৯ ভাদ্র ১৪২৪, বৃহস্পতিবার ২৪ আগস্ট ২০১৭ , ৭:১৬ পূর্বাহ্ণ

পিরিয়ড চলাকালীন কি প্রেগন্যান্ট হওয়া সম্ভব?


গো নিউজ২৪ | লাইফস্টাইল ডেস্ক আপডেট: ২১ জুলাই ২০১৭ শুক্রবার
পিরিয়ড চলাকালীন কি প্রেগন্যান্ট হওয়া সম্ভব?

মাত্র দেড় বছর হল বিয়ে হয়েছে। এখনই সন্তান চাননি পূজা আর নীতিন। কোনো ভাবে অসাবধানও হননি তাঁরা। পিরিয়ডের সময়টা সহবাসের জন্য নিরাপদ ভেবেছিল ওরা। অধিকাংশ দম্পতিই যেমন ভেবে থাকেন। 

কিন্তু তা সত্ত্বেও এমনটা হল কী ভাবে? প্রায় দেড় মাস অপেক্ষা করেও পিরিয়ড না হওয়ায় পূজা জানতে পারে সে ৫ সপ্তাহের প্রেগন্যান্ট। ব্যস্ত জীবনে আমাদের সাহায্য করতে ফিমেল কন্ডোম, বার্থ কন্ট্রোল পিলের মতো বহু সুবিধা থাকলেও সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোলের ডেটা জানাচ্ছে, ভারতের ৪৯ শতাংশ প্রেগন্যান্সিই এখনও অপরিকল্পিত। মেনস্ট্রুয়াল সাইকেল সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা না থাকার জন্যই এমনটা হয়ে থাকে।

সাধারণ ভাবে আমরা ধরে নেই যে, মেনস্ট্রুয়েশন সাইকেল চলাকালীন প্রেগন্যান্ট হওয়ার সম্ভাবনা নেই। পিরিয়ডের সময় জরায়ুর লাইনিং ভেঙে যাওয়ার কারণে রক্তপাত হয়। তাই আমরা ধরে নিই ডিম্বাশয় থেকে ডিম্বানু এখনও নিঃসৃত হয়নি। 

চিকিত্সকরা কিন্তু বলেন, এই সময়ও ডিম্বাণু সক্রিয় থাকতে পারে। তাই পিরিয়ডের সময়ে ইন্টারকোর্সের ক্ষেত্রে খুব সামান্য হলেও ডিম্বাণু নিষিক্ত হওয়ার সম্ভাবনা থেকেই যায়।

কনসিভ করার চেষ্টা করছেন? যদি কনসিভ করার চেষ্টা করেন তা হলে জেনে রাখা ভাল, পিরিয়ডের আশেপাশের দিনগুলোতে ফার্টিলাইজেশনের সম্ভাবনা খুব বেশি থাকে না। এই সময় ডিম্বাণু অত বেশি সক্রিয় থাকে না। যদি প্রেগন্যান্সি এড়িয়ে চলতে চান এ ক্ষেত্রে পিরিয়ডের সময়টা নিরাপদ হলেও সামান্য ঝুঁকি থেকেই যায়।

যে ভুলগুলো হতে পারে
অনেক ক্ষেত্রে ওভিউলেশনের সময় হালকা রক্তপাত হয়ে থাকে। একে মিড-সাইকেল বা ওভিউলেটরি ব্লিডিং বলে। অনেক সময়ই যা পিরিয়ড বলে ভুল করে থাকি আমরা। এ ক্ষেত্রে কিন্তু পিরিয়ড হচ্ছে তাই আপনি নিরাপদ ভেবে সহবাস করলেই বিপদে পড়বেন। এই সময়টা সাইকেলের সবচেয়ে উর্বর সময়।

কী ভাবে দিন সম্পর্কে নিশ্চিত হবেন
মেনস্ট্রুয়াল সাইকেল সাধারণ ভাবে ২১-৩৫ দিনের মধ্যে ঘোরাফেরা করে। ওভিউলেশনের আগের সময়টা ১৩-২০ দিন পর্যন্ত হতে পারে। সাধারণত ওভিউলেশনের ১৪-১৬ দিনের মধ্যে পিরিয়ড হয়।

তাপমাত্রা
ওভিউলেশনের তিন দিন আগে থেকে শরীরের তাপমাত্রা একটু বেড়ে যায়। পিরিয়ডের পর আস্তে আস্তে কমে যায়। এই তাপমাত্রার পরিবর্তন এতটাই সূক্ষ্ম হয়ে যে শুধুমাত্র বিশেষ থার্মোমিটারেই তা ধরা পড়ে। ০.৪-০.৮ ডিগ্রি ফারেনহাইট পর্যন্ত বাড়ে তাপমাত্রা। তাপমাত্রা যখন সবচেয়ে বেড়ে যায় তার ২-৩ দিন আগে থেকে তাপমাত্রা নামতে থাকার ১২-২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত গর্ভধারণের সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি থাকে।

সার্ভাইকাল মিউকাস
সার্ভাইকাল মিউকাস খেয়াল করলেও বুঝতে পারবেন কখন আপনার গর্ভধারণের সেরা সময়। যখন সবচেয়ে পরিষ্কার, পিচ্ছিল, ডিমের সাদা অংশের মতো হবে, বুঝতে হবে তখন আপনার শরীর সবচেয়ে উর্বর। ওভিউলেশনের ৪-১১ দিনের মধ্যে মিউকাস আবার ঘোলাতে ও চটচটে হতে শুরু করে।

পিরিয়ড ডেট চার্ট
যদি আপনার সাইকেল ছোট হয় তা হলে পিরিয়ডের দিন থেকে ১৮ দিন বাদ দিন। সেই দিনটাই আপনার সবচেয়ে উর্বর দিন। এই ভাবেই পরের উর্বর দিন বুঝে নিন ও ক্যালেন্ডারে মার্ক করে রাখুন।

যদি লম্বা সাইকেল হয় তা হলে একই ভাবে ১১ দিন বাদ দিন। সেই অনুযায়ী বুঝে যাবেন আপনার পরবর্তী উর্বর দিন।


গো নিউজ২৪/এএইচ

ওমেন`স কর্নার বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত