার গভীরে গিয়ে জাল ফেলে মাছ ধরছিলেন। এসময়ে বনদস্যু বাহিনী বড় ভাই ও রফিক বাহিনীর সদস্যরা সেখানে হামলা চালিয়ে ২৩ জেলেকে মুক্তিপনের দাবীতে অপহরণ করে সুন্দরবনের গহীন অরণ্যে নিয়ে যায়।

বনদস্যুরা এখন দু’টি মোবাইল ফোনের নম্বর থেকে দুবলা ফিশারমেন গ্রুপের নেতাদের কাছে আপহৃত জেলেদের জনপ্রতি দুই লাখ  টাকা করে ৪৬ লাখ টাকা মুক্তিপণ চাচ্ছে। দুটি বনদস্যু বাহিনীর হাতে ২৩ জেলে আপহরনের বিষয়টি আইন-শৃংখলা বাহিনীদের কাছে জানান হয়েছে বলে সুন্দরবনের দুবলা ফিশারমেন গ্রুপ জানিয়েছে।

বাগেরহাটের পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায়ের সাথে তিনি গোনিউজকে বলেন, অপহরণের বিষয়টি তার জানা নেই । তবে দুবলা ফিসারমেন গ্রুপের সাধারন সম্পাদক কামাল উদ্দিন বনদস্যুদের দুটি মোবাইল ফোন নম্বর তাকে এসএমএস করে লোকেশন জানানোর অনুরোধ করেছেন।

গোনিউজ২৪/কেআর