১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪, শুক্রবার ২৬ মে ২০১৭ , ১১:৪১ পূর্বাহ্ণ

বিটি বেগুন চাষ করে কৃষকের মুখে হাসি


গো নিউজ২৪ | শামীম আহসান মল্লিক, মোরেলগঞ্জ (বাগেরহাট) প্রতিনিধি: আপডেট: ১৭ এপ্রিল ২০১৭ সোমবার
বিটি বেগুন চাষ করে কৃষকের মুখে হাসি

কোন কিটনাশক কিংবা বালাইনাশক স্প্রে ছাড়াই উৎপাদিত বিটি বেগুন-৩  চাষে বেশ জনপ্রিয়তা পাচ্ছে এবং কৃষকের মুখে হাসি ফুটেছে। চাষীরা স্থানীয় জাতের এ বেগুন চাষে চাষীদের আগ্রহ বাড়ছে।
 
বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার দুটি ইউনিয়নের ৪টি প্রদশর্ণীর মাধ্যমে পরীক্ষামূলক চাষাবাদ করা হয়। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে রাজস্ব খাতের অর্থায়নে ও উপজেলা কৃষি দপ্তরের উদ্দ্যেগে এ প্রদশর্ণী বাস্তবায়িত হচ্ছে। পুটিখালী ইউনিয়নের কৃষক আলতাফ শেখ গত বছরের ১১ নভেম্বর ৩৩ শতক জমিতে বিটি বেগুন-৩ চাষাবাদ করেন।

৩ মাসের মধ্যে ফলন তোলার উপযোগী হয় এ বেগুন। এপ্রিলের শুরুতে তিনি ফলন তুলে বাজারজাত শুরু করেছেন। তিনি জানান, এ বেগুনটি স্থানীয় জাতের হলেও এতে কীটনাশক কিংবা বালাইনাশক স্প্রে প্রয়োজন হয়না।

স্থানীয় জাতের বেগুন শতকরা ৩০ ভাগ ফসল পোকায় ক্ষতি করে এবং প্রতি সপ্তাহে কমপক্ষে ২ বার কীটনাশক স্প্রে করতে হয়। সেখানে বিটি বেগুনে কোন স্প্রে করাতে হয়না। যার কারনে আর্থিকভাবে অনেক সাশ্রয় ও পরিশ্রম কম হয়। 

উপজেলা কৃষি অফিসার অনুপম রায় জানান, বিটি বেগুন জাতের বিশেষ গুন হল এর ডগা ও ফল ছিদ্রকারী পোকা প্রতিরোধী।  এ জাতের বেগুন চাষে চাষদের উদ্ধুদ্ধকরণের লক্ষ্যে পুটিখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে রোববার মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়। এ মাঠ দিবসে শতাধিক কৃষক কৃষানী উপস্থিত হয়।

এ মাঠ দিবসে কৃষক আলতাফ শেখের উৎপাদিত বিটি বেগুন প্রদর্শণ করা হয়। বিটি বেগুন-৩ এর চাষাবাদ, গুনাগুন ও ফলাফলে চাষরিা ব্যাপকভাবে উৎসাহিত হয়।

 এ মাঠ দিবসে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পিজিবি প্রকল্প পরিচালক জিএম রুহুল আমীন। 

গো নিউজ২৪/এএইচ