৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৪, শুক্রবার ২৪ নভেম্বর ২০১৭ , ১২:৩৮ পূর্বাহ্ণ

পুঠিয়ায় সেই ক্লিনিক মালিক গ্রেপ্তার


গো নিউজ২৪ | স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, রাজশাহী আপডেট: ০৭ নভেম্বর ২০১৭ মঙ্গলবার
পুঠিয়ায় সেই ক্লিনিক মালিক গ্রেপ্তার

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলা সদরে অবস্থিত আল-মাহাদী ইসলামী হাসপাতাল নামের বেসরকারি ক্লিনিকে ভূল চিজিৎসায় নবজাতকসহ প্রসুতি মৃত্যুর ঘটনার চার মাস পর পলাতক ক্লিনিক মালিক মুনসুর রহমানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার সকালে উপজেলার শিলমাড়িয়া ইউনিয়নে মুনসুর রহমানের শশুর বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুঠিয়া থানা পুলিশ। গ্রেপ্তারের পর তাকে রাজশাহীর আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমাÐের আবেদন করা হয়েছে। পুঠিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রাকিবুল হাসান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গত ৯ আগস্ট উপজেলা সদরে অবস্থিত আল-মাহাদী ইসলামি হাসপাতাল নামের বেসরকারি ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় অপারেশন টেবিলে পেটের ভেতর নবজাতকসহ পান্না বেগম নামের এক প্রসুতির মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে ওইদিনই পুলিশ ক্লিনিকে হানা দিলে ভুয়া ডাক্তারসহ ক্লিনিক মালিক পালিয়ে যায়। পরে ক্লিনিকের নার্সকে আটক করে পুলিশ। ওইদিনই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ক্লিনিকটি সিলগালা করেন।
 
ঘটনার পরদিন পান্না বেগমের স্বামী বাদী হয়ে পুঠিয়া থানায় ক্লিনিক মালিক মুনছুর রহমান, ভুয়া ডাক্তারসহ ৪ জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় আটক নার্স মারুফা খাতুনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠায় পুলিশ। এরপর প্রধান আসামী ভুয়া ডাক্তার আবদুল করিমকে নাটোরে তার শশুড় বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সর্বশেষ মঙ্গলবার পলাতক মুনছুর রহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গোনিউজ২৪/কেআর