২৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, সোমবার ১১ ডিসেম্বর ২০১৭ , ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ

মা দিবস যেন সেলফির মধ্যে আটকে না যায় !


গো নিউজ২৪ | ফারজানা আক্তার আপডেট: ১৩ মে ২০১৭ শনিবার
মা দিবস যেন সেলফির মধ্যে আটকে না যায় !

" আমি তোমাকে অনেক ভালোবাসি " - এই কথাটি যদি আপনি কাউকে বলতে চান বলতে পারেন, তার জন্য কোনো দিন বা দিবসের প্রয়োজন নেই! আমরা আমাদের জীবন নিয়ে খুব ব্যস্ত , খুব চিন্তিত তাই হয়তো বলি বলি করেও বলা হয় না।  কিন্ত কোনো একটা নির্দিষ্ট দিনে আমার যত কাজ কর্ম যাই থাকুক ভালোবাসার মানুষটিকে বলবো " ভালোবাসি।" এই নির্দিষ্ট দিনটা কোনো না কোনো একটা দিবস হয়ে আমাদের সামনে আসে।  

আমাদের আছে ভালোবাসা দিবস, বাবা দিবস , মা দিবস।  মা দিবস ! " মা " - কি ছোট্ট একটি শব্দ কিন্ত বিশালতা অসীম ! মায়ের গর্ভে সন্তান যেমন রক্ত শুষে নিরাপদে ধীরে ধীরে বড় হয়, তেমনি জন্মের পরও তিল তিল করে তার নাড়ি ছেঁড়া ধনকে একজন মানুষ হিসেবে বড় করে তোলেন ।  কিন্ত একজন সন্তান আসলেই কতটুকু মানুষ হয় ! সন্তান যদি মানুষই হবে তাহলে বৃদ্ধাশ্রম কেনো তৈরী হবে !! একদিন পরই "মা দিবস " ।   ফেইসবুকে মায়ের সাথে ছবিতে ভরে যাবে সবার টাইমলাইন।  বাহ্ , কি সুন্দর লাগবে সবাইকে ! মায়ের সাথে সন্তানের হাসি হাসি মুখ কার না দেখতে ভালো লাগে ! পাষাণ হৃদয়ও গলে যাবে এমন ছবি দেখে ! কিন্ত সত্যিই কি আমরা এতটা আন্তরিক আমাদের মা -বাপের প্রতি ! আমরা যারা বাহিরে থাকি দিনে কতবার কথা বলি মা বাবার সাথে ? কতবার কথা বলি বন্ধু - বান্ধবের সাথে ? কতবার কথা বলি প্রেমিক / প্রেমিকার সাথে ?

একবার আমার এক বন্ধুর সাথে কথা বলছিলাম কি নিয়ে যেনো ! কথায় কথায় উঠে আসলো ফোনের কথা।  ও বললো মাসে একবার নাকি তার বাসায় কথা হয়।  আমি বললাম, "এতোদিন পর পর থাকিস কিভাবে ?" ও বললো, "আরে দূর, কি কথা বলবো বাসায় ?" আমি জিজ্ঞেস করলাম যে  একদিন ফোন দিস সেদিন কি কথা বলিস ? সে বললো, "ঐদিন তো টাকার কথা বলি " । আমার মাথা ঘুরছিলো, মুখ দিয়ে কোনো কথা আসে নাই।  এক বন্ধুর মা হাসপাতালে।  সেই বন্ধুর মা পুত্রপাগল।  এই দিকে যমে - মানুষে টানাটানি সে মা চিৎকার বলে বলতেছে তার ছেলেকে দেখবে।  ছেলে ঢাকাতে আড্ডা দিয়ে আর প্রেম করে বেড়াচ্ছে।  ছেলের বাবা ছেলেকে বললো বাসায় যেতে।  ছেলে ভিডিও কল দিয়েছিলো মা'কে দেখতে বাসায় যেতে পারে নাই কারণ বন্ধুদের সাথে স্পেশাল পার্টি ছিলো !

এমন হাজারটা ঘটনা আছে।  কোনোটাই বানানো না।  ওপরের দুইটা ঘটনাই  সত্যি আমি নিজেই তার সাক্ষী।  দ্বিতীয় ঘটনার ছেলেটি প্রতি মা দিবসে, বাবা দিবসে খুব সুন্দর সুন্দর ছবি দেয় ফেইসবুকে। ক্যাপশনও খুব সুন্দর থাকে।  আমি দেখি আর ভাবি ফেইসবুকটা যদি সত্যি হয়ে যেতো এই ছেলের মা - বাবা হতো দুনিয়ার সবথেকে সুখী মা -বাবা!

একটা দিন মায়ের সাথে সেলফি ফেইসবুকে না দিয়ে, সেই দিনটা মায়ের সাথে মায়ের মনের মতো করে কাটাতে পারি না ? মা'কে ছুটি দিয়ে নিজের পাশে বসিয়ে কুটকুট করে গল্প করে মায়ের পছন্দের কোনো খাবার বানাতে পারি না আমরা ? বাইরে কতই ঘুরাঘুরি করি আমরা ,একটা দিন মা'কে নিয়ে গেলাম ! আমরা সবই পারি মুখে, ফেইসবুকে  কিন্ত বাস্তবে !!  

আমরা  ভুলে যাই আমরাও মা-বাবা হবো।  আমাদেরও এমন আদুরে আদুরে বাদরের ছানা হবে।  তারপর আমাদের ভুলে মা দিবস , বাবা দিবস নিয়ে সুন্দর সুন্দর ছবি আর স্ট্যাটাস দিবে।  আমাদের কষ্ট, বুকফাটা আর্তনাত শোনার মতো কেউ থাকবে না।  চারপাশে শুধু দেয়াল থাকবে কারণ আমাদের ঠিকানা তখন  বৃদ্ধাশ্রম !