২ পৌষ ১৪২৪, রবিবার ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭ , ৬:২৬ পূর্বাহ্ণ

বলি তারকাদের আলোচিত স্ক্যান্ডাল


গো নিউজ২৪ | বিনোদন প্রতিবেদক আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭ বৃহস্পতিবার
বলি তারকাদের আলোচিত স্ক্যান্ডাল


বলিউডের প্রতি আগ্রহটা বাংলাদেশেও কম নয়। এ যাবৎকালে বলিউডে বহু ঘটনা ঘটেছে কিংবা রটনা রটেছে। তার মধ্যে কিছু স্ক্যান্ডাল আছে, যা বলিউডের ইতিহাসে স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

দিবাকর ব্যানার্জী- পায়েল

পরিচালক দিবাকর ব্যানার্জীর বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন মডেল ও অভিনেত্রী পায়েল রোহাতগি। সাংহাই ছবির অডিশনের সময় নাকি ঘটনাটি ঘটেছিল। যদিও দিবাকর ঘটনাটি অস্বীকার করে যান। এসময় পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপও তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। কাকতালীয় ভাবে দিবাকরেরই ছবি ‘লাভ, সেক্স অর ধোঁকা’ যেন তার রিয়েল লাইফেই ঘটে গিয়েছিল।

অমর সিং- বিপাশা

২০১১ সালের ঘটনা, তৎকালীন সমাজবাদী পার্টির প্রথম সারির নেতা অমর সিংয়ের সঙ্গে বিপসের `সেক্স টেপ` সামনে আসে। যদিও অডিও টেপটিতে গলার আওয়াজ তাঁর নয় বলে দাবি করেন বলিউড অভিনেত্রী। অস্বীকার করার আগে কম জল ঘোলা হয়নি। গুঞ্জন কী তাতে থামে!

অস্মিত প্যাটেল-রিয়া সেন

অস্মিত প্যাটেল ও রিয়া সেনের একটি ৯০ সেকেন্ডের ঘনিষ্ঠ ভিডিও ঝড় তোলে ইন্টারনেট দুনিয়ায়।

মণীষা কৈরালা- সুভাস ঘাই

নব্বই দশকের শুরুর দিকের ঘটনা, মণীষা কৈরালা তখন সুপারহিট নায়িকা। সুভাস ঘাইও জনপ্রিয় পরিচালক। তাদের শারীরিক সম্পর্কের কথা ফাঁস করেন মণীষার মা। সুভাস ঘাইই মণীষাকে কু-প্রস্তাব দিয়েছিলেন বলে দাবি করেছিলেন তিনি। যদিও মণীষা এই ব্যাপারে মুখ খোলেননি। প্রথমে সুভাষের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হলেও পরে ঠিক করে নেন মণীষা। কিন্তু এই গুজব রটার পর আর সুভাস ঘাইয়ের ছবিতে মণীষাকে অভিনয় করতে দেখা যায়নি।

সাইনি আহুজা

গ্যাংস্টারের এই প্রতিশ্রুতিবান অভিনেতার গোটা কেরিয়ারটাই প্রশ্নের মুখে পড়ে যায় যখন তাঁর বিরুদ্ধে তাঁরই পরিচারিকা যৌন হেনস্থার অভিযোগ তোলেন।

শ্বেতা বসু প্রসাদ

মধুচক্র চালানোর অভিযোগে ২০১৪ সালে হায়দরাবাদ থেকে গ্রেফতার হন অভিনেত্রী শ্বেতা বসু প্রসাদ। প্রথমে অস্বীকার করলেও পরে শ্বেতা জানান যে, পরিবারকে আর্থিকভাবে সাহায্য করতে তিনি এই কাজ শুরু করেছিলেন। এমনকি পারিপার্শ্বিক লোকজনও তাঁকে এই ব্যাপারে সমর্থন করেছিলেন বলে তিনি দাবি করেছিলেন।

মধুর ভান্ডারকর

অভিনেত্রী প্রীতি জৈনকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল পরিচালক মধুর ভান্ডাকরের বিরুদ্ধে। প্রীতি দাবি করেছিলেন যে, একটি ছবিতে অভিনয় করার সুযোগ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে পরিচালক তাঁকে ১৬ বার ধর্ষণ করেছিলেন।

শক্তি কাপুর স্টিং অপারেশন

২০০৫ সালের ঘটনা, একটি মিডিয়া হাউস স্টিং অপারেশন চালায়। সে সময় কোনো উঠতি নায়িকাকে বিভিন্ন মিডিয়া হাউজ যেমন কুপ্রস্তাব দেয়, তার একটি চিত্র পাওয়া যায়। এখানে এক ভিডিওতে দেখা যায় শক্তি কাপুর বলছেন, ‘এ লাইনে আসতে চাইলে আমি যা বলছি তাই করতে হবে।’ নবীন তারকাদের হয়রানির একদম বাস্তব চিত্র উঠে আসে।

বীণা মালিক

পাকিস্তানি অভিনেত্রী বীণা মালিক ও তাঁর সহ অভিনেতা রাজন বর্মার সেক্স ভিডিও ফাঁস হয় ২০১২ সালে।

আদিত্য পাঞ্চেলি রেপ কেস

আদিত্য পাঞ্চেলি যখন পূজা বেদির সঙ্গে প্রেম করছে। তখনই ১৫ বছরের এক মেয়ে তাঁর বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ আনে। যদিও পরবর্তীতে তা প্রমাণিত হয়নি। আদিত্যর বিরুদ্ধে কঙ্গনার করা অভিযোগও কম আলোচনা তৈরি করেনি।

গো নিউজ২৪/কাসা