১৪ চৈত্র ১৪২৩, মঙ্গলবার ২৮ মার্চ ২০১৭ , ১১:৪৬ অপরাহ্ণ

প্রেমে রাজি না হওয়ায় মাদরাসা ছাত্রীকে কুপিয়েছে শিবির ক্যাডার


গো নিউজ২৪ | গো নিউজ ডেস্ক আপডেট: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ মঙ্গলবার
প্রেমে রাজি না হওয়ায় মাদরাসা ছাত্রীকে কুপিয়েছে শিবির ক্যাডার

প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় কক্সবাজারের মহেশখালীর কালারমারছড়ার মাদরাসাছাত্রী নাহিদা আকতারকে (১৫) চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে সারা শরীরে জখম করেছে শিবিরকর্মী জাহিদুল ইসলাম।

কক্সবাজারের মহেশখালীর ক্রাইমজোন খ্যাত কালারমারছরায় এ ঘটনা ঘটে। আহত মাদরাসাছাত্রী মুখ, কপাল, হাত ও শরীরের একাধিক স্থানে জখম নিয়ে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে কাতরাচ্ছে।

আহত নাহিদা আকতার মহেশখালীর কালারমারছড়া আর্দশ দাখিল মাদরাসার নবম শ্রেণির ছাত্রী ও ফকিরজুম পাড়ার মোহাম্মদ হোছাইনের মেয়ে।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, নাহিদাকে প্রেমের প্রস্তাব দেয় হোয়ানক পূর্ব হরিয়ারছড়া এলাকার জামায়াত নেতা মাওলানা লোকমান হাকিমের ছেলে শিবিরকর্মী জাহেদুল ইসলাম। প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় গত সোমবার বিকেলে নাহিদার বাড়িতে হামলা চালিয়ে নাহিদার শরীরের বিভিন্ন অংশে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে ক্ষতবিক্ষত করে।

গুরতর আহত নাহিদাকে প্রথমে মহেশখালী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে অবস্থার অবনতি হলে কক্সবাজার সদর হাসাপাতালে প্রেরণ করা হয়।

কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. সুলতান আহমদ সিরাজী জানান, ধারালো অস্ত্রের আঘাতে নাহিদার গালে, কপালে, হাতে ও শরীরের আরও কয়েক স্থানে জখম রয়েছে। 

এই ঘটনায় নাহিদার বাবা বাদী হয়ে শিবিরকর্মী জাহিদুল ইসলামকে প্রধান আসামি করে ৭ জনের বিরুদ্ধে মহেশখালী থানায় মামলা করেছেন।
  
গো নিউজ ২৪/এমজে