৩০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, বৃহস্পতিবার ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭ , ৪:০৯ অপরাহ্ণ

বউকে খুন করে ফেললাম


গো নিউজ২৪ | নিউজ ডেস্ক আপডেট: ৩০ এপ্রিল ২০১৭ রবিবার
বউকে খুন করে ফেললাম

কলকাতার একটি রাস্তায় অতিরিক্ত গতিতে গাড়ি চালানোর দায়ে ট্রাফিক পুলিশ ভোলাকে দাঁড় করালো।
পুলিশ : কী ব্যাপার, এতো জোরে গাড়ি চালাচ্ছিলেন কেন?
ভোলা : কী করবো? আমার তো লাইসেন্স নেই!
পুলিশ : সর্বনাশ! লাইসেন্স ছাড়াই গাড়ি নিয়ে বেরিয়েছেন?
ভোলা : আরে, আমার স্ত্রীকে হঠাৎ খুন করে ফেললাম। এবার লাশটা তো গুম করতে হবে।
পুলিশ : লাশ কই?
ভোলা : বনেটে আছে।

সঙ্গে সঙ্গে ওয়্যারলেসে সব জায়গায় খবরটা জানিয়ে দিলেন ট্রাফিক পুলিশ। তার মনে একজন ভয়ঙ্কর অপরাধী ধরার সাফল্যে প্রমোশনের আশা। পুলিশের বড়কর্তাসহ সবাই এসে হাজির। তাদের সঙ্গে মিডিয়া। চারদিকে লোকারণ্য।
বড়কর্তা : তুমি নাকি খুন করেছো?
ভোলা : পুলিশ প্রচণ্ড মিথ্যাবাদী। ঘুষ না পেয়ে আমাকে ফাঁসাতে চাইছে। আমি খুনটুন কিছু করিনি।

বড়কর্তা ভোলার কথায় কান না দিয়ে গাড়ির বনেট তুললেন, কিন্ত সেখানে কিছু নেই। একদম ফাঁকা। রাগত দৃষ্টিতে তিনি এবার ট্রাফিক পুলিশের দিকে তাকালেন।
পুলিশ : লোকটা লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালাচ্ছে!
ভোলা : ব্যাটা মিথ্যাবাদী, এটা কী?
বলে পকেট থেকে লাইসেন্সটা বের করে দিল। লাইসেন্স দেখে পুলিশ আমতা আমতা করে আরো কিছু বলতে যাচ্ছিলেন, ঠিক তখনই ভোলা আবারো চেঁচিয়ে উঠলো-
ভোলা : বলুন, আরো বানিয়ে বানিয়ে বলুন! এবার নিশ্চয়ই বলবেন যে, আমি বেশি গতিতে গাড়ি চালাচ্ছিলাম?


খেলে হজমও হয়ে যাবে
রোববার দুপুরবেলা ভোলা বারান্দায় বসে বিড়িতে একটু সুখটান দিচ্ছিলো। এমন সময় এক ভিখারি এসে বললো- ভিখারি : বাবা, তোমার প্রতিবেশী আমাকে পুরো পেট ভরে খাইয়েছে। তুমিও কিছু দাও বাবা!

ভোলা সঙ্গে সঙ্গে পকেটে হাত ঢুকিয়ে একটা হজমের ওষুধের প্যাকেট বের করে বললো-
ভোলা : পেট ভরে তো খেয়ে আসছো, এই নাও হজমের ওষুধ। এটা খেলে হজমও হয়ে যাবে!

গো নিউজ ২৪