১০ শ্রাবণ ১৪২৪, বুধবার ২৬ জুলাই ২০১৭ , ১২:৪২ পূর্বাহ্ণ

বিপিএল পঞ্চম আসরে নতুন কী থাকছে


গো নিউজ২৪ | স্পোর্টস ডেস্ক আপডেট: ১৭ জুলাই ২০১৭ সোমবার
বিপিএল পঞ্চম আসরে নতুন কী থাকছে

নিঃসন্দেহে বলা যায় দেশের ঘরোয়া আসরগুলোর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)। ছোট-খাট ঝামেলা ছাড়াই ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে চারটি টুর্নামেন্ট।  আগামী ৪ নভেম্বর থেকে শুরু হবে পঞ্চম আসর। ব্যাট-বলের জমজমাট এই আসরের উদ্বোধন হবে ২ নভেম্বর।

এবারের বিপিএলে বেশ কিছু পরিবর্তন আসবে। তার মধ্যে বিপিএলে প্রতি দলের একাদশে পাঁচজন করে বিদেশি ক্রিকেটার রাখার অনুমতি দিয়েছে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। এমন হলে একটি দল বাড়ার পরও দেশি খেলোয়াড়দের অংশগ্রহণ বাড়বে না।

এ ব্যাপারে কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক বলেছিলেন, ‘দল বাড়ায় খেলোয়াড় সংকট থাকছে, এজন্যই পাঁচ বিদেশি খেলানোর চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে। এটি ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর দাবি। তারা বলছে পাঁচজন বিদেশি খেলানোর অনুমতি দেয়া হোক।’

‘বিপিএল সারাবিশ্বে সম্প্রচারিত হয়।  ওই মানের লোকাল প্লেয়ার যদি না থাকে তারা যদি মনে করে টুর্নামেন্টকে আরো জমজমাট করতে এটা দরকার তাহলে বিবেচনা করাই যেতে পারে। আমরা গভর্নিং কাউন্সিল এখন পর্যন্ত বলছি চারজন খেলবে। আলোচনার ভিত্তিতে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। আমরা ফাইনাল করিনি।’ বলেন ইসমাইল হায়দার।

কিন্তু কথা হলো, ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে ১২টি দল অংশ নিয়েও বেশ জমজমাট লক্ষ্য করা যাচ্ছে।  বিপিএলের চেয়ে প্রিমিয়ার লিগের মান কোনো অংশেই কম নয়। পাল্টা যুক্তি দিয়ে ইসমাইল হায়দার মল্লিক বলেন, ‘প্রিমিয়ার লিগের ১২টা টিম কী সমমানের? চারটা টিমই আছে নিচের দিকে। পয়েন্ট টেবিল দেখলেই বুঝতে পারবেন। ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে দর্শকদের জন্য উপাদান থাকতে হবে। আনকোরা অনূর্ধ্ব-১৯ দলের খেলোয়াড় খেলিয়ে তো লাভ নেই। আবার আফিফ, রনি, মিরাজের মতো প্লেয়ার আমরা বিপিএলে পেয়েছি। বিপিএল বেশ কয়েকটি দেশে দেখানো হয়; দর্শক টানার জন্য তারা দাবি করছে। এটা এখনো ঠিক করিনি। চারটা হতে পারে।  পাঁচটাও হতে পারে।’

১৬ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে বিপিএল সিজন ফাইভের প্লেয়ার্স ড্রাফট। টুর্নামেন্ট শুরুর আগে ২ নভেম্বর মিরপুরে হবে জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। বিসিবির একটি সূত্র জানিয়েছে, ভারতের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী অরিজিৎ সিং ও শ্রেয়া ঘোষাল মাতাবেন বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মঞ্চ।

টি-টুয়েন্টি ফরম্যাটের এই টুর্নামেন্টের সর্বশেষ আসরে খেলেছিল সাতটি দল। এবার দল বেড়ে হয়েছে আটটি। এক আসর পর নতুন মালিকানায় বিপিএলে ফিরেছে সিলেট। ঢাকা ও চট্টগ্রামের সঙ্গে প্রথমবারের মতো ভেন্যু হিসেবেও যুক্ত হচ্ছে সিলেট।

এবারের আসরে ম্যাচের সংখ্যা ৬০। প্রথম পর্ব, এলিমিনিটির, প্রথম কোয়ালিফায়ার, দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ও ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে মিরপুরের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে।

বিপিএলের গ্রাউন্ডস স্বত্ব পেয়েছে ঢাকা কমিউনিকেশন। ২০১৭ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত বিপিএলের তিনটি আসরের সম্প্রচার স্বত্ব পেয়েছে ইমপ্রেস-মাত্রা কনসোর্টিয়াম। তাদের মাধ্যমে গাজী টিভি এবং মাছরাঙা টেলিভিশনের কাছে তিন আসরের সম্প্রচার স্বত্ব বিক্রি করেছে বিসিবি।
গো নিউজ২৪/এআর